Daily Archives: Mar 4, 2017

সিলেটের সংবাদ ডটকম: ওসমানীনগর উপজেলার গোয়ালাবাজার ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আতাউর রহমান মানিক ও করনসী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি সৈয়দ আনোয়ার আলীর বিরুদ্ধে নির্যাতন ও হুমকি প্রদানের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

করনসি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক ফেরদৌসী বেগম শনিবার সকালে ওসমানীনগর থানায় এ অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগ সুত্রে যানা যায়, করনসী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষিক হিসেবে সম্প্রতি দায়িতভার গ্রহন করেন বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষিকা ফেরদৌসী বেগম।

তিনি ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষকের দ্বায়িত্ব নেয়ায় বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি আনোয়ার আলী ও চেয়ারম্যান আতাউর রহমান মানিক ক্ষিপ্ত হয়ে উঠেন। তারা বিভিন্ন কৌশল অবলম্ভন করে শিক্ষা বিভাগের উর্ধ্বতন মহলে তদবির করে ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষকের পদ থেকে ফেরদৌসী বেগমকে সরিয়ে দেয়ার ষড়যন্ত্র করেন বলে অভিযোগে উল্লেখ করা হয়েছে।

এরই জের ধরে গত ১ মার্চ বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির মাসিক সভায় শিশু শ্রেনীর এক ছাত্রের অভিভাবককে দিয়ে কোন কারণ ছাড়াই ভারপ্রাপ্ত শিক্ষিকাকে অশ্লিল ভাষায় গালিগালাজ করানোর অভিযোগ রয়েছে। সভায় উপস্থিত স্কুল পরিচালনা কমিটির সভাপতি আনোয়ার আলী ওই অভিভাবকের সাজানো ঘটনার পক্ষাবলম্ভন করে শিক্ষিকাকে হুমুকি-ধমকি দিয়ে মানুষিকভাবে নির্যাতন কনে বলে এজাহাওে উল্লেখ রয়েছে।

পরবর্তীতে চেয়ারম্যান আতাউর রহমান মানিক ও আনোয়ার আলীসহ তাদের সহযোগীদেরা বিদ্যালয়ে তালা ঝুলিয়ে দেন। এ বিষয়ে কোনো প্রতিবাদ না করার বিষয়ে শিক্ষিকাকে হুমকিও দেয়া হয়। শিক্ষিকা ফেরদৌসী বেগম বলেন, অভিযুক্তরা আমাকে হুমকি দিয়ে আসছে, আমি নিরাপত্তায়হীনতায় ভোগছি। ওসমানীনগর থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুল আউয়াল চৌধুরী অভিযোগ পাওয়ার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, বিষয়টি তদন্ত করা হচ্ছে।

চেয়ারম্যান আতাউর রহমান মানিক কালো টাকার প্রভাব কাটিয়ে গোয়ালাবাজার ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। চেয়ারম্যানের দায়িত্ব নেয়ান পর থেকে তিনি এলাকায় একক অধিপত্য বিস্তার করে চলেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। এলাকায় তিনি একের পর এক অরাজকতা চালিয়ে যাচ্ছেন। এছাড়া চেয়ারম্যান হওয়ার পর তার বিরুদ্ধে নারী কেলেঙ্কারীর বিষয়টিও গণমাধ্যমে উঠে এসেছিল।

ওসমানীনগর থানার তৎকালিন অফিসার ইনচার্জ মোস্তাফিজুর রহমান হত্যা মামলার প্রধান আসামী হয়ে প্রায় দুই মাস কারাবরণ এসে তিনি আরও বেপরোয়া হয়ে ওঠেছেন। অধ্যিপত্য দেখিয়ে নিয়ম নীতির তোয়াক্কা না করে নিজস্ব লোকদের দিয়ে জোরপূবর্ক করনসী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পরিচালনা কমিটি গঠন করে দিয়েছেন বলে এলাকার লোকজন অভিযোগ করেছেন।

সম্প্রতি প্রধান শিক্ষকের দ্বায়িত্বভার গ্রহনকারী শিক্ষিকা ফেরদৌসী বেগম অনিয়মতান্ত্রিক ভাবে গঠিত পরিচালনা কমিটির সদস্যসহ স্থানীয় অভিভাবকদের নিয়ে সবার সমন্বয়ে বিদ্যালয় নতুন পরিচালনা কমিটির গঠন করার জন্য সভা আহ্বান করেন। এতে চেয়ারম্যান মানিক ও তার লোকজন ক্ষিপ্ত হয়ে বিদ্যালয়ে তালা ঝুলিয়ে দেয়াসহ ওই শিক্ষিকাকে বিভিন্ন হুমকি দিয়ে যাচ্ছেন।

