Daily Archives: Apr 7, 2017

সিলেটের সংবাদ ডটকম: মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে যৌতুকের ১ লাখ টাকা দাবী পূরণ করতে না পারায় দুই মাসের অন্তস্বত্তা হাসনা আক্তার (২০) নামের এক গৃহবধুর শরীরে ফুটন্ত গরম পানি ঢেলে  জ্বলসে দিয়েছে শ্বশড় বাড়ির লোকজন।

পুলিশ পাষন্ড স্বামীর বড় ভাই কামাল আহমেদ (৪০) ও বড় বোন মজিরুন বিবি (৩৪)কে আটক করছে। তবে স্বামী কামরুল মিয়া পলাতক রয়েছে। কমলগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে বেডে শুয়ে কাতরাচ্ছে গৃহবধু হাসনা আক্তার।

ঘটনাটি ঘটেছে গত বৃহষ্পতিবার সন্ধ্যায় কমলগঞ্জ উপজেলার ইসলামপুর ইউনিয়নের শ্রীপুর কোনাগাঁও গ্রামে। এ ঘটনায় নির্যাতিতা মেয়ের পিতা হারুন মিয়া বাদী হয়ে ৬ জনের নামে কমলগঞ্জ থানায় যৌতুক ও নারী নির্যাতনের একটি মামলা দায়ের করেন।

নির্যাতিত গৃহবধুর পিতা একই উপজেলার মাধবপুর ইউনিয়নের নোয়াগাঁও গ্রামের হারুন মিয়া অভিযোগ করে জানান, ৬ মাস পুর্বে ইসলামপুর ইউনিয়নের দিলাল মিয়ার ৩য় পুত্র  কামরুল মিয়ার সাথে আমার প্রথম কন্যা হাসনার আক্তারের সাথে বিবাহ হয়। বিয়ের সময় আসবাবপত্র কিনার জন্য আমি মেয়ের শ্বশুড় বাড়ির লোকজনকে নগদ ৩০ হাজার টাকা দেই।

বিয়ের এক মাস পর মেয়ের উপর যৌতুকের জন্য নির্যাতন শুরু করেন পাষন্ড স্বামী কামরুল সহ বাড়ির লোকজন। এক পর্যায়ে বিদেশ যাওয়ার জন্য ১ লাখ টাকা দাবী করলে আমি টাকা দিতে না পারায় প্রতিনিয়ত মেয়ের উপর শরীরিক নির্যাতন চালাতো পাষন্ড স্বামী। ঘটনার এক সপ্তাহ আগে আমি কষ্ট করে আরো ১০ হাজার টাকা আসবাবপত্র  দেই।

তিনি জানান, গত দিন ধরে মেয়ে হাসনা আক্তারের উপর প্রচন্ড নির্যাতন চালালে আমি খবর পেয়ে স্থানীয় সাবেক ইউপি সদস্য সবুজ মিয়া কে বিষয়টি অবগত করি। বিচার দেয়ার কারনে গত ৬ এপ্রিল বৃহস্পতিবার সকালে থেকে মেয়ের উপর শ্বশুর বাড়ির লোকজনরা অমানসিক নির্যাতন করলে পাশ্ববর্তী একটি বাড়িতে পালিয়ে গিয়ে আমার কাছে মোবাইলে কল দিয়ে তাকে বাচাঁনোর আকুতি জানায়।

কথা বলা অবস্তায় শ্বশুড়বাড়ির লোকজন ওই বাড়ি থেকে ফিরিয়ে নিয়ে গর্ভবতী মেয়েটির উপর ফুটন্ত গরম পানি ঢেলে সারা শরীর জ্বলসে দেয়। আমি বাড়িতে গিয়ে দেখি মেয়েটি  অজ্ঞান অবস্থায় পড়ে আছে। চিকিৎসার জন্য মেয়েটিকে নিয়ে আসতে চাইলে শ্বশুর বাড়ির লোকজন বাধা প্রদান করে।

আমি বাধ্য হয়ে কমলগঞ্জ থানায় এসে ৫জনকে আসামী করে যৌতুক ও নির্যাতন মামলা দায়ের করলে কমলগঞ্জ থানা পুলিশের এসআই ইকবাল হোসেন এর নেতৃত্বে আহত মেয়ে হাসনা আক্তারকে বৃহষ্পতিবার রাত ৮টায় উদ্ধার করে কমলগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। এ সময় ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে জামাই কামরুলের বড় ভাই কামাল মিয়া ও বড় বোন মজিরুন বেগমকে আটক করে পুলিশ। মেয়ের স্বামী কামরুল মিয়া পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে পালিয়ে যায়।

