সিলেট নগরীতে ব্যাটারি চালিত রিক্সা চলাচল নিয়ে রিট খাজি করেছেন হাইকোর্ট

0
990

6সিলেটের সংবাদ ডটকম ডেস্ক: সিলেট নগরীতে ব্যাটারিচালিত রিক্সা চলাচল সংক্রান্ত রিট খারিজ করেছে হাইকোট।  সুপ্রীম কোর্টের আইনজীবি এডভোকেট মো. মোস্তাক আহমদ জানান, গত ১৯ জানুয়ারি মঙ্গলবার সুপ্রীম কোর্টের হাইকোর্ট ডিভিশনের বিচারপতি গোবিন্দ চন্দ্র ঠাকুর ও বিচারপতি এসএম মজিবুর রহমানের যৌথ বেঞ্চ শুনানী শেষে সিলেট ব্যাটারি চালিত রিক্সা মালিক সমিতির রিট খারিজ করে দেন।

তিনি আরো জানান, সিলেট ব্যাটারি চালিত রিক্সা মালিক সমিতির ২০১২ সালে করা রিট পিটিশন নং ১৩৯৯৬ শুনানী শেষে সিলেটে ব্যাটারিচালিত চালিত রিক্সা চলাচলে স্থগিতাদেশ খারিজ করে দিয়েছেন। হাইকোর্টে রিট খারিজের পর নগরীতে আর ব্যাটারিচালিত রিক্সা চলাচল করতে পারবেনা বলে মনে করছেন সংশিøষ্টরা।

তারা মনে করছেন এখন সিটি কর্পোরেশন ও প্রশাসন জুরালো অভিযান চালালে ব্যাটারিচালিত রিক্সা বিড়ম্বনা থেকে রেহাই পাবেন নগরবাসী। তবে প্রশাসন বলছে, নগরীতে ব্যাটারিচালিত রিক্সা চলাচল সংক্রান্ত রিট দায়ের করা হয়েছে। কোন রিট খারিজ হয়েছে এ ব্যাপারে তারা এখনও জ্ঞাত নন।

রিটের আদেশে পাওয়ার পরে আইন অনুযায়ী ব্যাটারিচালিত রিক্সার বিরুদ্ধে অভিযান চালানো হবে। সংশিøষ্ট সূত্রে জানা যায়, ২০১২ সালে সিলেট সিলেট ব্যাটারি চালিত রিক্সা মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মো. ওলিউর রহমান সিলেট নগরীতে ব্যাটারিচালিত রিক্সা চলাচলে নিষেধাজ্ঞার বিরুদ্ধে উচ্চ আদালতে রিট করেন।

রিটের প্রেক্ষিতে আদালত স্থানীয় সরকার সচিব, সিলেট সিটি কর্পোরেশনের মেয়র, সিলেটের জেলা প্রশাসক ও সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনারের প্রতি রুল জারি করেন। পরবর্তীতে মামলায় পক্ষ হন সিলেট ব্যাটারি চালিত অটোরিক্সা মালিক-শ্রমিক কল্যাণ পরিষদের সাধারণ সম্পাদক আবু বক্কর সিদ্দিক, সিলেট অটোরিক্সা ওনার্স এসোসিয়েশনের সভাপতি মো. আবু তাহের ও সিলেট রিক্সা মালিক সমাজ কল্যাণ সমিতির সভাপতি এমএএম শাহজাহান।

সিলেট রিক্সা মালিক সমাজ কল্যাণ সমিতির সভাপতি এমএএম শাহজাহান জানান, গত ১৯ জানুয়ারি শুনানী শেষে হাইকোর্টের যৌথবেঞ্চ সিলেট ব্যাটারি চালিত রিক্সা মালিক সমাজ কল্যাণ সমিতির রিট খারিজ করে দেন। ফলে সিলেটে ব্যাটারি চালিত রিক্সা চলাচল করতে পারবে না।

সিলেট রিক্সা মালিক সমাজ কল্যান সমিতির সাধারণ সম্পাদক ইজার উদ্দিন আহমদ জানান, ব্যাটারিচালিত রিক্সার গঠন ও গতিতে সামঞ্জস্য না থাকায় বিভিন্ন সময় দুর্ঘটনায় সাধারণ মানুষ আহত হন। প্রতিদিনই ব্যাটারিচালিত রিক্সা নগরীতে দুর্ঘটনা ঘটাচ্ছে। সমিতির ব্যানারে সিলেট নগরীতে প্রায় ৪ হাজার রিক্সা রয়েছে।  সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত উপ কমিশনার মুহাম্মদ রহমত উল্লাহ জানান, ব্যাটারিচালিত রিক্সা সংক্রান্ত উচ্চ আদালতে একাধিক রিট রয়েছে।

আদালত থেকে রিট খারিজের কোনো কাগজ এখনো পাওয়া যায়নি। অনেকগুলো রিটের মধ্যে কোনটি খারিজ হয়েছে তাও জানা যায়নি। আদালতের নির্দেশনা পেলে আইন অনুযায়ী পদক্ষেপ নেয়া হবে।  এ ব্যাপারে সিলেট সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী এনামুল হাবীব বলেন, এ সংক্রান্ত কোনো নির্দেশনা আমরা এখনো পাননি।

রিটের আদেশ পেলে ব্যাটারিচালিত রিক্সার বিরুদ্ধে অভিযান চালানো হবে।  উল্লেখ্য, গত বছরের ২১ মে সিলেটে প্রাক বাজেট আলোচনায় অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত ব্যাটারি চালিত রিক্সার বিরুদ্ধে জোরালো অভিযানের নির্দেশ দেন। এর আগে ২০১৪ সালের ৭ নভেম্বর যোগাযোগমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের সিলেট সফরে এসে বিমানবন্দর সড়কে ও চন্ডিপুলে ১০টি অটোরিক্সা আটক করে এই যানটি নিষিদ্ধ করেছিলেন। এছাড়াও সিলেট সিটি কর্পোরেশনের (বরখাস্তকৃত) মেয়র আরিফুল হক চৌধুরীও ব্যাটারিচালিত অটোরিক্সার বিরুদ্ধে অবস্থান নেন।

(Visited 27 times, 1 visits today)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here