Daily Archives: Apr 18, 2017

0 18

সিলেটের সংবাদ ডটকম ডেস্ক: বাংলাদেশ সরকারের অনুরোধের প্রেক্ষিতে গত তিনদিনে কমপক্ষে নয় লাখ ভুয়া ফেসবুক একাউন্ট বন্ধ করা হয়েছে। সোমবার বিকেলে ভারতীয় গনমাধ্যম ইন্ডিয়া টুডের এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানানো হয়েছে।

বাংলাদেশের সরকারের এক কর্মকর্তার বরাত দিয়ে প্রতিবেদনে বলা হয়, দেশে কমপক্ষে তিন কোটি ফেসবুক ব্যবহারকারী সক্রিয় আছে। এরমধ্যে কমপক্ষে তিন শতাংশ ব্যবহারকারীর ভুয়া ফেসবুক আইডি রয়েছে।

বাংলাদেশে সরকারের আশঙ্কা যারা এই সব ভুয়া একাউন্ট পরিচালনার পেছনে আছে তারাই সরকারবিরোধী কার্যক্রম ও জঙ্গিবাদের সঙ্গে কোন না কোন ভাবে যুক্ত রয়েছে। সেজন্য সরকারের  পক্ষ থেকে ফেসবুকে ভুয়া অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দেয়ার জন্য ফেসবুকের কাছে অনুরোধ জানানো হয়েছে।

ফেসবুক কর্তৃপক্ষ এক বার্তায় জানায়, নিরাপত্তা সংক্রান্ত কারণে ফেসবুক ভুয়া অ্যাকাউন্ট বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। সর্বাধিক সংখ্যক ভুয়া ফেসবুক অ্যাকাউন্ট ব্যবহারকারীর মধ্যে বাংলাদেশের অবস্থান শীর্ষ সারিতে আছে। ফেসবুক কর্তৃপক্ষের এই অভিযানের ফলে অনেক আসল ফেসবুক ব্যবহারকারীর অ্যাকাউন্ট বন্ধ হয়ে গেছে।

সেক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তি একটি ভেরিফিকেশন প্রক্রিয়ার মধ্যদিয়ে তার অ্যাকাউন্ট পুনরায় ফিরে পেতে পারে। বাংলাদেশের ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম বলেছেন, জঙ্গিবাদী কর্মকাণ্ডকে দ্রুত ছড়িয়ে দিতে ও ধর্মীয় উস্কানি দিতে ফেসবুকে ভুয়া অ্যাকাউন্ট গুলো ব্যবহার করা হয়। তাই সরকার ফেসবুক কর্তৃপক্ষের কাছে ভুয়া অ্যাকাউন্ট বন্ধের জন্য অনুরোধ করেছে। ইন্ডিয়া টুডে।

0 189

সিলেটের সংবাদ ডটকম: দীর্ঘদিন ধরে আদালতের নিষেধাজ্ঞা থাকার পর অবশেষে মঙ্গলবার বিশ্বনাথে অনুষ্ঠিত হয়েছে ষাঁড়ের লড়াই। উপজেলার সদর ইউনিয়নের হরিকলস ও সেনারগাঁও গ্রামের মধ্য মাঠে এ লড়াই অনুষ্ঠিত হয়।

সকাল ১০ টা থেকে বিকেল ৪টায় পর্যন্ত বিপুল উৎসাহ উদ্দিপনার মধ্য দিয়ে চলে ষাঁড়ের লড়াই। এতে সিলেট বিভাগের ৩০ জোড়া নামকরা ষাঁড় অংশ গ্রহন করে।

প্রতিযোগিতায় স্পেশাল লড়াইয়ে মামু,-ভাগ্না, দশপাইকা, ব্লাক, ষ্টোন লহরী, আন্টার, সৈয়পুর সদুরগাঁও, শাপলা পাড়ুয়া, চিতরা ধনপুর, সোনামুখি হাসনাজি, কাটিং মাষ্টার, বিশ্বনাথ, পংকিরাজ, জালালাবাদ, রেড লায়ন, দক্ষিণ সুরমা, শান্তরাজ, সুনামগঞ্জের ষাঁড় বিজয় লাভ করে।

বিজয়ী প্রত্যেক ষাঁড়ের মালিক জিতে নেন ১৪ ইঞ্চি কালার টেলিভিশন। এ ষাঁড়ের লড়াই আয়োজন করেন স্থানীয় সৌখিন ষাঁড়প্রেমী লোকজন। ষাঁড়ের লড়াই’র খবর শুনে সিলেটের বিভিন্ন উপজেলা থেকে লোকজন দেখতে আসেন। সকাল ৯টা থেকে মানুষজন আসতে শুরু করলে দুপুর ১২টায় কয়েক হাজার মানুষের পদভারে মুখরিত হয়ে উঠে বিশাল এ মাঠটি।

