৫ লাখ বাংলাদেশি শ্রমিক নেবে মালয়েশিয়া

0
166

2সিলেটের সংবাদ ডটকম ডেস্ক: আগামী ৬ মাসের মধ্যেই বাংলাদেশ থেকে ৫ লাখ কর্মী যাবে মালয়েশিয়ায়। বৃহস্পতিবার মালয়েশিয়ায় প্রবাসীদের আয়োজিত এক ইফতার মাহফিল ও সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে বিষয়টি নিশ্চিত করেন প্রবাসী কল্যাণ এবং বৈদেশিক কর্মসংস্থান ও জনশক্তি রফতানি মন্ত্রী খন্দকার মোশাররফ হোসেন। প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রী বলেন, সবকিছু ঠিক থাকলে আগামী ছয় মাসের মধ্যে ৫ লাখ শ্রমিক মালয়েশিয়া আসবে।

তবে জিটুজি’র মত বিটুবি’র এই প্রক্রিয়াতেও একজন শ্রমিককে খুব কম অর্থ ব্যয় করতে হবে। ডাটাবেজ পদ্ধতিতে নিবন্ধিত শ্রমিক নেয়ার এই স্বচ্ছ প্রক্রিয়ায় কোন অসাধু আদম ব্যবসায়ীর শরণাপন্ন না হতে এ সময় সকলের প্রতি অনুরোধ জানান মন্ত্রী। তিনি আরও বলেন, প্রবাসীরা বাংলাদেশের সূর্য সন্তান। তারা সোনা নয় হীরার টুকরার সমতুল্য। তাদের পাঠানো অর্থেই সমৃদ্ধ হচ্ছে দেশের অর্থনীতি। আর দেশ যেভাবে এগিয়ে যাচ্ছে মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত হওয়ার জন্য ২০২১ সাল পর্যন্ত অপেক্ষা করার প্রয়োজন হবে না। ২০১৮ সালের মধ্যেই আমরা এ লক্ষ্যে পৌঁছে যাবো। মালয়েশিয়ার পেনাংয়ে এই ইফতার পার্টি ও সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করে বাংলাদেশ ওয়েলফেয়ার এসোসিয়েশন।

দাতু আবুল কালাম আজাদের সার্বিক ব্যবস্থাপনায় বাংলাদেশ ওয়েল ফেয়ার এ্যাসোসিয়েশন আয়োজিত অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন মালয়েশিয়ায় নিযুক্ত বাংলাদেশের হাইকমিশনার মো. শহীদুল ইসলাম। উপস্থিত ছিলেন প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের মুখ্য সচিব আবুল কালাম আজাদ, প্রবাসীকল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের সচিব খন্দকার ইফতেখার হায়দার, জনশক্তি, কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরোর (বিএমইটি) মহাপরিচালক বেগম শামছুন নাহার, লেবার কনস্যুলার ছায়েদুল ইসলাম মুকুল, কনস্যুলার (পলিটিক্যাল) রাইস হাসান সারোয়ার, ফার্স্ট সেক্রেটারি এস কে শাহীন, ফার্স্ট সেক্রেটারি মুসরাত জেবিন সহ মালয়েশিয়া আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির দীর্ঘ বক্তৃতায় প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রী বলেন, সুযোগ পেলে বাংলাদেশিরা অনেক কিছু জয় করতে পারে।

আপনারা তার বাস্তব প্রমাণ। মালয়েশিয়া সরকারের প্রথম পছন্দ এখন বাংলাদেশিরা। আপনাদের কর্মদক্ষতা, নিষ্ঠা, পরিশ্রম, সততা ও সত্যবাদিতার মাধ্যমে এখানে পৌঁছেছেন। জনশক্তি রপ্তানিতে বিশ্বে বাংলাদেশ নবীনতম সদস্য হলেও বর্তমানে বিশ্বজুড়ে রয়েছে বাংলাদেশিদের চাহিদা। ১৯৭৬ সালে ২৭২৫ শ্রমিক দিয়ে জনশক্তি রপ্তানি শুরু করা বাংলাদেশের বর্তমানে এক কোটি শ্রমিক ১৬০টি দেশে ছড়িয়ে ছিটিয়ে রয়েছে। এভাবে সুনামের সঙ্গে কাজ করলে এক সময় পুরো বিশ্বজয় করবে বাংলাদেশের সোনার ছেলেরা। প্রবাসে অবৈধ বাংলাদেশিদের বৈধতার প্রসঙ্গে মন্ত্রী বলেন, আওয়ামী লীগ সরকারের আমলে বার বার অবৈধ শ্রমিকদের বৈধতা দিয়েছে মালয়েশিয়ার সরকার।

সবশেষ যে বৈধতা দেয়া হয়েছিলো সেখানে নানা কারণে বাদ যাওয়া চৌষট্টি হাজার শ্রমিককে বৈধতা দেয় মালয়েশিয়া। তবে নতুন করে অবৈধ শ্রমিকদের বৈধতার ব্যাপারে মালয়েশিয়া সরকারের সঙ্গে আলোচনার সময় এখনও হয়নি বলে মন্তব্য করেন মন্ত্রী। প্রবাসীদের দাবির মুখে বৈধ বা অবৈধ যে কোন অসহায় প্রবাসী বাংলাদেশির মরদেহ সরকারি খরচে দেশে পাঠানোর ব্যবস্থা করা হবে বলে আশ্বস্ত করেন প্রবাসী কল্যাণমন্ত্রী।

এ বিষয়ে ঢাকা থেকে আগত সংশ্লিষ্ট সবাইকে প্রক্রিয়া সম্পন্ন করারও নির্দেশ দেন তিনি। এ ব্যাপারে হাইকমিশনার শহীদুল ইসলাম বলেন, কোন প্রবাসী বাংলাদেশি মারা গেলে সবার আগে আমাকে জানানোর জন্য দূতাবাসের কর্মকর্তাদের নির্দেশ দেয়া আছে। যতদ্রুত সম্ভব মরদেহ দেশে পাঠানোর ব্যবস্থা করা হবে। তিনি আবারো নভেম্বরের মধ্যে সবাইকে ডিজিটাল পাসপোর্ট করার আহ্বান জানান।

(Visited 1 times, 1 visits today)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here