চেয়ারম্যান মানিক অভিযোগ অস্বীকার বলেন, স্কুল কমিটি গঠনের বিষয়ে আমি অবগত নই। প্রধান শিক্ষিকার সাথে আমার দেখাও হয়নি। স্কুলে কারা তালা দিয়েছে সে বিষয়টিও কেউ আমাকে জানায়নি। স্কুল কমিটির সভাপতি সৈয়দ আনোয়ার আলীর মুঠোফোনে কয়েক দফা কল দিলেও তিনি রিসিভ করেননি।

সিলেটের সংবাদ ডটকম: মৌলভীবাজারের জুড়ীতে অভিযান চালিয়ে ৭৫ পিস ইয়াবাসহ স্বামী-স্ত্রীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

শুক্রবার (৩ মার্চ) রাতে উপজেলার সদর জায়ফরনগর ইউনিয়নের ভূঁয়াই বাজার থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃতরা হলেন, উপজেলার ভূঁয়াই বাজারের বাসিন্দা পল্লী চিকিৎসক ও মোস্তকীন হোসেন বাবুল (৫৪) এবং তাঁর স্ত্রী জায়ফরনগর ইউপির সংরক্ষিত সদস্য রোশনা বেগম (৪৩)।

জুড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ জালাল উদ্দিন জানান, মোস্তকীন ও রোশনা বেশ কিছু দিন ধরে এলাকার তরুণ-যুবকদের কাছে ইয়াবা বিক্রি করে আসছিলেন। শুক্রবার রাত ১১টার দিকে পুলিশ তাঁদের বাড়িতে অভিযান চালিয়ে খাটের তোষকের নিচে ৭৫ পিস ইয়াবা পায়।

পরে স্বামী-স্ত্রীকে গ্রেফতার করা হয়। এ ঘটনায় জুড়ী থানার এসআই সুহেল রানা বাদী হয়ে তাঁদের বিরুদ্ধে ১৯৯০ সালের মাদক আইনের ১৯ এর ১ ধারার ৯ এর খ ধারায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। আদালতের মাধ্যমে গ্রেফতারকৃতদেরকে মৌলভীবাজার জেল হাজতে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে।

সিলেটের সংবাদ ডটকম: জগন্নাথপুর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে আর মাত্র একদিন বাকি। সোমবার এ উপজেলার নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচনের শেষ মুহূর্তে প্রার্থী, সমর্থক ও আত্মীয় স্বজনের ভোট প্রার্থনায় ছড়িয়ে পড়ছে উত্তাপ নির্বাচনী মাঠে।

প্রচারণার শেষ দিনে শনিবার প্রার্থীরা কাক ডাকা ভোর থেকে সারাদিন প্রচার, প্রচারণা, গণসংযোগ ও নির্বাচনী সভার মাধ্যমে পার করেছেন। শুরু হয়ে গেছে কালো টাকার খেলাও। অভিযোগ উঠেছে বিএনপি ও আওয়ামী লীগের প্রার্থীরা শেষ মুর্হুতে এসে টাকার খেলায় মেতে উঠেছেন।

প্রবাসী অধ্যুষিত এ উপজেলা নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ৩ জন। ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৫ জন ও নারী ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৩ জন লড়ছেন। শনিবার সকাল থেকে আওয়ামীলীগ মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী সংগঠনের সভাপতি বর্তমান পরিষদের চেয়ারম্যান আকমল হোসেন তার নির্বাচনী নৌকার প্রতীকে ভোট চেয়ে পৌরসভার হবিবনগর, মাদ্রাসা পয়েন্ট, পৌর পয়েন্টে,বাসষ্ট্যান্ডসহ বিভিন্ন স্থানে গণসংযোগ শেষে বিকেলে পৌরশহরের জগন্নাথপুর মধ্য বাজারে নৌকার সমর্থনে শেষ নির্বাচনী সভায় বক্তৃতা করেন।

প্রবীন রাজনীতিবিদ সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সহ-সভাপতি সিদ্দিক আহমদের সভাপতিত্বে ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম রিজুর পরিচালনায় অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি, সাবেক এমপি আলহাজ্ব মতিউর রহমান, বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ব্যারিস্টার এনামুল কবীর ইমন, আওয়ামী লীগ মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী আকমল হোসেন, ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী বিজন কুমার দেব, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী হাজেরা বারী, অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী ব্যক্তিগত সচিব আবুল হাসনাত প্রমুখ।

