৩১ ডিসেম্বর ব্লগার রাজিব হত্যা মামলার রায়

0
120

00

সিলেটের সংবাদ ডটকম ডেস্ক: ব্লগার ও গণজাগরণ মঞ্চের অন্যতম সংগঠক আহমেদ রাজীব হায়দার হত্যা মামলার রায়ের জন্য আগামী বৃহস্পতিবার (৩১ ডিসেম্বর) দিন ধার্য করেছে দ্রুত বিচার আদালত।

সোমবার মামলাটির যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শেষে ঢাকার ৩ নম্বর দ্রুত বিচার আদালতের বিচারক সাঈদ আহমেদ এ দিন ধার্য করেন। ব্লগার হত্যার প্রথম রায় হবে এটি। এদিন আসামিপক্ষে যুক্তিতর্ক শেষ হয়। আসামিপক্ষে যুক্তিতর্ক উপস্থাপন করেন এডভোকেট মোশারফ হোসেন কাজল, ফারুক আহমেদ ও জসিম উদ্দিন।

এর আগে রাষ্ট্রপক্ষে যুক্তিতর্ক উপস্থাপন করেন সংশ্লিষ্ট আদালতের স্পেশাল পিপি মাহবুবুর রহমান। মামলাটিতে ৫৫ জন সাক্ষীর মধ্যে রাজীবের ছোটভাই স্থপতি নেওয়াজ মর্তুজা হায়দারসহ ৩৪ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ করা হয়েছে। মামলায় অভিযুক্তরা হলেন- আনসারুল্লাহ বাংলা টিমের প্রধান মুফতি মোহাম্মদ জসীমউদ্দিন রাহমানি, ঢাকার খিলক্ষেত চৌধুরীপাড়ার মো. ফয়সাল বিন নাঈম দীপ (২২), ঝিনাইদহ জেলার মহেশপুর উপজেলার পোড়াপাড়া গ্রামের মো. এহসান রেজা রুম্মান (২৩), ঢাকার কেরানিগঞ্জ থানার ধলেশ্বর গ্রামের মাকসুদুল হাসান অনিক (২৩), ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার কলেজপাড়ার নাঈম ইরাদ (১৯), চট্টগ্রাম জেলার সন্দ্বীপ উপজেলার হারামিয়া গ্রামের নাফিজ ইমতিয়াজ (২২), ঢাকার কলাবাগান থানার ভুতের গলির সাদমান ইয়াছির মাহমুদ (২০) ও ফেনী জেলার দাগনভূঁইয়া উপজেলার জয়লস্করের রেদোয়ানুল আজাদ রানা (৩০)।

জসীমউদ্দিন রাহমানি ছাড়া সবাই নর্থ সাউথের ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেকট্রনিক এবং ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড টেলিকমিউনিকেশন বিভাগের ছাত্র ছিলেন। পলাতক রানাকে রাজীব হত্যার মূল পরিকল্পনাকারী হিসাবে চিহ্নিত করা হয়েছে। উল্লেখ্য, ২০১৩ সালের ১৫ ফেব্রুয়ারি রাতে মিরপুরের কালশীর পলাশনগরে নিজ বাড়ির সামনে ব্লগার রাজীবকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়।

এ ঘটনায় রাজীবের বাবা নাজিম উদ্দীন পল্লবী থানায় হত্যা মামলা করেন। ২০১৪ সালের ২৯ জানুয়ারি নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটির সাত ছাত্রসহ আটজনের বিরুদ্ধে চার্জশিট দাখিল করেন ডিবি পুলিশের পরিদর্শক নিবারণ চন্দ্র বর্মণ।

(Visited 1 times, 1 visits today)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here