সন্ত্রাসীরা কোপাল সন্ত্রাসীকে

0
402

সিলেট এমসি কলেজের সামনে টিলাগড় মোড়ে গত সোমবার রাতে মুখোশধারী তিন দুর্বৃত্ত জেলা ছাত্রলীগের সাবেক যুগ্ম সম্পাদক গোলাম রহমান চৌধুরী রাজনকে কুপিয়েছে। এ সময় তাঁর সঙ্গে থাকা দুজন কর্মীও আহত হন। গুরুতর আহত রাজনকে গতকাল মঙ্গলবার সকালে ঢাকার পঙ্গু হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
২০১৩ সালের ১৯ মে এমসি কলেজে ছাত্রলীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষ চলাকালে আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ে মহড়া দেওয়ার সময় একপক্ষের সঙ্গে দেখা গিয়েছিল রাজনকে। আগ্নেয়াস্ত্র হাতে হেলমেট পরা রাজনের ছবি পত্রপত্রিকায় প্রকাশ হওয়ার পর থেকে তিনি রাজনীতিতে অনেকটা নিষ্ক্রিয় হয়ে পড়েছিলেন। রাজনের বড় ভাই আইনজীবী গোলাম সোবহান চৌধুরী বলেন, সকাল সাতটার সময় পঙ্গু হাসপাতালে ভর্তির পর চিকিৎসকেরা প্রাথমিক পর্যবেক্ষণে জানিয়েছেন, রাজনের দুই পা ও হাতে সাতটি কোপ রয়েছে। কোপে ডান পায়ের হাড় ভেঙে গেছে। বাঁ হাতের দুটি আঙুলও প্রায় বিচ্ছিন্ন।
ঘটনাস্থলে থাকা কয়েকজন প্রত্যক্ষদর্শী জানান, টিলাগড় মোড়ে ফুটসাল প্রতিযোগিতা দেখছিলেন রাজন। রাত সাড়ে নয়টার দিকে প্রতিযোগিতাস্থলের এক পাশে তিনজন সঙ্গীকে নিয়ে অবস্থান করছিলেন। এ সময় তাঁর সঙ্গে খালাতো ভাই মহানগর যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক মুশফিক জায়গিরদার দেখা করেন। এর কিছুক্ষণ পরই মুখোশ পরা তিন দুর্বৃত্ত রাজনকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে চলে যায়। এ সময় রাজনের সঙ্গে থাকা এহসানুল করিম মাবরুর ও তানিম আহমদ তাঁকে রক্ষা করতে গিয়ে আহত হন।
যুবলীগের নেতা মুশফিকসহ আশপাশের লোকজন আহত তিনজনকে উদ্ধার করে সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন।

সূত্র: প্রথম আলো
(Visited 5 times, 1 visits today)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here