অপরদিকে, স্বতন্ত্র প্রার্থী উপজেলা পরিষদের বর্তমান ভাইস চেয়ারম্যান উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মুক্তাদির আহমদ মুক্তার আনারস প্রতীকে উপজেলার পাইলগাও, স্বাধীন বাজার, রানীগঞ্জ, পীরেরগাঁওসহ বিভিন্ন গ্রামে গণসংযোগ চালিয়ে ভোট প্রার্থনা। বিএনপির দলীয় মনোনিত প্রার্থী জেলা বিএনপি নেতা সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আতাউর রহমান ধানের শীষ প্রতীকে গণসংযোগ করেছেন উপজেলার সৈয়দপুর, ইনাতনগর, লুদরপুর, টিয়ারগাও,গোঘগাও, ইছগাও, হবিবপুর গ্রামে।

প্রথমবারে মতো দলীয় প্রতীকে নির্বাচন হওয়ায় আওয়ামী লীগ ও বিএনপির প্রার্থীর পক্ষে প্রচারণায় অংশ নিয়েছেন কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ। আর স্বতন্ত্র প্রার্থীর মুক্তাদীর আহমদের পক্ষে এলাকার তরুণ ও যুবসমাজের একটি বৃহৎ অংশ প্রচারনা চালিয়েছে। আওয়ামীলীগ প্রার্থীদের পক্ষে নৌকার বিজয় সুনিশ্চিত করতে জগন্নাথপুরের প্রবীন রাজনীতিবিদ সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সহ-সভাপতি সিদ্দিক আহমদ, কেন্দ্রীয় কৃষকলীগের নেতা শামিমা শাহরিয়ার, সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক ব্যারিষ্টার এম এনামুল কবির ইমনসহ আওয়ামীলীগের নেতারা মাঠে প্রচারনা চালিয়েছেন।

অপরদিকে, বিএনপি মনোনীত প্রার্থীদের জেলা বিএনপির আহবায়ক সাবেক সংসদ সদস্য নাছির উদ্দিন চৌধুরী, বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা সাবেক সংসদ সদস্য কলিম উদ্দিন আহমদ মিলন, কেন্দ্রীয় মুক্তিযোদ্ধা দলের সহ-সভাপতি এম এ মালেক খানসহ বিএনপির নেতা কাজ করছেন। এদিকে, অবাধ, সুষ্ঠু ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচন সম্পন্নের লক্ষে প্রশাসন ব্যাপক প্রস্তুতি গ্রহন করেছে। এ উপজেলায় মোট ভোটার সংখ্যা ১ লাখ ৬৭ হাজার ৪শ ৯৯জন। পুুরুষ ভোটার ৮৩ হাজার ৬শ ৯২ ও মহিলা ভোটার ৮৩ হাজার ৮শ ৭জন।

৮৭টি কেন্দ্রে ৪শ ৩২টি বুথে ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। ইতিমধ্যে বৃহস্পতিবার ও শুক্রবার ভোট গ্রহণ কাজে নিয়োজিত ৯০ জন প্রিসাইডিং ৪শ ৫৪ জন সহকারী প্রিসাইডিং এবং ৯শ ১১ জন পোলিং অফিসারের প্রশিক্ষণ সম্পন্ন হয়েছে। নির্বাচন সহকারী রিটার্ণিং অফিসার জগন্নাথপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ মাসুম বিল্লাহ জানান, একটি অবাধ, সুষ্ঠু ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচন সম্পন্নের লক্ষ্যে প্রশাসনের পক্ষ থেকে সকল প্রস্তুতি গ্রহণ সম্পন্ন করা হয়েছে।

সিলেটের সংবাদ ডটকম ডেস্ক: জালিয়াতকারী, পুলিশের তালিকাভ’ক্ত অপরাধী নজরুল গংদের হয়রানী থেকে রক্ষার আর্তি জানিয়েছেন সুনামগঞ্জের ছাতক এলাকাবাসী।

শনিবার সিলেট জেলা প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করে জালিয়াতচক্রের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে প্রশাসনসহ সকল মহলের সহযোগীতা চেয়েছেন ছাতকের বৌলা গ্রামের মরহুম আব্দুর রহিমের ছেলে পাথর ব্যবসায়ী সমিতির সদস্য আব্দুল ওদুদ।

লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, নিজের অপকর্ম ঢাকতে ছাতকের ব্যবসায়ী, মুরব্বী ও সালিশ ব্যক্তিগণের বিরুদ্ধে বানোয়াট কাল্পনিক মনগড়া ভুল তথ্য দিয়ে ইতোপূর্বে সংবাদ সম্মেলন করেছেন একই গ্রামের মৃত নুরুল হকের ছেলে ভ’মি জালিয়াতকারী নজরুল হক।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে বলা হয়, সম্প্রতি ছাতক ভূমি অফিসে বেশ কয়েকটি নামজারির কাগজ জাল ধরা পড়ে। তখন উপজেলা প্রশাসন জালিয়াতকারী চক্রকে ধরতে নানা রকম কৌশল অবলম্বন করে। ১৭ ফেব্রুয়ারি ছাতকের সহকারি কমিশনার (ভূমি) শেখ হাফিজুর রহমানের নেতৃত্বে পুলিশ সদস্যরা নজরুলের বাড়িতে অভিযান চালায়।

তবে নজরুল পালিয়ে গেলেও তার কক্ষ থেকে ভূমি জাল-জালিয়াতি সংক্রান্ত কাগজ ও সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের নাম-পদবীসহ জাল সীলমোহর, জাল ডিসিআর কপি, ভূমি উন্নয়ন কর আদায়ের জাল রশিদ উদ্ধার করা হয়। এ ব্যাপারে ভূমি অফিসের পক্ষ থেকে নজরুলকে আসামী করে মামলা করা হয়। পরদিন ১৮ ফেব্রুয়ারি বিভিন্ন সংবাদপত্রে এ খবর গুরুত্ব সহকারে প্রকাশ করা হয়।

অসংখ্য ভুয়া নামজারী দিয়ে নজরুলের নেতৃত্বে জালিয়াতচক্র সাব-রেজিস্ট্রার অফিসে তাদের তৎপরতা চালিয়ে কোটি কোটি টাকা হাতিয়ে নেওয়ার তথ্য প্রমাণ পায় অভিযানিক দল। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে প্রকৃত সত্য ঘটনা তুলে ধরে তিনি বলেন, ছাতক শহরের প্রতারক ও জালিয়াতি চক্রের মূলহোতা  নজরুল একাধিকবার চোরাই মোটরসাইকেলসহ বিভিন্ন সময় আটক হয়।

এমনকি ছাতক থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার (ওসি) মোটরসাইকেল চুরির ঘটনায় অভিযুক্ত নজরুল কয়েকটি ডাকাতি মামলায় ইতোমধ্যে কারাবরণ করেছে। তথ্য প্রমাণ হিসেবে সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, সিলেটের বিশ্বনাথ উপজেলার মীরেরচর গ্রামের মুক্তিযোদ্ধা শফিক আহমদের সাড়ে ২৬ শতক জমি রয়েছে ছাতক শহরের মন্ডলীভোগ এলাকায়। বাড়ি তৈরীর জন্য সাউথইস্ট ব্যাংক সিলেট শাখা থেকে প্রায় ১২ লাখ টাকা ঋণ নেন।

২০০০ সালে তিনি পৌরসভার অনুমোদন সাপেক্ষে বাড়ি নির্মাণ কাজ শুরু করেন। ২০১০ সালে এসে বাড়ির কাজ অসমাপ্ত রেখেই তিনি মৃত্যুবরণ করেন। কিছুদিন পর তার পরিবারের সদস্য ব্যাংকের ঋণের বিষয়টি সম্পর্কে অবহিত হন। ব্যাংকের ঋণ পরিশোধ এবং পরিবারের অর্থনৈতিক সংকটের কারণে টাকার প্রয়োজন হওয়ায় মুক্তিযোদ্ধা শফিক আহমদের স্ত্রী সুরতুন নেছা ও জো¯œা বেগম, মেয়ে হেনা বেগম ও রোশনা বেগম আমি আব্দুল অদুদ গংকে ২০১৫ সালে স্থায়ী আমমোক্তার নিযুক্ত করেন।

কিন্তু নজরুল হক ও তার সঙ্গীয় ভূমি জালিয়াত চক্র শফিক আহমদের সাড়ে ২৬ শতক ভ’মি আত্মসাতের চেষ্টায় জাল কাগজ সৃজন করে অপতৎপরতা চালায়। এ নিয়ে ২০১৩ সালের ১ সেপ্টেম্বর মুক্তিযোদ্ধা শফিক মিয়ার মেয়ে হেনা বেগম বাদী হয়ে সুনামগঞ্জ অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে নজরুল হক, বিলাল আহমদ গংদের বিরুদ্ধে দরধাস্ত মামলা (নং- ১০৪/২০১৩) দায়ের করেন।

