বাজেট অধিবেশন বসছে কাল

0
126

87 (4)সিলেটের সংবাদ ডটকম ডেস্ক: আগামীকাল সোমবার জাতীয় সংসদের ষষ্ঠ অধিবেশন বসছে। এ অধিবেশনেই আগামী নতুন অর্থবছরের বাজেট উপস্থাপন করবেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। সোমবার বিকেল সাড়ে ৫ টায় শুরু হবে অধিবেশন। এর আগে বিকেল ৪টায় স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে অধিবেশনের মেয়াদ এবং অন্যান্য কার্যাবলী নির্ধারণে বৈঠকে বসবে কার্য-উপদেষ্টা কমিটি। অর্থমন্ত্রী ২০১৫-১৬ অর্থবছরের বাজেট প্রস্তাব পেশ করবেন বৃহস্পতিবার।

এরপর ২০১৪-১৫ অর্থবছরের সম্পূরক বাজেট এবং আগামী অর্থবছরের বাজেটের ওপর সাধারণ আলোচনায় অংশ নেবেন সংসদ সদস্যরা। আগামী অর্থবছরের বাজেট তিন লাখ কোটি টাকা ছাড়িয়ে যাবে বলে এরইমধ্যে জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী। বাজেট পাস হওয়ার কথা ৩০ জুন। সংসদের পঞ্চম অধিবেশন শেষ হয় গত ২ এপ্রিল।

এরপর গত ১১ মে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ নতুন অধিবেশন ডাকেন। সীমান্ত চুক্তি বাস্তবায়নে ভারতের পার্লামেন্টে সংবিধান সংশোধন বিল পাস হওয়ায় এবার অধিবেশনে নতুন মাত্রা যোগ হতে পারে বলে আশা করছেন প্রধান হুইপ আ স ম ফিরোজ। তিনি বলেন, “দীর্ঘদিনের ঝুলে থাকা সীমান্ত চুক্তি ভারতের পার্লামেন্টে পাস হওয়ায় এবার অধিবেশনে ভিন্ন মাত্রা আনবে।

ভারতের প্রধানমন্ত্রীর বাংলাদেশ সফরের সময় অধিবেশন চলবে। সে কারণে অধিবেশনে নতুন মাত্রা যোগ হবে। সংসদে এ প্রসঙ্গে আলোচনা হবে কি না জানতে চাইলে ফিরোজ বলেন, “যদি কোনা সদস্য নোটিশ দেন তবে আলোচনা হতে পারে। কিংবা ধন্যবাদ প্রস্তাব নিয়েও আলোচনা হতে পারে। বিরোধী দল জাতীয় পার্টি বাজেট আলোচনায় অংশ নিয়ে সরকারের ভুল-ত্রুটি ধরিয়ে দেবে বলেও আশা প্রকাশ করেন তিনি। বিরোধী দলীয় প্রধান হুইপ তাজুল ইসলাম চৌধুরী সাংবাদিকদের বলেন, “আমরা গতবারের মতো এবার বাজেট আলোচনা অংশ নিয়ে গঠনমূলক আলোচনা করব।

সংসদ সচিবালয়ের তথ্য অনুযায়ী, ২০১৪-১৫ অর্থবছরের বাজেটের ওপর আলোচনা হয় ৫৮ ঘণ্টা ৫৫ মিনিট। আর ২০১৩-১৪ অর্থবছরের সম্পূরক বাজেটের ওপর আলোচনা হয় ৪ ঘণ্টা ১১ মিনিট। এদিকে আসন্ন অধিবেশনের জন্য নতুন চারটি বিল সংসদ সচিবালয়ে জমা পড়েছে। বিলগুলো হলো ‘সুপ্রিম কোর্ট জাজেস (লিভ, পেনশন অ্যান্ড প্রিভিলেজ) (অ্যামেন্ডমেন্ট) বিল-২০১৫’, ‘রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরো বিল-২০১৫’, ‘বাংলাদেশ চা শ্রমিক কল্যাণ তহবিল বিল-২০১৫’ এবং ‘ইন্টারন্যাশনাল ফিন্যান্স করপোরেশন বিল-২০১৫’। এছাড়া গত অধিবেশন পর্যন্ত জমা পড়া ‘ফাইনান্সিয়াল রিপোর্টিং বিল-২০১৪’, ‘সরকারি-বেসরকারি অংশীদারিত্ব বিল-২০১৫,’ ‘খুলনা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় বিল-২০১৫’ বর্তমানে পাসের প্রক্রিয়ায় রয়েছে।

(Visited 2 times, 1 visits today)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here