শুক্রবার সকালে আটককৃত ২জনকে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। কমলগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কতর্ব্যরত চিকিৎসক ড: সাজেদুল কবির জানান, মাথাসহ সারা শরীরের বিভিন্ন জখমের চিহৃ পাওয়া গেছে।‎ কমলগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ বদরুল হাসান বলেন, এ ঘটনায় নির্যাতিতা মেয়ের পিতা হারুন মিয়া বাদী হয়ে কমলগঞ্জ থানায় যৌতুক ও নারী নির্যাতনের একটি মামলা দায়ের করেন। ২ জন আসামীকে আটক করা হয়েছে এবং জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

0 5

সিলেটের সংবাদ ডটকম ডেস্ক: বাংলাদেশ নারী মুক্তি সংসদ কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি হাজেরা সুলতানা বলেছেন, মুক্তিযোদ্ধের চেতনায় উদ্ভুদ্ধ হয়ে সকল নারীকে নিজ অধিকার প্রতিষ্ঠায় ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে।

আজকে আমরা একটি ক্রান্তিকাল অতিক্রম করছি। কেননা যে মুক্তিযোদ্ধে গ্রাম বাংলার সংগ্রামী নারীরা অস্ত্র হাতে যুদ্ধ করে নিজের সম্ভ্রম দিয়ে একটি স্বাধীন বাংলাদেশ অর্জন করেছে।

সেদেশে আজ নারীরা জঙ্গিবাদে জড়িয়ে পড়েছে। তাই আজকে নারী অধিকারের পাশাপাশি জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধেও দাড়াতে হবে। শুক্রবার বাংলাদেশ নারী মুক্তি সংসদ সিলেট জেলা সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।  বাংলাদেশ নারী মুক্তি সংসদ সিলেট জেলা সভাপতি ইন্দ্রানী সেন সম্পার সভাপতিত্বে ও সংগঠনের সিলেট জেলা সাধারণ সায়েদা আক্তারের পরিচালনায় সম্মেলন উদ্বোধন করেন বীর মুক্তিযোদ্ধা ও শব্দ সৈনিক রোকেয়া বেগম।

উদ্বোধনী বক্তব্যে তিনি বলেন, মুক্তিযোদ্ধের চেতনা অসম বাংলাদেশ নয় মুক্তিযোদ্ধের চেতনা এক অসাম্প্রদায়িক সমতার সমাজ বিনির্মানের। আসুন আজ ঘরে বসে না থেকে হাতে হাত মিলিয়ে ছিন্ন করি সকল অসমতা। প্রধান বক্তার বক্তব্যে বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির কেন্দ্রীয় সদস্য ও সিলেট জেলার সাধারণ সম্পাদক কমরেড সিকান্দর আলী বলেন, আজকে নারীকে আধুনিকতার নামে পণ্য করা হচ্ছে।

সমাজের কিছু ক্ষেত্রে নারীরা এগিয়ে থাকলেও কর্মক্ষেত্রে নারী নির্যাতন, হত্যা-ধর্ষণ, বেড়েই চলছে। নারীদের অধিকারে কথা বলে নারীদের ভোট নিয়ে যারা ক্ষমতায় গেছে তারাই নারীদের সাথে বিশ্বাসঘাতকতা করেছে। তাই উপস্থিত সকল নারীদের নারীবান্ধব সংগঠন নারী মুক্তিতে আসার আহ্বান জানান।

সম্মেলনে উদ্বোধনী আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ নারী মুক্তি সংসদ কেন্দ্রীয় কমিটির সহ সভাপতি ফজিলাতুন নাহার, সাবেক সংসদ সদস্য ও নারী নেত্রী সৈয়দা জেবুন্নেছা হক, বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টি সিলেট জেলার সভাপতি কমরেড আবুল হোসেন, যুবমৈত্রী কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক হিমাংশু মিত্র, ওয়ার্কার্স পাটির সিলেট জেলা সম্পাদকমন্ডলীর সদস্য দিনবন্ধু পাল দ্বীনু, সাবেক সিসিক কমিশনার নাজনিন আক্তার কনা, জাতীয় শ্রমিক ফেডারেশন সিলেট জেলার সাধারণ সম্পাদক কাজী আনোয়ার হোসেন।

শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন নারী উদ্যোক্তা রুনা বেগম, তৃণমূল নারী উদ্যোক্তা সোসাইটি গ্রাসরুটস এর সমন্বয়কারী অনিতা দাস গুপ্তা, লেখিকা ও উন্নয়ন সংগঠক শিরিন আক্তার, উদীচী শিল্পীগোষ্ঠী সিলেট জেলা সংসদের সভাপতি এনায়েত হাসান মানিক, নারী মুক্তি সংসদ সিলেট জেলা সাংগঠনিক সম্পাদক সিরাজুন্নেছা জেবু, উত্তরা সেন পম্পা, যুবমৈত্রী সিলেট মহানগর সাধারণ সম্পাদক আব্দুল্লাহ খোকন, ছাত্রমৈত্রী এমসি কলেজের সভাপতি জয়ন্তী গোয়ালা প্রমূখ।

0 59

সিলেটের সংবা্দ ডটকম: প্রতি মৌসুমেই দেখা দেয় সিজনাল রোগব্যাধি। সাধারণত আবহাওয়ার পরিবর্তনজনীত কারণে নানা ধরনের রোগব্যাধির প্রকোপ বাড়ে। এখন গরমকাল চলে এসেছে।

এ সময় ডায়রিয়াসহ গরমজনিত নানা রোগের প্রকোপ দেখা দেয়। প্রতি বছরই এমনটি হয়। তবে, এ বছর আগেভাগেই গরম চলে এসেছে। সংগত কারণে ডায়রিয়ার প্রকোপও গত বছরের চেয়ে একটু আগেই দেখা যাচ্ছে।

গরম এবং পানিবাহী ব্যাকটেরিয়ার কারণে এ সময় ডায়রিয়া আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বাড়ছে। আবার, মফস্বলের চেয়ে শহুরে জনপদগুলোতে ডায়রিয়ায় আক্রান্তের হার ও সংখ্যা বেশী। এর পেছনের কারণ হচ্ছে ভেঙ্গে পড়া পয়ঃনিষ্কাশন ব্যবস্থা, দূষিত খাবার পানি এবং অপর্যাপ্ত সেনিটেশন ও বর্জ্যব্যবস্থাপনা।

এ অবস্থায় সাধারণ মানুষকে সচেতন করার পাশাপাশি পরিস্থিতি মোকাবিলায় দেশের বিভিন্ন হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের প্রস্তুতি নিয়ে রাখা দরকার। সাধারণত প্রতি বছর সবচেয়ে বেশি ডায়রিয়ার প্রকোপ দেখা দেয় এপ্রিল-মে’তে। কিন্তু এ বছর মার্চের শেষ সপ্তাহ থেকেই রোগীর সংখ্যা বাড়ছে। তবে বিশেষজ্ঞদের ধারনা, বৃষ্টি হলে এ ব্যাপারে স্বস্থির খবর আসতে পারে।

প্রসঙ্গত, ডায়রিয়া আক্রান্ত রোগীদের অধিকাংশই শিশু। আবার উচ্চবিত্তদের তুলনায় মধ্য এবং নি¤œবিত্ত রোগী বেশি। বিশুদ্ধ পানি পান না করা, বাসি-পচা খাবার খাওয়া এবং সঠিকভাবে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতার অভাবই ডায়রিয়ার মূল কারণ। এক সময় বাংলাদেশে কলেরা বা উদরাময় মহামারী আকারে দেখা দিত। কয়েক দিনের ব্যবধানে মারা যেতো হাজার হাজার মানুষ।

