জিলু খুনীদের গ্রেপ্তারের দাবীতে আরও তিনদিনের কর্মসূচি: ছাত্রদলের স্মারকলিপি প্রদান

0
69

সিলেটের সংবাদ ডট কম: গোবিন্দগঞ্জ ডিগ্রী কলেজ ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি ও সিলেট মহানগর ছাত্রদল নেতা জিল্লুল হক জিলুর হত্যাকারী এবং তাদের মদদদাতাদের গ্রেপ্তারের দাবীতে ২য় দফা ৩দিনের কর্মসূচীর ১ম দিন বৃহস্পতিবার দুপুর ১২ টায় সিলেটের বিভিন্ন কলেজ বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রদল ও ইলিয়াস মুক্তি ছাত্র সংগ্রাম পরিষদের উদ্যোগে জেলা প্রশাসকের কাছে স্মারকলিপি প্রদান করা হয়। স্মারকলিপি প্রদান কালে উপস্থিত ছিলেন মহানগর ছাত্রদল নেতা ও ইলিয়াস মুক্তি ছাত্র সংগ্রাম পরিষদের যুগ্ম আহবায়ক আমিনুল ইসলাম সাজু, এম সি বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ ছাত্রদল নেতা ও ইলিয়াস মুক্তি ছাত্র সংগ্রাম পরিষদের যুগ্ম আহবায়ক আবদুল কাইয়ুম, ল’ কলেজ ছাত্রদল নেতা ও ইলিয়াস মুক্তি ছাত্র সংগ্রাম পরিষদের আহবায়ক কামাল হোসেন, ছাত্রদল নেতা হামিদ হোসেন, সরকারী কলেজ ইলিয়াস মুক্তি ছাত্র সংগ্রাম পরিষদের আহবায়ক বদরুল আজাদ রানা, মদন মোহন কলেজের আহবায়ক মুসফিকুর রহমান মনি, সদস্য সচিব আবু তাহের শিশু, এম সি কলেজ, সরকারী কলেজ, মদন মোহন বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ, কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, ল’ কলেজ ও বেসরকারী বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রদল নেতা আব্দুল মোতাকাব্বির সাকি, শামিম আহমদ, কামরুল ইসলাম, শেখ সামছুদ্দিন আহমদ, চৌধুরী সাকিব, জাবেদ আলী নাঈম, সৈয়দ মুখসিদ আলী শাহ বাবর, সায়েক আহমদ, ইমরান আহমদ, জামিনুল ইসলাম জামি, হাসান মাশকুর চৌধুরী, মোহাম্মদ পারভেজ, ইকবাল হোসেন, শিহাব আহমদ, রেদওয়ান ইসলাম, ইমরান আহমদ ইমু, প্রমুখ। স্মারকলিপিতে বলা হয় গত ২৭ জুন  শুক্রবার সন্ধ্যা ৭টায় (প্রায়) নগরীর মদিনামার্কেট এলাকায় সন্ত্রাসী মাহবুব কাদির শাহী, কাজী মেরাজ, জামাল আহমদ ওরফে কালা জামাল, গাজি লিটন, নেছার আলম শামীম, দেওয়ান আরাফাত জাকি, ইমাদ, বোবা জেহিন, হেলাল সহ ২০/২৫জন সন্ত্রাসী নির্মমভাবে হত্যা করে মহানগর ছাত্রদল নেতা জিল্লুল হক জিলুকে। বেশ কিছুদিন ধরে মাহবুব কাদির শাহী সহ উল্লেখিত সন্ত্রাসীরা জিল্লুল হক জিল্লুকে হত্যার হুমকি দিয়ে আসছিল। গত ২৬ মে ছাত্রদল নেতা জিল্লুল হক জিল্লু নিজের ফেইসবুক আইডিতে এই হুমকির কথা লিখেছিলেন। ২৭ জুন সন্ত্রাসীরা এই হুমকির বাস্তব প্রতিফলন ঘটায়। প্রায় এক সপ্তাহ পেরিয়ে গেলেও অদ্যবধি জিল্লুর খুনী সন্ত্রাসীরা গ্রেফতার হয়নি। উপরন্তু জিলু হত্যাকান্ডের মামলার বাদী স্বাক্ষীরা নিরাপত্তহীনতায় ভুগছে। ইতোমধ্যে হত্যাকান্ডকে ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করতে জিলু হত্যা মামলার প্রধান আসামী মাহবুব কাদির শাহী এবং মামলার অন্যতম আসামী কালা জামালের ভাই বাদী হয়ে যারা জিলু হত্যাকান্ডের দাবিতে আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছেন তাদের বিরুদ্ধেও ষড়যন্ত্রমূলকভাবে ভূয়া মামলা দায়ের করেছে। একটি হত্যা মামলার প্রধান আসামী হয়েও থানায় গিয়ে মামলা দায়ের করা গভীর ষড়যন্ত্রের ইঙ্গিত বহন করে। স্মাকর লিপি তে বলা হয়, একটি মহল জিলু হত্যকারীদের রক্ষা করতে বিভিন্ন ধরনের অপতৎপরতা চালিয়ে যাচ্ছে। আমরা স্পষ্ট করে বলছি, জিলু হত্যকারীদের রক্ষার ষড়যন্ত্র করলে এবং অবিলম্বে খুনীচক্র ও তাদের মদদদাতাদেরকে গ্রেফতার না করলে সিলেট জুড়ে দুর্বার ছাত্র গণআন্দোলন গড়ে তোলা হবে। স্মারক লিপিতে অবিলম্বে মেধাবী ছাত্রনেতা জিল্লুল হক জিলুর হত্যাকারী সন্ত্রাসী এবং তাদের মদদদাতাদের গ্রেফতার করে ফাঁসির কাঠগড়ায় দাড় করানোর দাবি জানানো হয়। পাশাপাশি জিল্লু হত্যার প্রতিবাদে এবং হত্যাকারীদের গ্রেফতারের দাবিতে আন্দোলন কারী ছাত্রদল কেন্দ্রিয় সংসদের সহ-সভাপতি আবদুল আহাদ খান জামাল, মহানগর ছাত্রদলের সহ-সাধারণ সম্পাদক মতিউল বারী চৌধুরী খুর্শেদ, জেলা ছাত্রদলের সহ-প্রচার সম্পাদক আজিজুল হোসেন আজিজ এবং জিলু হত্যাকান্ডের প্রত্যক্ষদর্শী স্বাক্ষী ভূলন কান্তি তলুকদারসহ নিরপরাধ ছাত্রদল নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানানো হয়। নতুন ৩ দিনের কর্মসূচী: ছাত্রদল নেতা জিল্লুল হক জিলু হত্যাকারীদের গ্রেপ্তারের দাবীতে ১ম দফা ৩ দিনের কর্মসূচী শেষ হওয়ার পর আজ থেকে শুরু হয় ২য় দফা ৩ দিনের কর্মসূচী। ২য় দফা ৩ দিনের কর্মসূচীর ১ম দিন আজ ৩ জুলাই বৃহস্পতিবার দুপুর ১২ টায় বিভিন্ন কলেজ বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রদলের উদ্যোগে জেলা প্রশাসক বরাবরে স্মারক লিপি প্রদান করা হয়। ৫ জুলাই শনিবার মানববন্দন। ৬ জুলাই রোববার মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনারের নিকট স্মারক লিপি প্রদান। এর মধ্যে খুনিদেরকে গ্রেপ্তার করা না হলে পরবর্তীতে আরো কঠোর কর্মসূচী ঘোষনা করা হবে। 

(Visited 2 times, 1 visits today)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here