এ সংক্রান্ত বিষয়ে উচ্চ আদালতের রায়ও রায় নজরুল হক গংদের বিপক্ষে যাওয়ায় গত ২৫ ফেব্রুয়ারি তারা সংবাদ সম্মেলনে সঠিক তথ্য গোপন করে ওদুদসহ অন্যান্য মুরব্বি-ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে অপপ্রচার করেছে। তাদের এমন হয়রানি ও মিথ্যাচার থেকে ছাতকের মানুষকে রক্ষায় সংবাদ সম্মেলনে প্রশাসনসহ সকল মহলের সহযোগীতা কামনা করেছেন।সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন ভ’মির মালিক মরহুম শফিক মিয়ার মেয়ে হেনা বেগম, নাতনি আয়শা খাতুন, ফারুক মিয়া ও আবুল হোসেন।

0 9

সিলেটের সংবাদ ডটকম ডেস্ক: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঢাকা থেকে যুক্তরাজ্যের কার্গো ফ্লাইট চলাচলের সাময়িক নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের জন্য ব্রিটিশ সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়ে বলেছেন, এই নিষেধাজ্ঞার ফলে বাংলাদেশি ব্যবসায়ীরা ব্যাপক ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন।

ঢাকা সফররত ব্রিটেনের এশিয়া ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চল বিষয়ক মন্ত্রী অলোক শর্মা ৪ মার্চ শনিবার প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে গণভবনে সৌজন্য সাক্ষাৎকালে প্রধানমন্ত্রী এ আহ্বান জানান। এ সময় ব্রিটিশ মন্ত্রী বলেন, ঢাকা থেকে যুক্তরাজ্যে পুনরায় কার্গো ফ্লাইট চালুর বিষয় দু’দেশের বিশেষজ্ঞরা একত্রে বসে সুরাহা করবে।

ব্রিটিশ সরকার গতবছর মার্চে নিরাপত্তা ঘাটতির কারণ দেখিয়ে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত ঢাকা থেকে যুক্তরাজ্যে কার্গো ফ্লাইট চলাচল নিষিদ্ধ করে। নিরাপত্তা ঘাটতিকে একটি বিশ্বজুড়ে ঘটমান বিষয় হিসেবে উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, সম্প্রতি হিথ্রো বিমানবন্দরে এ ধরনের নিরাপত্তা ত্রুটি পাওয়া গেছে।

বৈঠকের পরে প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব সাংবাদিকদের ব্রিফিংকালে বলেন, প্রধানমন্ত্রী এবং ব্রিটিশ মন্ত্রী দু’দেশের মধ্যে চমৎকার দ্বিপক্ষীয় সম্পর্কের বিষয়ে গভীর সন্তোষ প্রকাশ করেন এবং আশা প্রকাশ করে বলেন, এই সম্পর্ক আগামী দিনে আরও জোরদার হবে। প্রেস সচিব বলেন, তারা পারস্পরিক স্বার্থে বিশেষ করে বিমানবন্দরের নিরাপত্তা ও অবকাঠামো উন্নয়নে সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন ইস্যু নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করেন।

রোহিঙ্গা প্রসঙ্গ তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রী রোহিঙ্গা ইস্যু সমাধানে এবং তাদের জন্য নিরাপদ ও স্বাস্থ্যসম্মত পরিবেশে অস্থায়ী পুনর্বাসনে বৃটেনসহ আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের সহযোগিতা চেয়েছেন। শেখ হাসিনা ব্রিটিশ মন্ত্রীকে অবহিত করেন যে, নিবন্ধিত ও অনিবন্ধিত ৪ লাখের বেশি মায়ানমারের নাগরিক অমানবিক অবস্থায় বাংলাদেশে বাস করছে। সরকার তাদের ভালো পরিবেশে নিরাপদ এলাকায় পুনর্বাসনের উদ্যোগ নিয়েছে।

সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে সরকারের ‘জিরো টলারেন্স’ নীতিতে দৃঢ় অবস্থান পুনর্ব্যক্ত করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ইতোমধ্যেই গত বছর হলি আর্টিসান বেকারিকে হামলাকারী জঙ্গিদের বিরুদ্ধে তাঁর সরকার সক্ষমতার প্রমাণ দিয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা ড. গওহর রিজভী, প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব ড. কামাল আবদুল নাসের চৌধুরী, ব্রিটেনে বাংলাদেশের হাইকমিশনার নজমুল কাউনাইন এবং বাংলাদেশে ব্রিটিশ হাইকমিশনার এলিসন ব্লেক এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