বড়দের চেয়ে ছোট ছোট অনেক ছেলে-মেয়েদের মধ্যে ষাঁড়ের লড়াই দেখার আগ্রহ ছিলো লক্ষনীয়। তারা অভিভাবকদের হাত ধরে দেখতে আসে ষাঁড়ের লড়াই। ছাতক উপজেলা থেকে আসা ফয়ছল মিয়া বলেন, ষাঁড়রের লড়াই দেখার জন্য এখানে এসেছি।

দেখতে আমার ভাল লাগে তাই আমি বিভিন্ন জায়গায় ষাঁড়ের লড়াই দেখার জন্য যাই। ষাঁড়ের লড়াই আয়োজক কমিটির সদস্যরা বলেন, চিরায়ত বাংলার ঐতিহ্যকে ধরে রাখার জন্য আমরা ষাঁড়ের লড়াইয়ের আয়োজন করেছি।

0 304

সিলেটের সংবাদ ডটকম: সিলেটের ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলার ঘিলাছড়ায় হাতির তাণ্ডবে আতঙ্কিত হয়ে পড়েছেন এলাকাবাসী। মঙ্গলবার দুপুর ২টা থেকে একটি হাতি এই তাণ্ডব শুরু করে।

খবর পেয়ে ফেঞ্চুগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের দুই ইউনিট ও ফেঞ্চুগঞ্জ থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে নিরাপত্তা রক্ষার চেষ্টা করেছেন। হাতির মাউত সাগর জানান, তারা সিলেট বিয়ের অনুষ্ঠান শেষে মৌলভীবাজার যাচ্ছিলেন।

হঠাৎ হাতিটি বেপরোয়া হয়ে মৃত করম উল্লাহর বাড়িতে ঢুকে পড়ে। এতে আতঙ্কিত হয়ে লোকজন পালিয়ে যান। হাতিটি বাড়ির গাছপালা সব ভাঙতে শুরু করে। সন্ধ্যায় হাতিটি পুকুরে নামে ও দানবিক তাণ্ডবলীলা চালিয়ে পুকুর পাড় ভেঙে ভীতিকর অবস্থা সৃষ্টি করে।

ফেঞ্চুগঞ্জ থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) আশরাফ আহমেদ জানান, আমরা সতর্ক আছি। আশেপাশের লোকদের সুবিধাজনক স্থানে সরানোর ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে। আতঙ্কিত এলাকাবাসী বলেন, রাতের মধ্যে হাতিটি নিরাপদে না সরালে বিপদ ঘটতে পারে।

0 386

সিলেটের সংবাদ ডটকম: সিলেটে মঙ্গলবার রাত ৮ টা ৫ মিনিটে মৃদু ভূমিকম্প অনুভূত হয়েছে। তবে এর উৎপত্তিস্থল ও রিখটার স্কেলে এর মাত্রা কতো তা তাৎক্ষণিকভাবে জানা যায়নি।

ভূমিকম্প অনুভূত হওয়ায় নগরীর জিন্দাবাজারস্থ বিভিন্ন বিপনীবিতানের কিছু কিছু মানুষ মার্কেটের নিচে নেমে আসেন।

তবে বেশিরভাগই ভূমিকম্প অনুধাবন করতে পারেননি। ঝাঁকুনি হালকা থাকায় তারা ভূমিকম্পটি বুঝতে পারেননি।

সিলেটের সংবাদ ডটকম: ব্রিটিশ মেট্রোপলিটন স্কটল্যান্ড ইয়ার্ড পুলিশ কর্মকর্তা মোহাম্মদ তানভীর মঙ্গলবার দুপুরে সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার মো. গোলাম কিবরিয়ার সাথে তাঁর কার্যালয়ে সৌজন্য সাক্ষাত করেন।

সাক্ষাতকালে মোহাম্মদ তানভীর সিলেট নগরীর আইনশৃঙ্খলার পরিস্থিতির উন্নতির ভূয়ষি প্রশংসা করে বলেন, নগরীর যানজট ও জনজট অনেকটা কমে গেছে। এতে করে স্বদেশী ও প্রবাসীরা স্বস্থিবোধ করছেন।