কলেরার কারণে বহু জনপদ জনশূন্য হয়ে গেছে। তখন খুব কম মানুষই স্বাস্থ্যসচেতন ছিলেন। আবার কলেরার ওষুধের সহজলভ্যতা যেমন ছিল না, তেমনি কলেরা সম্পর্কে জনমনে কুসংস্কারপূর্ণ ধারনা ছিলো। জনগণের খাদ্যাভ্যাস ছিলো না বিজ্ঞানসম্মত। দারিদ্র্যের কারণে খাদ্যাভাব, পচা ও বাসি খাবার গ্রহণ, উন্মুক্ত জলাশয়ের দূষিত পানি পান করা এবং ত্রুটিপূর্ণ খাদ্যাভ্যাস ও স্বাস্থ্য সচেতনতার অভাবেই মূলতঃ ডায়রিয়া ও কলেরার প্রাদুর্ভাব দেখা দিত।

এখন মানুষ অনেক স্বাস্থ্যসচেতন হয়েছে, সহজলভ্য হয়েছে ডায়রিয়ার ওষুধ ও চিকিৎসা। খাদ্যাভ্যাসেও এসেছে পরিবর্তন। এখন বাংলাদেশে অর্থনৈতিক উন্নয়নের পাশাপাশি সেনিটেশন ও স্বাস্থ্য সচেতনতাও বেড়েছে। আন্তর্জাতিক সহায়তায় ডায়রিয়ার মত পানিবাহিত রোগের বিরুদ্ধে কার্যকর পদক্ষেপ ও সেনিটেশন ব্যবস্থার উন্নয়নে সামাজিক সচেতনতা ও উদ্যোগ বৃদ্ধি করা হয়েছে।

ফলশ্রুতিতে কলেরার ঝুঁকি থেকে মুক্ত হয়েছে বাংলাদেশ। তবে, গরমজনিত ও অন্যান্য কারণে সাম্প্রতিক সময়ে সারাদেশে ডায়রিয়ার প্রকোপ বেড়েছে। ডায়রিয়ায় আক্রান্তদের মধ্যে অনেকে কলেরার জীবাণু বহন করছে বলে পত্রিকায় খবর প্রকাশিত হয়েছে। এ জন্যে অনিরাপদ পানি এবং অপর্যাপ্ত ও ত্রুটিপূর্ণ সেনিটেশন ব্যবস্থাকে দায়ী করা হয়েছে।

সরকারের সংশ্লিষ্ট বিভাগের উচিত হবে, ডায়রিয়ার কারণ ও প্রতিকার সম্পর্কে সাধারণ মানুষকে সচেতন করতে সুচিন্তিত পদক্ষেপ নেয়া। সচেতন হলে এ রোগ থেকে নিরাপদ থাকা সম্ভব। একইসঙ্গে সুচিকিৎসাও অবারিত করতে হবে। ভেজাল ও বিষযুক্ত খাবারের বিপণন বন্ধে সরকারের নানামুখী পদক্ষেপ থাকলেও কার্যত এখনও ভেজালকারীদের দৌরাত্ম বন্ধ করা যায়নি।

কনটেমিনেটেড খাবার ও পানীয়র মাধ্যমে প্রতিদিন হাজার হাজার মানুষ অসুস্থ হচ্ছে। আবার মুনাফাশিকারী চক্র খাবার স্যালাইন ও ওষুধের কৃত্রিম সংকট সৃষ্টি করে ও মূল্য বাড়িয়ে সাধারণ মানুষের পকেট কাটার অভিযোগও আছে। এতে অসচেতন ও অসহায় মানুষজন চরম ক্ষতির শিকার হচ্ছে। এ ধরনের চিত্র কোনো মতেই কাম্য হতে পারে না।

সিলেটের সংবাদ ডটকম: দক্ষিণ সুরমার জঙ্গি আস্তানা আতিয়া মহল পরিদর্শনে আসছেন র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব) এর মহাপরিচালক বেনজীর আহমদ।

শনিবার দুপুরের দিকে তিনি আতিয়া মহল পরিদর্শনশেষে বিকাল ৫টায় সিলেটে র‌্যাব-৯ কমপ্লেক্সে সাংবাদিকদের ব্রিফ করবেন। র‌্যাব-৯ এর মিডিয়া অফিসার জে এম ইমরান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এদিকে, শুক্রবারের অভিযানে আতিয়া মহলের ৫ম তলা পরিষ্কার করা হয়। শুক্রবার অর্ধ দিবস অভিযান চলে। গত সোমবার থেকে অপারেশন ক্লিয়ার আতিয়া মহল শুরু করে র‌্যাবের বোম্ব ডিসপোজাল ও ডগ স্কোয়াড ইউনিট।

