হবিগঞ্জে পুলিশ কর্তৃক দোকান ভাংচুর : এলাকাবাসীর সড়ক অবরোধ

0
106

4 (4)সিলেটের সংবাদ ডটকম: তুচ্ছ বিষয় নিয়ে কথা কাটাকাটির জের ধরে হবিগঞ্জের ধুলিয়াখাল থেকে এক ব্যবসায়ি যুবককে পুলিশ কর্তৃক ধরে নিয়ে যাওয়া এবং দোকান ভাংচুর করার ঘটনায় সড়ক অবরোধ করেছে জনতা। অবরোধের কারণে মিরপুর-ধুলিয়াখাল ও হবিগঞ্জ-শায়েস্তাগঞ্জ সড়কে প্রায় ২ ঘন্টা যান চলাচল বন্ধ থাকে।

পরে জনতার তোপের মুখে ওই যুবককে ছেড়ে দিতে বাধ্য হয় পুলিশ। খবর পেয়ে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ঘটনাস্থলে পৌছে অভিযুক্ত দুই পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস দিলে জনতা অবরোধ তুলে নেয়। শুক্রবার ইফতারের পরপরই এ ঘটনা ঘটে। স্থানীয় সূত্র জানায়, পুলিশ লাইনের দক্ষিন দিকে গোপায়া গ্রামের দোকানদার আরিফুল ইসলামের সাথে পুলিশ লাইনের দুই কনস্টেবল সোহাগ ও বোরহানের কথা কাটাকাটি ও হাতাহাতি হয়। পরে বিষয়টি স্থানীয় লোকজন মিমাংসা করে দেন।

কিছুক্ষণ পর পুলিশ আরিফুলকে ধরে পুলিশ লাইনে নিয়ে যায় এবং তার দোকান ভাংচুর করে। এ খবর শুনে শত শত গ্রামবাসী উল্লেখিত সড়ক অবরোধ করে রাখে। ফলে শত-শত যানবাহন আটকা পড়ে। যাত্রীরা পড়েন ভোগান্তিতে। খবর পেয়ে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শহীদুল ইসলামের নেতৃত্বে একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে দায়ী পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস এবং আরিফকে ছেড়ে দেয়ার নির্দেশ দিলে অবরোধ তুলে নেয়া হয়।

এ ব্যাপারে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জানান, আটক যুবককে ছেড়ে দেয়া হয়েছে। বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত। অভিযুক্ত দুই পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে। রাতে এলাকার লোকজন ট্রাকমিছিল করে এমপি অ্যাডভোকেট মোঃ আবু জাহিরের বাসায় এসে ঘটনার সুষ্ঠু বিচার দাবি জানান। এ সময় এমপি আবু জাহির পুলিশ সুপারকে ফোন করে ঘটনাটি সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে দেখার জন্য বলেন। জবাবে পুলিশ সুপার বলেন ঘটনার সাথে জড়িত পুলিশ সদস্যদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

(Visited 11 times, 1 visits today)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here