আগামীতে আইনশৃঙ্খলা ও নগরায়নে উত্তরোত্তর উন্নতি ও অগ্রগতি কামনা করেন তিনি। বিশেষ করে চুরি, ডাকাতি, ছিনতাই, রাহাজানি ও  ভূমিদস্যুতা প্রভৃতি অপরাধ দমনে সিলেট মেট্রো পুলিশের ভূমিকার প্রশংসা করে তিনি বলেন, একসময় আইনশৃঙ্খলার অবনতিতে প্রবাসীরা দেশে ফিরতে অনিহা প্রকাশ করতেন, বিনিয়োগ করতে ভয় পেতেন  বর্তমানে সে অবস্থার অনেকটা উপশম হয়েছে।

আইনশৃঙ্খলার উন্নতি ও অগ্রগতিতে পুলিশের সক্রিয় ভূমিকা অব্যাহত থাকবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন। এসময় সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার মো. গোলাম কিবরিয়া দেশের উন্নয়ন ও অগ্রগতিতে প্রবাসীদের ভূমিকা ও বিনিয়োগ আরো গতিশীল করার আহ্বান জানান।

এসময় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন গোল্ডেন ড্রীম ওমেন অর্গানাইজেশন ইউকে ও সোনালী স্বপ্ন বাংলাদেশের চেয়াপারসন কামরুন নেছা মতিন শোভা, সহকারি পুলিশ কমিশনার রোকন উদ্দিন, উপপুলিশ কমিশনার (উত্তর) ফয়সল মাহমুদ, ট্রাফিকের ডিসি তোফায়েল আহমদ, যুব সংগঠক শেখ তোফায়েল আহমদ সেপুল প্রমুখ।

0 208

সিলেটের সংবাদ ডটকম: জগন্নাথপুর উপজেলার আশারকান্দি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান শাহ আবু ইমানীকে জুতাপেটা করেছেন একই ইউনিয়নের মহিলা মেম্বার সেলিনা বেগম। এ নিয়ে এলাকায় তোলপাড় সৃষ্টি হয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানাগেছে, জগন্নাথপুর উপজেলার আশারকান্দি ইউপি চেয়ারম্যান রাজাকার পুত্র শাহ আবু ইমানী একই ইউনিয়নের ৭ ৮ ৯ নং ওয়ার্ডের মহিলা মেম্বার সেলিনা বেগমকে কু-প্রস্তাব দেন। এতে তিনি রাজি না হওয়ায় বিগত ৮ মাস ধরে তাঁকে কোন প্রকার বরাদ্দ দেননি চেয়ারম্যান।

অবশেষে গত ৮ এপ্রিল শনিবার দুপুরে মহিলা মেম্বার সেলিনা বেগম তাকে বরাদ্দ না দেয়ার কারণ জানতে চেয়ারম্যানের অফিস কক্ষে গেলে চেয়ারম্যান আবু ইমানী অফিসের দরজা লাগিয়ে জোর পূর্বক তাঁকে ধর্ষণের চেষ্টা করেন। এ সময় মহিলা মেম্বার সেলিনা বেগম চেয়ারম্যান আবু ইমানীকে জুতাপেটা করেন।

এ ব্যাপারে গত ১৩ এপ্রিল মহিলা মেম্বার সেলিনা বেগম বাদী হয়ে চেয়ারম্যান আবু ইমানীকে আসামি করে জগন্নাথপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নিকট অভিযোগ দায়ের করেন। এ ব্যাপারে অভিযোগকারী মহিলা মেম্বাররের স্বামী ডা. আজিজুর রহমান জানান, নারীলোভী লম্পট চেয়ারম্যান আবু ইমানী ইতোপূর্বে মহিলা মেম্বার বিরজা রাণী দাস ও সুবেজা বেগমকেও একই ভাবে হেনস্তা করেছে।

এখন সে আমার স্ত্রীর পেছনে লেগেছে। অভিযুক্ত চেয়ারম্যান শাহ আবু ইমানী বলেন, মহিলা মেম্বার সেলিনা বেগমের খারাপ আচরণের জন্য সকল সদস্যকে নিয়ে তাকে অনাস্থা দেয়া হয়েছে। এতে সে ক্ষিপ্ত হয়ে আমার বিরুদ্ধে অপ-প্রচার চালাচ্ছে।

সিলেটের সংবাদ ডটকম: কানাইঘাট পৌরসভার কান্দেপুর খেয়াঘাট সংলগ্ন সুরমার ডাইক ও তার উত্তর পাশের ভয়ঙ্কর ভাঙ্গন এবার পরিদর্শন করেছেন সিলেটের জেলা প্রশাসক রাহাত আনোয়ার।