0 12

সিলেটের সংবাদ ডটকম ডেস্ক: লঙ্কা সফর শেষ। শ্রীলঙ্কার সঙ্গে তিনটি সিরিজেই ১-১ ব্যবধানে ড্র করেছে বাংলাদেশ। মাশরাফি-মুশফিকরা আজ  ঢাকায় ফিরেছেন। সাকিব আল হাসান দেশে ফেরেননি।

আইপিএল খেলতে বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সরাসরি চলে গেছেন ভারতে। যোগ দেবেন কলকাতা নাইট রাইডার্সে (কেকেআর)। এমনটাই জানিয়েছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) লজিস্টিক ম্যানেজার সজিব।

আইপিএলে দুবার চ্যাম্পিয়ন হয়েছে কলকাতা নাইট রাইডার্স। সেই দুবারই ব্যাটে-বলে অবদান রেখেছেন সাকিব আল হাসান। শাহরুখ খানের মালিকানাধীন দলটির হয়ে শিরোপা জয়ের উল্লাসে মেতেছেন বিশ্বসেরা এই অলরাউন্ডার। গত মৌসুমেও কেকেআরের হয়ে ভালো করেছেন সাকিব। সেজন্যই তো বাংলাদেশি এই তারকাকে রেখে দিয়েছে নাইটসরা।

সাকিবের দল কেকেআর নিজেদের প্রথম ম্যাচে আজ মাঠে নামছে। রাজকোটের সৌরাষ্ট্র ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন স্টেডিয়ামে গুজরাট লায়ন্সের মুখোমুখি হবে কলকাতা। আজ হয়তো নাও খেলতে পারেন সাকিব। কেকেআরের দ্বিতীয় ম্যাচ ৯ এপ্রিল। মুম্বাইয়ের ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে স্বাগতিক মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের মুখোমুখি হবে গৌতম গম্ভীরের দল। ওই ম্যাচে খেলতে পারেন দুর্দান্ত ফর্মে থাকা সাকিব।

0 12

সিলেটের সংবাদ ডটকম ডেস্ক: বৈশাখে ব্যয়বহুল মিউজিক ভিডিও নিয়ে আসছেন চলতি প্রজন্মের জনপ্রিয় শিল্পী-সংগীত পরিচালক আরফিন রুমি।

‘তোমার মাঝে’ গানের শিরোনামের মিউজিক ভিডিওতে নতুন রূপে হাজির হচ্ছেন তিনি। মিউজিক ভিডিওতে রুমির সঙ্গে মডেল হয়েছেন আফ্রি। এই সুন্দরী এর আগে আসিফ আকবরের ‌‘আগুন’ শিরোনামের একটি গানে মডেল হয়ে হৈ চৈ ফেলে দিয়েছিলেন।

কালারফুল ওই ভিডিওতে আফ্রি পেয়েছেন দারুণ জনপ্রিয়তা। এবার তিনি আসছেন জনপ্রিয় গায়ক রুমির সঙ্গে মডেল হয়ে। এইচ এম রিপনের কথায় ও অমিত চ্যাটার্জির সুরে গানটির সংগীতায়োজন করেছেন রুমি নিজেই। মিউজিক ভিডিওটি নির্মাণ করেছেন তরুণ নির্মাতা সামছুল হুদা।

মিউজিক ভিডিওটি চিত্রগ্রহণ করেছেন মাহমুদুল হক সাইদ ও কোরিওগ্রাফি করেছেন হাবিব। মিউজিক ভিডিওটি সম্পর্কে রুমি বলেন, ‘তোমার মাঝে’ গানটি বেশ ভালো হয়েছে। খুব যত্ন নিয়ে গানটি করেছি। গানটির পাশাপাশি মিউজিক ভিডিওটি নিয়েও আমি বেশ আশাবাদী।

দর্শকরা নতুনত্বের ছোঁয়া পাবেন। তিনি আরও বলেন, ‘আফ্রি চমৎকার একজন অভিনয়শিল্পী। এই ভিডিওতে তার উপস্থিতি দর্শকদের মন ভরাবে। মিউজিক ভিডিওটি আসছে পহেলা বৈশাখ মাই সাউন্ডের ইউটিউব চ্যানেল, বেসরকারি চ্যানেলসহ বিভিন্ন অনলাইনে প্রকাশিত হবে।

