Daily Archives: Apr 19, 2017

সিলেটের সংবাদ ডটকম: শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ এমপি বলেছেন, প্রতিবন্ধীরা বোঝা নয় দেশের সম্পদ। দেশ ও সমাজের উন্নয়নে তাদেরকে যথাযথভাগে গড়ে তুলতে হবে। তাদেরকে বাদ দিয়ে দেশের সার্বিক উন্নয়ন সম্ভব নয়।

বুধবার সিলেট জেলা পরিষদ মিলনায়তনে গোলাপগঞ্জ হ্যাল্পিং হ্যান্ডস ইউএসএ’র উদ্যোগে অস্বচ্ছল প্রতিবন্ধীদের মধ্যে হুইল চেয়ার বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি আরো বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে। ঠিক তেমনি প্রতিবন্ধীদের জন্য ইন্সটিটিউট নির্মান সহ শিক্ষা ব্যবস্থায় মৌলিক পরিবর্তন আনা হয়েছে তাদের উন্নয়নের জন্য। তাদের জন্য কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করে দিতে হবে। তাদেরকে দক্ষ করে গড়ে তুলতে পারলে দেশ আরো এগিয়ে যাবে। রাষ্ট্রের যেমন দায়িত্ব রয়েছে তেমনি সমাজের বিত্তশালীরা তাদের পাশে এগিয়ে আসা উচিত।

গোলাপগঞ্জ হ্যাল্পিং হ্যান্ডস ইউএসএ’র সাধারণ সম্পাদক শাহীদুর রহমান চৌধুরী জাবেদের সভাপতিত্বে ও যুবনেতা এমদাদ রহমানের বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক সংসদ সদস্য শফিকুর রহমান চৌধুরী, আওয়ামী লীগ সদস্য সৈয়দ মিসবাহ উদ্দিন, যুক্তরাজ্য যুবলীগের সেক্রেটারি সেলিম আহমদ খান, কেন্দ্রীয় যুবলীগের সদস্য এডভোকেট মোহাম্মদ আব্বাছ উদ্দিন, হ্যাল্পিং হ্যান্ডস এর উপদেষ্টা ওয়ালী খান, সিলেট জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি শাহরিয়ার আলম সামাদ, আব্দুল আলিম বাবলু, এমদাদুর রহমান স্বপন প্রমুখ।

সিলেটের সংবাদ ডটকম: কোম্পানীগঞ্জের থানাবাজারে ‘মায়ের দোয়া’ টেলিকম নামের মোবাইলের দোকানের ষ্টীলের দরজা ভেঙ্গে দুর্ধর্ষ চুরির ঘটনা ঘটেছে। এতে চুরেরা বিভিন্ন ব্র্যান্ডের ১৮৮টি মোবাইল সেটসহ পাঁচ লক্ষাধিক টাকার মালামাল লুট করে নিয়েছে।

মঙ্গলবার দিবাগত রাতে এ চুরির ঘটনাটি ঘটে। জানা গেছে, থানাবাজার ফিশ মার্কেটের পূর্বে মায়ের দোয়া টেলিকমের মালিক জুয়েল আহমদ প্রতিদিনের মতো রাত ১১ টায় দোকান বন্ধ করে বাসায় চলে যান।

পরের দিন সকাল ৮টায় গিয়ে দেখেন দোকানের পিছনের দরজা ভাঙ্গা। দোকানের তাকে রাখা বিভিন্ন ব্র্যান্ডের ১৮৮টি মোবাইল ফোন, সিমকার্ড, রিচার্জ কার্ড, পেনড্রাইভ ও কার্ড রিডার, শেভিং মেশিন, ব্যাটারি, চার্জার লাইট এবং টেবিলের ড্রয়ারে থাকা বিকাশের ৫৯ হাজার টাকাসহ প্রায় ৫ লাখ টাকার মালামাল চুরেরা নিয়ে যায়।

খবর পেয়ে কোম্পানীগঞ্জ থানার সেকেন্ড অফিসার মোঃ আসলাম উদ্দিন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। এ ব্যাপারে যোগাযোগ করা হলে কোম্পানীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ আলতাফ হোসেন জানান, পুলিশ গিয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে এসেছে। প্রতি রাতে বাজারে পুলিশ টহল দিচ্ছে। তবে বাজার ব্যবস্থাপনা কমিটির পক্ষ থেকে বাজারে নিরাপত্তা ব্যবস্থা বাড়ানো দরকার বলে মন্তব্য করেন তিনি।

সিলেটের সংবাদ ডটকম: বিশ্বনাথ উপজেলায় আকস্মিক বন্যা ও ঘূর্ণিঝড়ে ক্ষতিগ্রস্থদের সহায়তা প্রদানের জন্য সরকারীভাবে বরাদ্ধ প্রদানের আশ্বাস দিয়েছেন দূর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণমন্ত্রী বীরবিক্রম মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া এমপি।

বুধবার দুপুরে বিশ্বনাথের সিলেট-সুনামগঞ্জ মহাসড়কের লামাকাজীতে বন্যা ও ঘূর্ণিঝড়ে কবলিত মানুষের উদ্দেশ্যে সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে এই আশ্বাস প্রদান করেন।

