মানবপাচারের বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থানে ইইউ

0
118

41 (4)সিলেটের সংবাদ ডটকম ডেস্ক: মানব পাচারকারিদের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণার অঙ্গিকার করেছেন ইউরোপীয় ইউনিয়নের অভিবাসন বিষয়ক কমিশনার দিমিত্রি আভ্রারামোপোলাস।

তিনি বলেছেন, যুদ্ধ বিগ্রহের কারণে যারা ইউরোপে আসছে তাদের আশ্রয় পাওয়ার অধিকার আছে, কিন্তু নিতান্তই অর্থনৈতিক কারণে যারা অবৈধভাবে ঢুকছে, তাদের খুঁজে বের করে দেশে ফেরত পাঠানো হবে। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর ইউরোপে এ ধরণের শরণার্থী সঙ্কটের মুখে পড়েনি। ই ইউ কমিশনার এমন সময় এ সব কথা বললেন যখন সিরিয়া এবং আফ্রিকার কিছু দেশ থেকে হাজার হাজার নারী পুরুষ শিশু বিপজ্জনক অবৈধপথে পথে ইউরোপে ঢুকছে।

বিপুল সংখ্যক মানুষ আশ্রয় প্রার্থী হওয়ার ফলে যে চাপ তৈরি হয়েছে, ইওরোপের অনেক দেশই তাতে উদ্বিগ্ন। তবে ইওরোপীয় অভিবাসন ও গৃহায়ণ সংক্রান্ত কমিশনার দিমিত্রিস আভরামোপুলাস বলছেন, এই সব শরণার্থীকে আশ্রয় দেয়ার একটা নৈতিক দায়িত্ব ইওরোপীয় ইউনিয়নের রয়েছে, এবং কোন কোন দেশের উচিত বেশি করে এই দায়িত্ব পালন করা।

তবে সিরিয়া, লিবিয়া, এরিত্রিয়ার মত সংঘাতপূর্ণ দেশ থেকে যারা পালিয়ে আসছেন, এবং যারা শুধুমাত্র অর্থনৈতিক কারণে ইওরোপে ঢুকছেন, তাদের মধ্যে একটা পার্থক্য রয়েছে বলে বলছেন তিনি। মি. আভরামোপুলাস বলছেন, এই দ্বিতীয় শ্রেণির আশ্রয়প্রার্থীদের তাদের দেশে ফেরত পাঠিয়ে দিতে হবে।

ইওরোপের শরণার্থী সংকট মোকাবেলার প্রথম ধাপ হিসেবে মি. আভরামোপুলাস চাইছেন মানব পাচারকারীদের বিরুদ্ধে একটা সর্বাত্মক লড়াই শুরু করতে। তবে তিনি একই সাথে এ কথাও মেনে নেন যে আগামী কালই ইওরোপের শরণার্থী সমস্যার সমাধান হবে না, এবং বহ বছর ধরে এই সংকট চলবে। সূত্র: বিবিসি

(Visited 3 times, 1 visits today)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here