0 7

সিলেটৈর সংবাদ ডটকম ডেস্ক: অবশেষে নিজের একক অ্যালবামের নাম জানালেন শ্রোতাপ্রিয় কন্ঠশিল্পী ন্যানসি। তার পঞ্চম এককের নাম ‘শুনতে চাই তোমায়’। আ্যালাবমের গানগুলো লিখেছেন জনপ্রিয় গীতিকবি জাহিদ আকবর।

গানগুলোতে সুর ও সংগীত আয়োজন করেছেন চিরকুট ব্যান্ডের ইমন চৌধুরী।  বৈশাখে অ্যালবামটি প্রকাশিত হচ্ছে সিডি চয়েজ থেকে। মোট তিনটি গান থাকছে অ্যালামটিতে। গানের কথাগুলো হলো ‘শুনতে চাই তোমায়’,‘আহা! বৃষ্টি’ এবং ‘একসঙ্গে হাঁটবো বৈশাখে’।

ন্যানসি বলেন, ‘অ্যালবামের তিনটা গানের বিষয় বৈচিত্র্যে একেবারে অন্যরকম। একটা গানের সঙ্গে অন্য গানের কথায়, সুরে, সংগীতে কোনো মিল নেই। এবারই এই ধরনের গান করলাম। ভিণ্নতা শুধু বলার জন্য না, সত্যিই ভিন্নতা রয়েছে গানে।

এই অ্যালবামের জন্য অনেক মিশ্র অ্যালবামে গান করিনি। আমার বিশ্বাস গানগুলো শ্রোতাদের র্স্পশ করবে। পাশাপাশি বৈশাখের উৎসবে নতুন কিছু যোগ করবে আমার ‘শুনতে চাই তোমায়’ অ্যালবামটি। জাহিদ আকবর বলেন, ‘ন্যানসি বরাবরই আমার অনেক প্রিয় একজন কন্ঠশিল্পী। তার গানে আলাদা একটা মুগ্ধতা রয়েছে। অনেক স্বাধীনতা নিয়ে গানগুলো লিখেছি।

ইমন চমৎকার সুর ও সংগীত করেছেন প্রতিটি গানেই। আমার বিশ্বাস গানগুলোতে অন্য এক ন্যানসিকে আবিষ্কার করবেন শ্রোতারা। অ্যালবামের গান প্রসঙ্গে ইমন চৌধুরী বলেন, ‘সকল প্রশংসা সৃষ্টিকর্তার। চমৎকার তিনটি গান হয়েছে এই অ্যালবামে। আমি সর্বোচ্চ চেষ্টা করেছি ভালো কিছু করার। আশা রাখছি শ্রোতাদের ভালো লাগবে গানগুলো।

0 5

সিলেটের সংবাদ ডটকম ডেস্ক: চলতি বছরের জানুয়ারিতে এক বছরের নিষেধাজ্ঞায় পড়েছিলেন আন্দ্রে রাসেল। টানা তিনটি ডোপ টেস্টে না থাকায় তাকে নিষিদ্ধ করে জ্যামাইকা অ্যান্টি-ডোপিং কমিশন (জাডকো)।

২০১৭ সালের ৩১ জানুয়ারি থেকে ২০১৮ সালের ৩০ জানুয়ারি পর্যন্ত এ নিষেধাজ্ঞা ছিল। তবে খুব সহজে মুক্তি পাচ্ছেন না রাসেল। তার নিষেধাজ্ঞা আরও বাড়লো। এক বছর নয়, রাসেলকে দুই বছরের জন্য নিষিদ্ধ করেছে জ্যামাইকা অ্যান্টি-ডোপিং কমিশন।

তাই ক্যারিবিয় এই অলরাউন্ডারের নিষেধাজ্ঞা শেষ হবে ২০১৯ সালের ৩০ জানুয়ারি। বলার অপেক্ষা রাখে না, চলতি মৌসুমে আন্দ্রে রাসেলকে পাচ্ছে না কলকাতা নাইট রাইডার্স (কেকেআর)। দলের অন্যতম সেরা পারফর্মারকে হারিয়ে হতাশ কেকেআর। দলীয় অধিনায়ক গৌতম গম্ভীর যেমন জানালেন, রাসেলকে মিস করছে কেকেআর শিবির।

