কেমন ধরণের কলা আপনার স্বাস্থ্যের জন্য উপকারী?

0
259

01 (3)সিলেটের সংবাদ ডটকম ডেস্ক: কলা একটি অতি সুস্বাদু ফল, আমরা অনেকেই এটি পছন্দ করি। কেউ কেউ হয়তো রোজ এটি খেতে পছন্দ করে। কলা একটি বারোমাসি ফল যা সর্বত্র সবসময় পাওয়া যায়। কিন্তু কখনো ভেবেছেন কী যে কোন কলাটি বা কেমন কলা আপনার স্বাস্থ্যের জন্য ভালো? কলা কেনার সময় আমরা সকলেই দাগবিহীন, পরিষ্কার খোসা দেখে কলা কেনার চেষ্টা করি।

ভেতরে একটু নরম হয়ে গেলেই কলা খাই না। কিন্তু আসলেই কি এমন কলা আমাদের জন্য ভালো? উপরের ছবিতে দেখুন, ৭ রকমের কলার ছবি দেখতে পাবেন। তাহলে জেনে নিন, এই ৭টির মাঝে কোনটি আমাদের দেহের জন্য কেন উপকারী ও দারুণ বিস্মিত হবার মত কিছু তথ্য! কলা খাবার সময় আমরা যতই পরিষ্কার খোসার ও দেখতে সুন্দর কলা খাই না কেন, আসলে কিন্তু দেখতে খারাপ কলাগুলোই অধিক উপকারী আমাদের জন্য। হ্যাঁ, ঠিক ধরেছেন। কলার খোসায় কালো কালো দাগ হয়ে গেলে যে কলাটি আপনি ফেলে দেন, আসলে সেই কলাটিই আপনার দেহের জন্য ভালো! কেননা সেই কলাটিই হচ্ছে পরিপূর্ণ পাকা কলা।

অন্তত জাপানের ৩টি ভিন্ন ভিন্ন গবেষণা বলছে সেই কথাই। কলার গায়ে বাদামী দাগ যত বেশী, কলাটি তত পাকা। এবং আপনার জন্য তত বেশী স্বাস্থ্যকর। সম্পূর্ণভাবে পাকা কলাতে থাকে TNF বা Tumor Necrosis Factor, যা যে কোন অস্বাভাবিক কোষ তথা ক্যান্সারকে প্রতিহত করে। পরিপূর্ণ পাকা কলা আমাদের হজমের জন্য ভালো এবং তা বৃদ্ধি করে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা। এতে থাকে শরীর সহজে শোষণ করতে পারে এমন চিনি যা কম পাকা কলায় থাকে না। যে কোন ফলেরই ক্যান্সার প্রতিরোধ করার ক্ষমতা নির্ভর করে তাঁর সম্পূর্ণ পাকা হওয়ার ওপরে। ফল যত পাকা, তাঁর ক্যান্সারের সাথে লড়াই করার ক্ষমতাও তত বেশী। কলার ক্ষেত্রেও এর ব্যতিক্রম নয়। অর্থাৎ, কলায় বাদামী দাগ মোটেও খারাপ কিছু নয়, বরং সেটা আপনার জন্য ভালো। উল্লেখ্য যে, ফলের মাঝে আপেল, আঙুর, তরমুজ, আনারস, পেয়ারা এবং কলায় সবচাইতে বেশী ক্যান্সার প্রতিরোধক ক্ষমতা থাকে।

(Visited 2 times, 1 visits today)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here