মঙ্গলবার বেলা ১ টায় ভয়ঙ্কর এ ডাইকের ভয়াল চিত্র দেখে উপজেলা চেয়ারম্যান ও পানি উন্নয়ন বোর্ডের কর্মকর্তাদের উদেশ্যে করে তিনি আবেগ আপ্লুত হয়ে বলেন এলাকা বাচাঁন, পানি টেকান।

তাদের উদেশ্যে তিনি আরো বলেন আপনারা আমাকে যে ভাবে বলেছেন বাস্তবে তার রূপ আরো ভয়ঙ্কর। যে কোন ভাবে দ্রুত এ ভাঙ্গনের কাজ শুরু করার জন্য তাদের র্নিদেশ দিয়ে বলেন ত্রাণ ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা মন্ত্রনালয়ের মাননীয় মন্ত্রী মুফাজ্জল হোসেন মায়া মহোদয় সিলেটে আসছেন আমি মন্ত্রী মহোদয়কে এ ভাঙ্গনের বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করবো।

এ সময় তার সাথে ছিলেন স্থানীয় সরকার সিলেটের উপ-পরিচালক, দেবজিৎ সিংহ, কানাইঘাট উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আশিক উদ্দিন চৌধুরী, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তাহসিনা বেগম, উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভুমি) সুমন আচার্য, সিলেটের পানি উন্নয়ন বোর্ডের উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী মোঃ আব্দুল লতিফ, সেকশন অফিসার আব্দুল মতিন প্রমুখ।

এদিকে সিলেটের পানি উন্নয়ন বোর্ডের উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী মোঃ আব্দুল লতিফ জানিয়েছেন উপজেলা চেয়ারম্যানের সহযোগীতায় বুধবার থেকে তারা সুরমার এ ডাইক দুটি গড়ার কাজ শুরু করবেন।

প্রসঙ্গত সিলেটের বিভিন্ন স্থানীয় পত্রিকা ও অনলাইনে এ ডাইক ভাঙ্গনের খবর প্রকাশ হলে প্রশাসনের নজরে আসে উক্ত ডাইকের ভয়ঙ্কর চিত্র। তারই প্রেক্ষিতে স্থানীয় প্রশাসনের পর এবার ডাইক ২টি পরিদর্শন করলেন সিলেটের জেলা প্রশাসক রাহাত আনোয়ারসহ পানি উন্নয়ন বোর্ডের কর্মকর্তা বৃন্দ।

শোয়েব উদ্দিন, জৈন্তাপুর (সিলেট): সিলেটের জৈন্তাপুর উপজেলার নজপাট ইউনিয়নে গভীর রাতে ডিবি পুলিশের অভিযানের ভারতীয় মদ সহ ১ ব্যক্তি আটক হয়।

ডিবি পুলিশ সূত্রে জানা যায় গত ১৭ এপ্রিল দিবাগত গভীর রাত পৌনে ১টায় জৈন্তাপুর উপজেলার নিজপাট মাহুতহাটি গ্রামের ভারতীয় শিলং তীর খেলার প্রধান এজেন্ট ও মাদক ব্যবসায়ী সুবান ড্রাইভারের বাড়ীতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে এসপি সাহেবের অনুমতিতে ডিবি পুলিশের অফিসার ইনচার্জ তৈয়মুর রহমানের নেতৃত্বে একদল ডিবি পুলিশ র্ফোস অভিযান পরিচালনা করে ভারতীয় ৩০ বোতল অফিসার চয়েস এবং ১০ বোতল বিআর মদ উদ্ধার করে।

এসময় নিজপাট গৌরী শংকর গ্রামের খোরশেদ মিয়ার ছেলে মাদক ব্যবসায়ী ও ভারতীয় নিষিদ্ধ শিলং তীরের বই এর মালিক জামাল মিয়া(৩৮) কে হাতে নাতে আটক করে নিয়ে যায়। এদিকে পুলিশের উপস্থিতি সংবাদ পেয়ে চতুর ভারতীয় শিলং তীর খেলার প্রধান এজেন্ট ও মাদক ব্যবসায়ী সুবান পালিয়ে যায়।

এবিষয়ে জানতে চাইলে ডিবি পুলিশের ইন্সপেক্টর আব্দুল মোতালেব সংবাদদাতাকে জানান- গোপন সংবাদের ভিত্তিত্বে অফিসার ইনচার্জের নেতৃত্বে অভিযান করে মদ সহ মাদক ব্যবসায়ী জামাল মিয়াকে আটক করি। গতকাল ১৮ এপ্রিল তার বিরুদ্ধে মাদক আইনে মামলা দায়ের করে আদালতে প্রেরণ করি।

