অমর একুশে বইমেলায় বেষ্টসেলার কাব্যগ্রন্থ-“তবুও বৃষ্টি আসুক”

0
255

5সিলেটের সংবাদ ডটকম: গ্রন্থ পর্যালোচনা “তবুও বৃষ্টি আসুক” ডঃ আশরাফ সিদ্দিকী সাবেক মহাপরিচালক বাংলা একাডেমী। গ্রন্থের নাম-”তবুও বৃষ্টি আসুক”- এটি কবি শফিকুল ইসলামের চতুর্থ কাব্যগ্রন্থ। তার কবিতা আমি ইতিপূর্বে পড়েছি। ভাষা বর্ণনা প্রাঞ্জল এবং তীব্র নির্বাচনী। “তবুও বৃষ্টি আসুক” গ্রন্থে মোট ৪১ টি কবিতা রচিত হয়েছে।

প্রথম থেকে শেষ পর্যন্ত এ গ্রন্থ পাঠ করে পূর্বেই বলেছি, মন অনাবিল তৃপ্তিতে ভরে যায়। বইটির প্রথম কবিতায় মানবতাহীন এই হিংস্র পৃথিবীতে কবির চাওয়া বিশ্ব মানবের সার্বজনীন আকাংখা হয়ে ধরা দিয়েছে।

কবি বলেছেনঃ- “তারও আগে বৃষ্টি নামুক আমাদের বিবেকের মরুভূমিতে, সেখানে মানবতা ফুল হয়ে ফুটুক-আর পরিশুদ্ধ হোক ধরা, হৃদয়ের গ্লানি…” (কবিতাঃ ‘তবুও বৃষ্টি আসুক’)।

প্রকৃতি. প্রেম, নারী, মুক্তিযোদ্ধা, মা এবং সুলতা নামের এক নারী তার হৃদয় ভরে রেখেছে। তাকে কিছুতেই ভোলা যায়না। মা তার কাছে অত্যন্ত আদরের ধন। মাকে তার বার বার মনে পড়ে। মনে পড়ে সুন্দরী সুলতাকে যে তার হৃদয়ে দোলা দিয়ে ছিল।

বেচারা তার জীবন, মৃত্যুহীন মৃত্যু। তাই তিনি এখনও সুলতাকে খুঁজেন। যার জন্য তিনি অনন্তকাল প্রতীক্ষায় আছেন। এই প্রিয়তমা তার হৃদয় মন ভরে আছে। নদীর জল ও তীরের মত এক হয়ে মিশে আছে। এই প্রেম বড়ই স্বর্গীয়, বড়ই সুন্দর। এক ভোলা যায়না।

প্রকৃতি আর সুলতা কখন একাকার হয়ে যায় হৃদয়ে। কাব্যগ্রন্থটি পড়ে আমার খুব ভাল লেগেছে। বইটির ছাপা অত্যন্ত সুন্দর। ধ্রুব এষের প্রচছদ চিত্রটি অত্যন্ত প্রশংসনীয়। (গ্রন্থের নাম-”তবুও বৃষ্টি আসুক” লেখক- শফিকুল ইসলাম। প্রচ্ছদ- ধ্রুব এষ। প্রকাশক- আগামী প্রকাশনী ৩৬ বাংলাবাজার, ঢাকা-১১০০। ফোন-৭১১১৩৩২, ৭১১০০২১। মোবাইল- ০১৮১৯২১৯০২৪।

(Visited 5 times, 1 visits today)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here