সিলেটের সংবাদ ডটকম ডেস্ক: কমখরচে ডমেস্টিক রায়ানএয়ারের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে এবার ট্রেন চালানোর উদ্যোগ নিয়েছে ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ)। এই পরিকল্পনা বাস্তবায়ন হলে যাত্রীসেবায় নতুন দ্বার উন্মোচিত হবে ইউরোপজুড়ে।

গত ডিসেম্বর এ সংক্রান্ত একটি আইন অনুমোদন করা হয় ইউরোপীয় পার্লামেন্টে। রায়ানএয়ারের মতো ইউরোপের বিভিন্ন দেশে কমখরচে এই ট্রেন যাত্রীদের গন্তব্যে খুব দ্রুত পৌঁছে দেবে। ২০১৯ সালে সর্ব ইউরোপে এই দ্রুতগতির ট্রেন চালুর পরিকল্পনা চলছে।

তবে এই ট্রেন আঞ্চলিকভাবে চলতে ২০২৩ সাল পর্যন্ত সময় লাগতে পারে। ইতালির লা রিপাবলিকা পত্রিকায় সম্প্রতি এ বিষয়ে একটি প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। এছাড়া স্পেনের ইএল পাইস পত্রিকায় বড় করে এ সংক্রান্ত তথ্য তুলে ধরা হয়। অন্যদিকে ডমেস্টিক এ সার্ভিসে ইউরোপীয় ইউনিয়ন পরিবহন যাত্রীদের সেবা দিতে পারবে।

রেললাইন পরিকল্পনার মধ্যে জার্মান, ফ্রান্স ও ইতালি রয়েছে। এ প্রকল্প থেকে ২০২৬ সালে ৪.২ বিলিয়ন ইউরো আয়ের পরিকল্পনা করছে ইইউ। বিশাল ইউরো রেল পরিকল্পনায় থাকছে দুই লাখ ১৫ হাজার কি.মি.। ২৮টি দেশের ২৮টি এজেন্সির আলাদা নিরাপত্তা ব্যবস্থা এবং ১১ হাজার ভিন্ন রীতি রয়েছে এতে।

সিলেটের সংবাদ ডটকম: সিলেটের বিয়ানীবাজার উপজেলার গজুকাটা গ্রামে তুচ্ছ ঘটনার জের ধরে দু’গ্রুপের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে অন্তত অর্ধশতাধিক মানুষ আহত হয়েছেন।

শনিবার দুপুরে উপজেলার গজুকাটা গ্রামে স্থানীয় দুবাগ ইউনিয়নের সাবেক সদস্য আফতাব উদ্দিন ও জসিম উদ্দিনের লোকজনের মধ্যে সংঘর্ষের এ ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, শনিবার দুপুরে উপজেলার গজুকাটা গ্রামে গাছ থেকে সুপারি পাড়াকে কেন্দ্র করে স্থানীয় দুবাগ ইউনিয়নের সাবেক সদস্য আফতাব উদ্দিন ও জসিম উদ্দিনের লোকজন সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েন। এতে দু’গ্রুপের সংঘর্ষে অন্তত অর্ধশতাধিক লোকজন আহত হন।

আহতদের উদ্ধার করে স্থানীয় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও সিলেটের বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বিয়ানীবাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) চন্দন কুমার চক্রবর্তী এ খবর নিশ্চিত করে বলেন, সংঘর্ষের খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয় এবং পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে। তবে এ ঘটনায় কাউকে গ্রেফতার করা হয়নি।

সিলেটের সংবাদ ডটকম: সিলেট-২ আসনের সংসদ সদস্য ও জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব ইয়াহইয়া চৌধুরী এহিয়া’র শোকাহত পরিবারের কাছে ছুটে এসেছেন সাবেক রাষ্ট্রপতি এবং জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ।

তিনি শনিবার দুপুরে সিলেট নগরীর ঝেরঝেরিপাড়াস্থ ইয়াহইয়া চৌধুরীর নিজ বাসভবন এভারগ্রিণ ২০ নম্বর বাসায় দোয়া মাহফিলে অংশগ্রহন করেন। শনিবার সকাল ১১টা ২০ মিনিটে নভোএয়ারের একটি ফ্লাইটে এরশাদ সিলেট এসে পৌঁছান।