নিজেদের প্রথম ম্যাচে আজ গুজরাট লায়ন্সের বিপক্ষে মাঠে নামার আগে রাসেলকে নিয়ে গম্ভীর বলেন, ‘রাসেলকে আমরা মিস করছি। ওর মতো ক্রিকেটারকে এ বছর আমরা পাব না, তা ভাবতে পারিনি। নিঃসন্দেহে ওর অভাব অনুভূত হবেই। তাই আমরা ওর বিকল্প হিসেবে ক্রিস ওকসকে নিয়েছি। ও খেলবে। এছাড়া উমেশ যাদবকেও শুরুর দিকে পাচ্ছে না কেকেআর।

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে নজরকাড়া পারফর্ম করা উমেশকে নিয়ে গম্ভীরের ভাষ্য, ‘আমরা ভেবেছিলাম উমেশ যাদবকে প্রথম ম্যাচ থেকেই পাব। কিন্তু বোর্ডের নির্দেশানুযায়ী উমেশকে আমরা প্রথম ম্যাচ থেকে পাচ্ছি না। হয়তো তৃতীয় ম্যাচের আগে পাব। অস্ট্রেলিয়া সিরিজে উমেশ ফর্মে ছিল, আমরা প্রথম থেকে ওকে পেলে কাজে দিত।

প্রসঙ্গত, বছর দুয়েক আগে জ্যামাইকা অ্যান্টি-ডোপিং কমিশন রাসেলের বিরুদ্ধে অভিযোগ তোলে। ২০১৫ সালের ১ জানুয়ারি, ১ জুলাই ও ২৫ জুলাই পরীক্ষা দেয়ার তারিখ থাকলেও ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেটার একটিতেও উপস্থিত ছিলেন না।

সিলেটের সংবাদ ডটকম ডেস্ক: ভারী তুষারপাত ও ভূমিধসে উত্তর ভারতের জম্মু-কাশ্মিরে তিন সেনা সদস্য নিহত হয়েছে। কয়েকজনকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করেছে সেনাবাহিনী। ভারত-পাক সীমান্তের বাটালিক সেক্টরে বৃহস্পতিবার এ হতাহতের ঘটনা ঘটে।

সেনাবাহিনীর উত্তরাঞ্চলীয় কমান্ডের বরাত দিয়ে স্থানীয় সংবাদমাধ্যম জানায়, প্রচণ্ড তুষারে সেখানকার ঘর-বাড়ি ঢেকে গেছে। এরমধ্যে হয় আবার ভূমিধস। আর তখনই ঘটে এ বিপর্যয়।

কমপক্ষে পাঁচজন সেনা সদস্যকে বরফের নিচ থেকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ঘটনার পর থেকেই প্রশিক্ষিত ও প্রয়োজনীয় সরঞ্জাম নিয়ে উদ্ধার কাজ চালিয়ে যাচ্ছে সেনাবাহিনীসহ উদ্ধারকারী দল। এনডিটিভি জানায়, প্রবল তুষারপাত ও ভূমিধসের কারণে শুক্রবার সকাল থেকে শ্রীনগর-লাদাক মহাসড়কে যান চলাচল বন্ধ রয়েছে।

বন্ধ করে দেয়া হয়েছে রাজ্যের রাজধানীর সঙ্গে যোগাযোগের অপর সংযোগ সড়ক ডোডা-কিশতোয়ারও। এদিকে বিপদসীমার উপর দিয়ে প্রবাহিত হওয়ায় ঝিলাম নদীর উপত্যকায় বন্যা সতর্কতা জারি করা হয়েছে। শুক্রবার প্রাকৃতিক দুর্যোগের বিষয়ে জে অ্যান্ড কে’র মুখ্যমন্ত্রী মেহবুবা মুফতির সঙ্গে কথা বলেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

সেখানকার দুর্যোগ মোকাবেলায় সামর্থ্যের সর্বোচ্চ করার ঘোষণা দিয়েছেন তিনি। এর আগে ২০১৪ সালে কাশ্মিরে আকস্মিক বন্যায় ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতির ঘটনা ঘটে। রাজধানী শ্রীনগরসহ রাজ্যের বিভিন্ন এলাকায় কয়েক ফুট উপর দিয়ে পানি প্রবাহিত হয় ওই সময়।

