সিলেটে ছাত্রদলসহ অন্যান্য সংগঠনের শিগগিরই পুনর্গঠন

0
105

সিলেটের সংবাদ ডট কম: সিলেটে ছাত্রদলসহ অন্যান্য অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের মেয়াদোত্তীর্ণ কমিটি শিগগিরই পুনর্গঠন করা হবে জানিয়েছেন বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব সালাউদ্দিন আহমদ। তিনি বলেন, কেন্দ্রের যথাযথ মনিটরিংয়ের অভাবেই এটা হয়েছে। তবে, বর্তমানে আমরা এ বিষয়টির প্রতি গুরুত্ব দিচ্ছি। শনিবার রাত সাড়ে ৮টায় সিলেট নগরীর মালঞ্চ কমিউনিটি সেন্টারে আয়োজিত প্রেসব্রিফিং-এ তিনি এ ঘোষণা দেন। তিনি বলেন,  বর্তমান ‘স্বৈরাচারী’ সরকারের পতনের জন্য এবার বিএনপি  সম্ভব সব কৌশল প্রয়োগ করবে। সামনে কঠোর আন্দোলনের কর্মসূচি আসছে-এই মন্তব্য করে তিনি বলেন, বর্তমান ‘অবৈধ’ সরকারের নাগপাশ থেকে মুক্তি পেতে দেশবাসীকে প্রস্তুত থাকতে হবে। তিনি বলেন, বর্তমান সরকার গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়াকে ভয় পায় বলেই তারা অগণতান্ত্রিক প্রক্রিয়ায় কথা বলছে। সাবেক যোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী সালা উদ্দিন আহমদ বলেন, বিগত দিনে তীব্র আন্দোলন গড়ে তোলার পরও আওয়ামী লীগ স্বৈরাচারী কায়দায় তাদের আন্দোলন দমিয়েছে। তারা আমাদের নেতা-কর্মীদের ওপর নির্যাতনের স্টিম রোলার চালিয়েছে। স্বৈরাচারী কায়দায় ক্ষমতা কুক্ষিগত করার সর্বশেষ প্রচেষ্টা চালিয়েছে। রাজনৈতিকভাবে বিএনপিকে মোকাবেলায় ব্যর্থ হয়ে পেটুয়া বাহিনী দিয়ে গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়াকে নস্যাত করতে  চেয়েছে। কিন্তু, আগামীতে সরকার পতনের জন্য আমরা সম্ভব সব কৌশল প্রয়োগ করবো। বিএনপি সম্পর্কে আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দের ‘গলাবাজি’ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, এটা গণআন্দোলনের পূর্বাভাস। তারা যে গলায় কথা বলছেন-তা গণতন্ত্রের ভাষা নয়। সাংবাদিকদের বিরুদ্ধেও তাদের নেতারা নানামুখী কথাবার্তা বলছেন। এর মাধ্যমে তারা বিখ্যাত না কুখ্যাত হচ্ছেন-এটা তারাই ভালো জানেন। তিনি বলেন, ২০ দলীয় জোটের সাংগঠনিক টিম ২১ আগস্ট থেকে ৩১ আগস্ট পর্যন্ত দেশের বিভিন্ন জেলা সফর করছেন। এর অংশ হিসাবে তার সিলেট সফরে আসা। সরকারের বিরুদ্ধে তীব্র আন্দোলন গড়ে তুলতেই তারা জনমত সৃষ্টি করছেন। এর মাধ্যমে ভবিষ্যত আন্দোলনের দিকনির্দেশনা গ্রহণ করা হবে। তিনি বলেন, আন্দোলন সফল করতে গেলে সরকার জুলুম নির্যাতনের পথ বেছে নেবে। তাদের নাগপাশ থেকে মুক্ত হতে দেশবাসীকে সোচ্চার হওয়ার আহ্বান জানান। বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শমসের মবিন চৌধুরী বীর বিক্রম, দলের সিলেট বিভাগীয় সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক ডা:  সাখাওয়াত হাসান জীবন, সিলেট সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী, মহানগর বিএনপির সভাপতি এম এ হক, জেলা বিএনপির আহ্বায়ক এডভোকেট নূরুল হক প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

(Visited 5 times, 1 visits today)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here