এরপর তিনি নগরীর মানিক পীর (র.) সিটি কবরস্থানে ইয়াহইয়া চৌধুরীর পিতা মরহুম অ্যাডভোকেট আব্দুল হাই চৌধুরীর কবর জিয়ারত করেন। ১২ টায় এহিয়া চৌধুরীর ঝেরঝেরিপাড়াস্থ বাসায় আয়োজিত দোয়া মাহফিলে অংশগ্রহন করেন এবং শোকাহত পরিবারের সদস্যদের সান্তনা ও সমবেদনা জানানা এরশাদ। প্রায় ঘন্টাখানেক সেখানের অবস্থানের পর হযরত শাহজালাল (রহ.) এর মাজার জিয়ারত করেন এবং দুপুর ২টায় ইউএস বাংলার একটি ফ্লাইটে তিনি ঢাকার উদ্দেশ্যে সিলেট ত্যাগ করেন।

সাংসদ এহিয়া চৌধুরীর বাসায় অনুষ্ঠিত দোয়া মাহফিলে সংক্ষিপ্ত বক্তব্য রাখেন সাবেক রাষ্ট্রপতি ও জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ, জাতীয় পার্টির মহাসচিব এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদার, জাতীয় সংসদের বিরোধী দলীয় হুইপ সেলিম উদ্দিন, সিলেট-২ আসনের সংসদ সদস্য ও জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব ইয়াহইয়া চৌধুরী এহিয়া, সিলেট কাজিরবাজার মাদ্রাসার প্রিন্সিপাল মাওলানা হাবিবুর রহমান।

এসময় উপস্থিত ছিলেন- সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট পীর ফজলুর রহমান মিছবাহ, আব্দুল মুমিন চৌধুরী বাবু, সাবেক সংসদ সদস্য মাওলানা ফরিদ উদ্দিন চৌধুরী, সিলেট জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি অ্যাডভোকেট লুৎফুর রহমান, জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি আ.ন.ম শফিকুল হক, সিলেট সিটি কর্পোরেশনে বরখাস্তকৃত মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী, সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট আসাদ উদ্দিন, সিলেট জেলা জাতীয় পার্টির আহবায়ক তাজ রহমান, যুগ্ম আহবায়ক মালেক খান, সদস্য সচিব উসমান আলী চেয়ারম্যান, সাবেক সভাপতি আব্দুল্লাহ সিদ্দিকী, সাবেক সাধারণ সম্পাদক ইশরাকুল হোসেন শামিম, সুনামগঞ্জ জেলা জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক আব্দুল ওয়াহিদ কনা মিয়া, সিলেট মহানগর জাতীয় পার্টির সদস্য সচিব অ্যাডভোকেট আব্দুল হাই কাইয়ূম, সাবেক সহ-সভাপতি আব্দুস সামাদ নজরুল, বিশ্বনাথ সদর ইউপি চেয়ারম্যান ছয়ফুল হক, রামপাশা ইউপি চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট মোহাম্মদ আলমগীর, বালাগঞ্জ উপজেলা পরিষদের সাবেক মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান হাবিবা বেগম, বিশ্বনাথ প্রেসক্লাবের সাধরণ সম্পাদক প্রনঞ্জয় বৈদ্য অপু, যুগ্ম সম্পাদক এমদাদুর রহমান মিলাদ, কোষাধ্যক্ষ মোহাম্মদ আলী শিপন, সদস্য নুর উদ্দিন, বিশ্বনাথ জামেয়া মাদানিয়া মাদ্রাসার প্রিন্সিপাল মাওলানা শিব্বির আহমদ, লামাকাজী রাগীব-রাবেয়া উচ্চ বিদ্যালয় এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ ছিফত আলী, ছাতক উপজেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি আবুল লেইছ কাহার, বিশ্বনাথ উপজেলা জাতীয় পার্টির সাবেক ভারপ্রাপ্ত আহবায়ক হাজী সিতাব আলী, সাবেক যুগ্ম আহবায়ক একেএম দুলাল, জয়নাল আবেদীন, আব্দুল হান্নান, আবুল খয়ের মেম্বার, ফিরোজ আলী, সিলেট জেলা যুব সংহতির সভাপতি আলতাফুর রহমান আলতাফ, সাধারণ সম্পাদক মর্তুজা চৌধুরী, সাংগঠনিক সম্পাদক আশিক মিয়া, জাপা নেতা সালেহ আহমদ তোতা, ছাত্রসমাজ বেলাল উদ্দিন, আল আমিন, মারুফ আহমদ ফরহাদ প্রমুখ।