শোয়েব উদ্দিন, জৈন্তাপুর (সিলেট): সিলেটের জৈন্তাপুর ভারত সীমান্তে শিশু পাঁচার কালে ২পাঁচারকারীকে বিজিবির বিশেষ টহল দল ২পাঁচারকারী সহ শিশুকে উদ্ধার করে। এঘটনায় ২ পাঁচারকারীর সহ অজ্ঞাত ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

পুলিশ সূত্রে জানাযায়- গত ১৭ এপ্রিল সোমবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় ডিবির হাওর বিজিবির বিশেষ টিম সীমান্তে ১২৬৪/৪এস পিলার সংলগ্ন এলাকা দিয়ে ভারতে শিশু পাঁচার কালে গোপন সংবাদের ভিত্তিত্বে বিজিবির টহল টিম তাদেরকে আটক করে জৈন্তাপুর ক্যাম্পে নিয়ে আসে।

পাঁচারকারীদের জিজ্ঞাসাবাদ শেষে রাত ১১টায় উদ্ধার হওয়া শিশু ও ২পাঁচারকারীকে জৈন্তাপুর মডেল থানায় হস্তান্তর করে এবং মানব পাঁচার আইনে বিজিবি বাদী হয়ে মামলা দায়ের করে।

এবিষয়ে জৈন্তাপুর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ সফিউল কবির ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন- বিজিবির সদস্যরা শিশু সহ ২পাঁচারকারীকে আটক করে রাত অনুমান ১১টায় জৈন্তাপুর থানায় নিয়ে আসে। আইনি প্রক্রিয়ায় শেষে মামলা দায়ের পূর্বক আমাদের কাছে হস্তান্তর করে। আমরা ১৮ এপ্রিল মঙ্গলবার সকাল ১১টায় ২পাঁচারকারী সহ উদ্ধার হওয়া শিশুটি আদালতে প্রেরণ করেছি।

উদ্ধার হওয়া শিশুটি মৌলভীবাজার জেলার লাখাই থানার তেগুরিয়া ইউনিয়নের সোনারশর গ্রামের জব্বার মিয়া ও সেলেমা বেগমের ছেলে মোঃ বাদশা মিয়া(৭)। আটককৃত পাঁচারকারীরা হল  মৌলভীবাজার জেলার লাখাই থানার তেগুরিয়া ইউনিয়নের সোনারশর গ্রামের মোঃ নুরুল হকের ছেলে মোঃ রুবেল মিয়া(২৪), একই গ্রামের মোঃ হাবুল মিয়ার ছেলে মোঃ শাহীন মিয়া(১৭)।

0 72

সিলেটের সংবাদ ডটকম ডেস্ক: বলিউডের আলোচিত অভিনেত্রী পূজা ভাট বলেছেন, প্রতিদিন ভোরে আজান শুনে আমার ঘুম ভাঙে এবং এটি আমার কাছে ভালো খুব লাগে।

সম্প্রতি মাইকে আজান দেয়ার বিরুদ্ধে ভারতীয় গায়ক সনু নিগমের বিতর্কিত মন্তব্যের জবাবে এ কথা বলেন পূজা ভাট।

সোমবার (১৭ এপ্রিল) সকালে সনু নিগম তার টুইটারে লেখেন, প্রতিদিন ভোরে আজানের কর্কশ শব্দের কারণে ঘুম ভেঙে যায় তার।

এজন্য তিনি বিরক্ত হন। তার এ বক্তব্যের জবাবে টুইটারে পূজা আরও লেখেন, বানদারার নীরব গলিতে প্রতি সকালে চার্চের ঘণ্টা ধ্বনি এবং আজানের শব্দে আমার ঘুম ভাঙে। ঘুম ভাঙার পর ভারতীয় চেতনাকে সালাম জানান এবং তার স্মরণে আগরবাতি জ্বালান বলেও উল্লেখ করেন আলিয়া ভাটের ছোটবোন পূজা।

0 167
গত ১০ এপ্রিল ২০১৭ইং তারিখে সিলেটের সংবাদ ডটকমে ‘সিলেট নগরীতে সেনা কর্মকর্তা লাঞ্ছিত : গ্রেফতার চার ছাত্রলীগ নেতাকে রিমান্ডের আবেদন’ শিরোনামে একটি সংবাদ প্রকাশিত...

0 526
সিলেটের সংবাদ ডটকম এক্সক্লুসিভ: সিলেট জেলার সদর উপজেলার ৫ নং টুলটিকর ইউনিয়নের ৩ নং ওয়ার্ডের পুর্ব শাপলাবগ এলাকায় জাল দলিল বানিয়ে একজনের জায়গা অন্যজনের...