ভোরে মুখোমুখি ব্রাজিল-কলম্বিয়া

0
152

21সিলেটের সংবাদ ডটকম ডেস্ক: বিশ্বকাপে ঘরের মাঠে জার্মানির কাছে ব্রাজিলের ৭-১ গোলের লজ্জাজনক হারের পেছনে কলম্বিয়ারও ভূমিকা রয়েছে। কীভাবে? কোয়ার্টার ফাইনালে কলম্বিয়ার রক্ষণভাগের খেলোয়াড় জুনিগার দেওয়া মারাত্মক আঘাতে বিশ্বকাপ শেষ হয়ে যায় ব্রাজিলের বর্তমান ফুটবলের সবচেয়ে বড় বিজ্ঞাপন নেইমার দ্য সিলভার। সেমিফাইনালে ব্রাজিল দলে নেইমার থাকলে হয়তো এভাবে হারত না স্বাগতিকরা।

ওই লজ্জাজনক হারের দায় মোচন করার লক্ষ্য নিয়েই কোপা আমেরিকায় খেলতে নেমেছে ব্রাজিল। প্রথম ম্যাচে পেরুকে হারিয়ে সূচনাটা দারুণ করেছে তারা। গ্রুপ পর্বের দ্বিতীয় ম্যাচে আজ ব্রাজিলের প্রতিপক্ষ সেই কলম্বিয়া। বাংলাদেশ সময় ভোর সাড়ে ৫টায় ম্যাচটি শুরু হবে।

সরাসরি সম্প্রচার করবে সনি সিক্স এইচডি, সনি কিক্স ও স্টার স্পোর্টস এইচডি ২। আজকের এই ম্যাচে জয় পেলে কোয়ার্টার ফাইনাল নিশ্চিত হয়ে যাবে কার্লোস দুঙ্গার দলের। বিশ্বকাপ থেকে ছিটকে যাওয়ার পর কার্লোস দুঙ্গার তত্ত্বাবধানে ১১টি ম্যাচে মাঠে নেমেছে সেলেকাওরা।

১১টি ম্যাচেই জিতেছে তারা। আজ কলম্বিয়াকে হারাতে পারলে টানা ১২ জয় তুলে নিতে পারবেন নেইমার-আলভেসরা। তবে কলম্বিয়াকে শক্ত প্রতিপক্ষ মানছেন দুঙ্গা, ‘বিশ্বকাপ থেকেই আমাদের মধ্যে তীব্র লড়াই চলছে। কোপা আমেরিকাতেও ম্যাচটা ভীষণ কঠিন হবে। এবারের কোপা আমেরিকায় সব দলই অবশ্য খুব ভালো।

তবে বিশ্বকাপের পরই এক আন্তর্জাতিক প্রীতি ম্যাচে কলম্বিয়ার মুখোমুখি হয়েছিল ব্রাজিল সেই ম্যাচে নেইমারের একমাত্র গোলে জিতেছিল হলুদ রঙের জার্সিধারীরা। এদিকে কোপা আমেরিকায় নিজেদের প্রথম ম্যাচে ভেনেজুয়েলার কাছে হেরেছে কলম্বিয়া। তাই আজকের ম্যাচটি তাদের জন্য ভীষণ গুরুত্বপূর্ণ হয়ে দেখা দিয়েছে।

কারণ, এই ম্যাচে হার মানলে কোপা আমেরিকা থেকে এক প্রকার ছিটকে যাবে তারা। তবে দুঙ্গা কলম্বিয়াকে এত তাড়াতাড়ি বাতিলের খাতায় ফেলে দিতে রাজি নন, ‘আমি মনে করি না সেই হার কলম্বিয়ার কৌশলগত দৃষ্টি ভঙ্গিতে কোনো পরিবর্তন আনবে।

খানিকটা পরিবর্তন হয়তো আসতে পারে। তবে একটা ম্যাচ বা একটা হার কোনো দলে আমূল পরিবর্তন আনতে পারে না। এদিকে এই ম্যাচ সামনে রেখে কলম্বিয়ার সেরা তারকা হামেস রদ্রিগুয়েজ বলেন, ‘এটা প্রতিশোধ নয়, এটা আরেকটা ম্যাচ এবং আমি মনে করি, একটা ভালো ম্যাচ হবে।

এই ম্যাচে আমাদের ভুল করা চলবে না। যারা সুযোগ কাজে লাগাবে তারাই ফল নিজেদের অনুকূলে নিতে পারবে। তবে নেইমার অসাধারণ ফুটবলার। ম্যাচের মোড় একাই ঘুরিয়ে দেয়ার ক্ষমতা আছে তার। তাকে রুখতে হবে আমাদের। এই ম্যাচে ব্রাজিল চাইবে আমাদের হারিয়ে পরের পর্ব নিশ্চিত করতে। সেটা হলে এই টুর্নামেন্টে আমাদের টিকে থাকা মুশকিল হবে। এ কারণে ম্যাচটি আমাদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ। কিন্তু পরিসংখ্যান কী বলে? পরিসংখ্যানে অবশ্য যোজন যোজন এগিয়ে ব্রাজিল। এ পর্যন্ত দল দুটি মুখোমুখি হয়েছে ২৭ বার।

এতে ব্রাজিল জিতেছে ১৭ বার। বিপরীতে কলম্বিয়ার জয় ২ ম্যাচে। বাকি ৮ ম্যাচ ড্র হয়েছে। কোপা আমেরিকাতে ১০ বারের লড়াইয়ে ৮ বারই জয় পেয়েছে সেলেকাওরা। হার মাত্র একটিতে। অপর ম্যাচটি ড্র হয়েছে। কোপায় দুই দল সর্বশেষ মুখোমুখি হয়েছিল ২০০৩ সালে। দ্বিতীয় পর্বের ওই ম্যাচেও ২-০ গোলে জিতেছিল ব্রাজিল। আজ এই জয়ের ধারা ধরে রাখতে পারবে তো ব্রাজিল? নাকি শেষ বিজয়ের হাসি কলম্বিয়া হাসবে? সেটা সময়ই বলে দেবে।

(Visited 4 times, 1 visits today)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here