সিলেটের সংবাদ ডটকম ডেস্ক: হকি ওয়ার্ল্ড লিগের রাউন্ড-২ এর ঢাকা পর্বের প্রথম দিনে দাপট ছিল ফেবারিটদেরই। চীন ও মিশরের পর দিনের তৃতীয় ম্যাচে জিতেছে ওমান। এ তিন ম্যাচের মধ্যে ওমানই ছিল প্রতিপক্ষের ওপর বেশি নির্দয়।

ফিজির গোলপোস্টে একের পর এক আক্রমণ চালিয়ে মধ্যপ্রাচ্যের দেশটি মাঠ ছাড়ে ৭-০ গোলের জয় নিয়ে। শনিবার মওলানা ভাসানি স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত দিনের তৃতীয় ম্যাচে ওমান প্রথমার্ধে ২-০ গোলে এগিয়েছিল।

২৪ মিনিটে আল শাতারি সাফির গোলে এগিয়ে যায় ওমান। ২৭ মিনিটে বাইত জান্দালের গোলে ব্যবধান দ্বিগুণ করে তারা। ৩৫ মিনিটে রজম বাশিম গোল করলে ৩-০ ব্যবধানে এগিয়ে যায় মধ্যপ্রাচ্যের দেশটি। ৩ মিনিট পর জান্দাল বাইত করেন নিজের দ্বিতীয় গোল।

দলকে ৫-০ গোলে এগিয়ে দেন আল শিবলি কাশিম ৪৫ মিনিটে। পরের মিনিটেই ব্যবধান ৬-০ করেন জান্দাল। ওমানের শেষ গোল করেছেন আশরাফ নাশেরি ৫৮ মিনিটে। রোববার ওমান নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচ খেলবে মালয়েশিয়ার বিপক্ষে এবং ফিজি খেলবে বাংলাদেশের বিপক্ষে।

সিলেটের সংবাদ ডটকম ডেস্ক: দীর্ঘ বিরতির পর জর্ডানে শনিবার ১৫ জনের ফাঁসি কার্যকর করা হয়েছে। ২০০৬ থেকে ২০১৪ সাল পর্যন্ত দেশটিতে ফাঁসি কার্যকর স্থগিত ছিল।

দেশটির তথ্যমন্ত্রী মাহমুদ আল-মোমানি সরকারি সংবাদসংস্থা পেত্রা’কে বলেন, ফাঁসি কার্যকর হওয়াদের মধ্যে পর্যটক, লেখক ও নিরাপত্তাবাহিনীর ওপর হামলায় অভিযুক্ত ছিলেন ১০ জন।

এছাড়া অপর পাঁচজন ধর্ষণে অভিযুক্ত ছিলেন। এদিকে দণ্ড কার্যকর হওয়া ১০ জন দেশটির তথাকথিত ‘ইবরিদ টেরর সেল’ নামে একটি সন্ত্রাসী সংগঠনের সদস্য ছিলেন। যারা দেশটিতে বেশ কয়েকটি হামলার জন্য দায়ী।

২০০৫ সালে জর্ডানের রাজা দ্বিতীয় আবদুল্লাহ বলেন, অধিকাংশ ইউরোপীয় দেশের সঙ্গে মধ্যপ্রাচ্যের প্রথম দেশ হিসেবে মৃত্যুদণ্ড কার্যকর বন্ধ করাই জর্ডানের লক্ষ্য। জর্ডানে মৃত্যুদণ্ড কার্যকর বন্ধ হওয়ায় অপরাধ বাড়ছে বলে জনগণ অভিযোগ করেন। এর আগে ২০১৪ সালে হত্যাকাণ্ডে অভিযুক্ত ১১ জনের মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করে। পরে বিভিন্ন মানবাধিকার সংগঠন জর্ডানের সমালোচনা করে।

0 96
সিলেটের সংবাদ ডটকম: আজ বুধবার অগ্নিঝরা মার্চের প্রথম দিন। নানা কারণে মার্চ মাস অন্তর্নিহিতি শক্তির উৎস হয় বাঙালির জীবনে। এ মাসেই বাংলাদেশের স্বাধীনতা ঘোষণা করেন...

0 440
সিলেটের সংবাদ এক্সক্লুসিভ: এবার ফাঁস হলো পাসপোর্ট, স্ট্যাম্প, ভিসা, দলিল জালজালিয়াতি চক্রের সদস্য, সিলেট মিড়াপাড়ার মৃত সৈয়দ আলী আহমেদের ছেলে সৈয়দ শাহজাহান আহমদের চেক...