সিলেটের সংবাদ ডটকম ডেস্ক: সাত বছর পর ভারতে দ্বিপাক্ষিক সফরে গিয়েছেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। দীর্ঘদিনের বন্ধু এই দুই দেশের জন্য সফরটি নানা মাত্রায় গুরুত্বপূর্ণ। দুই দেশেই তাই এ সফর গুরুত্ব পাচ্ছে বিশেষভাবে।

ভারতীয় গণমাধ্যম ফিন্যান্সিয়াল এক্সপ্রেসের খবরে শেখ হাসিনার এই সফরের ১০টি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় তুলে ধরা হয়েছে।  প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হওয়ার পর ভারতে এটি শেখ হাসিনার প্রথম দ্বিপাক্ষিক সফর।

ভারতের রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখার্জির আমন্ত্রণে রাষ্ট্রপতি ভবনে থাকবেন তিনি।  সাত বছর পরের চার দিনের এই দ্বিপাক্ষিক সফরের দ্বিতীয় দিন শনিবার ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে নানা বিষয় নিয়ে আলোচনা হবে শেখ হাসিনার।  বেসামরিক পারমাণবিক সহযোগিতার বিষয়ে এই সফরে যে চুক্তি বা সমঝোতা স্মারক সই হবে সেটিও বিশেষ গুরুত্বের সঙ্গে দেখছে ভারত।

কারণ, এর ফলে বাংলাদেশে ভারতের পারমাণবিক চুল্লি স্থাপনের বিষয়ে ‘সহযোগিতার’ নতুন পথ খুলবে।  শেখ হাসিনা ও নরেন্দ্র মোদির আলোচনায় ৫০০ মিলিয়ন ডলারের সমরাস্ত্র কেনাকাটার জন্য ঋণের বিষয়টি ছাড়াও বিশেষ গুরুত্ব পাচ্ছে প্রতিরক্ষা সহযোগিতার রূপরেখা নিয়ে সমঝোতা স্মারকের বিষয়টি।

 দুই দেশের মধ্যে কিছু প্রকল্পের মধ্যে উদ্বোধনে উপস্থিত থাকতে আমন্ত্রণ পাওয়ার পর তাতে সাই দিয়েছেন পশ্চিমবঙ্গে র মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী। মমতার সঙ্গে শেখ হাসিনার সাক্ষাতে তিস্তা চুক্তির বিষয়টি আলোচনায় উঠে আসবে।  দুই প্রধানমন্ত্রী কলকাতা এবং খুলনার মধ্যে বাস এবং ট্রেন সেবা উদ্বোধন করবেন।

 প্রধানমন্ত্রীর এই সফরে ভারত থেকে বাংলাদেশে ডিজেল সরবরাহের বিষয়ে দীর্ঘ মেয়াদি চুক্তি স্বাক্ষরিত হতে পারে।  দু’দেশের তরফ থেকে বাণিজ্য সম্প্রসারণে উত্তর-পূর্বাঞ্চলে আরো বর্ডার হাট নির্মাণের ঘোষণা আসতে পারে। এই সফরে বাণিজ্য বিনিয়োগ, পরিবহন এবং বিদ্যুতের বিষয়েও আরো ঘোষণা আসতে পারে।  রোববার আজমির শরিফে যাবেন শেখ হাসিনা। সেই সঙ্গে সোমবার ভারতীয় ব্যবসায়ী নেতাদের সঙ্গে সাক্ষাত করবেন তিনি।  শেখ হাসিনার এই সফরে রেল, সড়ক এবং নৌপথে যোগাযোগ বৃদ্ধিতে বেশ কিছু বিষয়ে আলোচনা হতে পারে।

0 21
আমাদের সম্মানিত পাঠক বৃন্দ, আপনাদের অবগতির জন্য জানানো যাচ্ছে, আগামী ৩১ জুলাই থেকে প্রতি সোমবার প্রিন্ট আকারে বের হবে অনলাইন সিলেটের সংবাদ ডটকম এর...

0 14
সিলেটের সংবাদ ডটকম এক্সক্লুসিভ: “রাখিব নিরাপদ, দেখাব আলো পথ”- এই বাক্যটি বড় অক্ষরে লেখা রয়েছে সিলেট কেন্দ্রীয় কারাগারের প্রধান ফটকে। কারাগারের কর্তৃপক্ষও দাবি করেছেন,...