এম কে জামানের জাল ভিসার ব্যবসা পাশাপাশি পাসপোর্ট ওয়াশের ব্যবসা শুরু (পর্ব-২)

0
588

0সিলেটের সংবাদ এক্সক্লুসিভ: সিলেটের এমকে জামান উরফে দুলাল। যাকে সবাই চিনে আর্ন্তজাতিক ভিসা জালিয়াতি চক্রের মুল হোতা হিসেবে। এমন কোন দেশ নেই যে তিনি ভিসা বানাতে পারেননি। সে জন্য খোদ ব্রিটিশ হাই কমিশনের কর্তা ব্যাক্তিরা অবাক হয়েছেন তার জালিয়াতি দেখে।

এমকে জামান উরফে দুলালের উপর ধারাবাহিক প্রতিবেদনের দ্বিতীয় পর্ব আজ প্রকাশ করা হলো। সিলেটে জাল ভিসার ব্যবসার পাশাপাশি এবার পাসপোর্ট ওয়াশের ব্যবসা শুরু করেছে আন্তর্জাতিক ভিসা জালিয়াতচক্রের মুল হোতা এম কে জামান উরফে দুলাল। তবে এবার সে তার ব্যবসার স্হান পাল্টিয়েছে।

ঢাকা এবং সিলেটের প্রত্যন্ত অঞ্চলে বসে তার ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে। আগে প্রেস ব্যবসার আড়ালে বিভিন্ন দেশের দূতাবাসের মনোগ্রাম, সিলমোহর ব্যবহার করে এম কে জামান উরফে দুলাল জাল ভিসা তৈরি করে আসছিল। ২০১১ সালের ১৮ জুন ঢাকার গোয়েন্দারা সিলেটে অভিযান চালিয়ে যুক্তরাজ্য, যুক্তরাষ্ট্র, জাপানসহ বিভিন্ন দেশের জাল ভিসাযুক্ত পাসপোর্ট এবং ভিসা তৈরির বিপুল সরঞ্জামসহ তাকে আটক করেছিল।

এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে নগরীর জিন্দাবাজার হক সুপার মার্কেটের জামান প্রিন্টার্স থেকে আটক করা হয় এম কে জামানের চাচাতো ভাই বেলাল, ম্যানেজার মোস্তাফিজ, সানোয়ার, হাবিব, মুন্না, আল আমিন ও মেশিনম্যানসহ ৭ জনকে। এরপর আইনের মারপ্যাচে সে বেরিয়ে আসে। কিছুদিন তার ধান্দা বন্ধ থাকলেও বর্তমানে সে আবারও জাল ভিসা তৈরীর ব্যবসার পাশাপাশি বিভিন্ন দেশের পাসপোর্ট ওয়াশ করার ব্যবসা শুরু করেছে।

এবার তার স্হান পাল্টিয়ে নুতুনভাবে ব্যবসা চালাচ্ছে বলে সুত্র জানায়। ঢাকার ফকিরেরপুলে তার রয়েছে নামবিহীন কয়েকটি অফিস। আর সেখান থেকে সিলেট তথা দেশের বিভিন্ন জায়গার লোকদের জাল ভিসা দিয়ে হাতিয়ে নিচ্ছে কোটি কোটি টাকা। তবে আগের মতো আর লন্ডন, আমেরিকা, কানাডা, জাপনের ভিসা সে দিচ্ছেনা।

এবার সে ব্রাজিল, আফ্রিকা, জর্জিয়া, আয়ারল্যান্ড, তুরস্কসহ বিভিন্ন দেশের ভিসা জাল করে তা বিক্রি করছে। পাশাপাশি বিভিন্ন দেশের পাসপোর্ট ওয়াশ করে আয় করছে টাকা। বিভিন্ন দেশে ওয়াশ পাসপোর্ট বিক্রি হয় বিভিন্ন দামে। সুত্র জানায় লন্ডনের একটি পাসপোর্ট ওয়াশ করলে সে পায় বাংলাদেশী টাকায় ২০ থেকে ২৫ হাজার টাকা।

আর এ কাজে তার খরচ হয় মাত্র ২৫’শ টাকা। সিলেটের বিভিন্ন গ্রামঅঞ্চলে এম কে জামানের রয়েছে নেটওয়ার্ক। একেক সময় একেক গ্রামে গিয়ে সে তার ব্যবসার কাজ চালাচ্ছে। যার জন্য এবার পুলিশ তার অবস্হান সম্পর্কে সঠিক ধারনা পাচ্ছেনা বলেও সুত্র নিশ্চিত করেছে। (আগামীতে পড়ুন এম কে জামানের আরো অনেক অজানা কাহিনী )

(Visited 21 times, 1 visits today)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here