দূর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রী সুনামগঞ্জ সফরে যাচ্ছেন শুনে বুধবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত লামাকাজীতে মন্ত্রীকে স্বাগত জানাতে অবস্থান করেন এলাকার কয়েক শতাধিক নারী-পুরুষ।

সুনামগঞ্জ যাত্রাপথে মন্ত্রী লামাকাজীতে গাড়ি থেকে নেমে উপস্থিত জনতার উদ্দেশ্যে সংক্ষিপ্ত বক্তব্য রাখেন। মন্ত্রীকে বন্যা কবলিত এলাকার পরিস্থিতি অবগত করে বন্যা কবলিত ও ঝড়ে ক্ষতিগ্রস্থ মানুষদের সরকারী সহযোগীতা প্রদানের আহবান জানিয়ে বক্তব্য রাখেন সিলেট-২ আসনের সংসদ সদস্য ইয়াহইয়া চৌধুরী এহিয়া।

এলাকাবাসীর পক্ষে বক্তব্য রাখেন বিশ্বনাথ উপজেলা জাতীয় পার্টির সাবেক যুগ্ম আহবায়ক এ কে এম দুলাল। এসময় উপস্থিত ছিলেন সিলেট সদর উপজেলার মোগলগাঁও ইউপি চেয়ারম্যান ইরন মিয়া, লামাকাজী ইউপি সদস্য হেলাল মিয়া, কাঞ্চন চক্রবর্তী, চমক আলী, মখসুছ মিয়া, নুরুজ্জামান, ফাতেমা বেগম,কাঞ্চন মালা, সবিতা রানী দাস প্রমুখ।

সিলেটের সংবাদ ডটকম ডেস্ক: আগামী ২২শে এপ্রিল সিলেট জেলা ছাত্রলীগের সম্মেলন উপলক্ষ্যে বুধবার জেলা ছাত্রলীগের উদ্যোগে একটি স্বাগত মিছিল বের করা হয়। মিছিলটি নগরীর কোট পয়েন্টে থেকে শুরু হয়ে কেন্দ্রীয় শহিদ মিনারে এক সংক্ষিপ্ত সমাবেশে মিলিত হয়।

জেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কামরুল ইসলাম, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মিঠু তালুকদার, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সঞ্জয় চৌধুরী, সাংগঠনিক সম্পাদক দিদার হোসেন সাজু, সাবেক বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক জয়নাল আবেদীন ডায়মন্ড, জৈন্তাপুর উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি কয়ছর আহমদ, এমসি কলেজ ছাত্রলীগ নেতা দেলওয়ার হোসেন, টিটু চৌধুরী, সাবেক স্কুল ও ছাত্র বিষয়ক সম্পাদক হুসাইন আহমদ, জাহেদ আহমদ, সাবেক সদস্য নাজমুল ইসলাম, এমসি কলেজ ছাত্রলীগ নেতা রাজিব দাস, দুলাল আহমদ, সহ সভাপতি ইমরুল হাসান, গণশিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক কনক পাল অরূপ, পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক সাদিকুর রহমান, এমসি কলেজ ছাত্রলীগ নেতা সৌরভ দাস, শামীম আলী, অনুপম তালুকদার, আবু তাহের শিপু, রাসেল আহমদ, রুবেল আহমদ, কাজী জাহেদ আহমদ, আরাফাত চৌধুরী, রতন চন্দ্র রায়, আলতাফ হোসেন মুরাদ, আবু সালিম, সুহেল আহমদ, সায়েল আহমদ, জয়া শীষ দাস লিটন, মাহবুব, উপ আইন বিষয়ক সম্পাদক কাওছার উদ্দিন আহমদ, উপ ছাত্রী বিষয়ক সম্পাদক বখতিয়ার আকরাম চৌধুরী অনি, সহ সম্পাদক মাসুম আহমদ মাহি, শরীফ আরাফাত নাজাত, শিপু, কানন, কাঞ্জন, রতন, সিরাজুল, অপন, সবুজ, পাবেল, জেলা ছাত্রলীগ নেতা এনাম হোসেন, ফরারহান খান, দেলোয়ার হোসেন, বালাগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগ নেতা জিয়াউল হক পান্না, কামরান হোসাইন দারা, একে টুটুল, ওসমানীনগর উপজেলা ছাত্রলীগ নেতা আর অভি সামাদ, জয়নাল, জসিম, কানাইঘাট উপজেলা ছাত্রলীগ নেতা দেলওয়ার হোসেন, রিজভী বখতিয়ার হোসেন, গোয়াইনঘাট উপজেলা ছাত্রলীগ নেতা শাহরিয়ার, সাফওয়ান, শামীম, সেলিম, প্রমূখ। মিছিল পরবর্তী সমাবেশে বক্তারা বলেন, দীর্ঘদিন যাবৎ সিলেট জেলা ছাত্রলীগের দুই শীর্ষ নেতা জেলা ছাত্রলীগকে জিম্মি করে রেখেছে।

কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ দুই দুই বার সম্মেলনের তারিখ নির্ধারণ করলেও বিভিন্ন অজুহাতে সম্মেলন আয়োজন করতে ব্যর্থ হয়েছেন। কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সংগ্রামী সাধারণ সম্পাদক এসএম জাকির হোসেনের কাছে আবেদন জানিয়ে বলেন, আগামী ২২ এপ্রিল সিলেট জেলা ছাত্রলীগের সম্মেলনে যোগ্য ও গ্রহণযোগ্যদের মূল্যয়নের মাধ্যমে জেলা ছাত্রলীগকে জেলা ছাত্রলীগকে সাংগঠনিকভাবে আরো গতিশীল করতে ইতিবাচক সিদ্ধান্ত নিবেন। কেন্দ্রীয় সিদ্ধান্তের প্রতি আস্থা রেখে তৃণমূল ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের নিয়ে সিলেট জেলা ছাত্রলীগ ঐক্যবদ্ধ থাকবে। বিজ্ঞপ্তি

সিলেটের সংবাদ ডটকম: বাহুবল উপজেলার রাজাপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি নিয়োগকে কেন্দ্র করে দু’পক্ষের সংঘর্ষে অর্ধশতাধিক লোকজন আহত হয়েছেন।

মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলার রাজাপুর গ্রামে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলার রাজাপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি নিয়োগ নিয়ে বর্তমান সভাপতি নজরুল ইসলাম ও সভাপতি প্রার্থী শাহজাহান মিয়ার মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল।

সম্প্রতি শাহজাহান মিয়া বর্তমান সভাপতি নজরুল ইসলামের বিরুদ্ধে স্কুলের গাছ অবৈধভাবে বিক্রি করার দায়ে অভিযোগ করেন। অভিযোগের প্রেক্ষিতে মঙ্গলবার দুপুরে পুলিশ অভিযোগের তদন্ত করতে গেলে উভয় পক্ষ বাকবিতন্ডার এক পর্যায়ে দেশীয় অস্ত্রসস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এতে উভয় পক্ষে অর্ধশতাধিক লোকজন আহত হয়। গুরুতর আহত অবস্থায় ৪ জনকে সিলেট ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে প্রেরন করা হয়েছে।

আহতদের কয়েকজনকে বাহুবল ও হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। অন্যান্যদের স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। খবর পেয়ে বাহুবল উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আব্দুল হাই ও বাহুবল মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. মনিরুজ্জামান ঘটনাস্থলে পৌছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রন করেন।

বাহুবল মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. মনিরুজ্জামান বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করে জানান পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে  রাবার বুলেট ও টিয়ারশেল নিক্ষেপ করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে।

সিলেটের সংবাদ ডটকম: সুনামগঞ্জে হাওর রক্ষা বাঁধ নির্মাণে দুর্নীতির অভিযোগ খতিয়ে দেখতে কাজ শুরু করেছে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) তিন সদস্যের প্রতিনিধি দল।

 বুধবার সকালে দুদকের পরিচালক মোহাম্মদ বেলাল হোসেনের নেতৃত্বে  ঢাকা থেকে সিলেটে আসেন উপ-পরিচালক ইঞ্জিনিয়ার আবদুর রহিম, সহকারী পরিচালক সেলিনা আক্তার মনি। এসময় তাদের সঙ্গে ছিলেন দুদক সিলেটের পরিচালক শিরীন পারভিন।

সিলেট এসেই প্রতিনিধি দল বিভাগীয় কমিশনার নাজমান আরা খানুমের সঙ্গে দীর্ঘক্ষণ বৈঠক করে তথ্য উপাত্ত সংগ্রহ করেন। পরে তারা সিলেট পানি উন্নয়ন বোর্ডের প্রধান প্রকৌশলী মো: আব্দুল হাইকে জিজ্ঞাসাবাদ করেন।

সেখানে প্রায় তিন ঘন্টা ধরে হাওর রক্ষা বাধের বিভিন্ন প্রকল্পের নথি সংগ্রহ ছাড়াও প্রধান প্রকৌশলীকে জিজ্ঞাসাবাদ করেন দুদক তদন্ত প্রতিনিধি দল। প্রাথমিক তদন্তে প্রকল্পের কাজ সঠিক সময়ে সম্পন্ন হয়নি এমন প্রমাণ পেয়েছেন বলে জানিয়েছে তদন্ত প্রতিনিধি দলের প্রধান। পরে বিকেলে সুনামগঞ্জে হাওর এলাকার পরিদর্শনে যান তারা।

সেখানে হাওরাঞ্চলের মানুষের সঙ্গে কথা বলবেন এবং প্রকল্প গুলির বিষয়ে খোজ খবর নেবেন। সিলেটের পানি উন্নয়ন বোর্ডের কার্যালয় থেকে বের হয়ে প্রতিনিধি দলের প্রধান মোহাম্মদ বেলাল হোসেন সাংবাদিকদের জানান, তারা প্রকল্পের নথিপত্র সংগ্রহ করেছেন, তা মিলিয়ে দেখছেন। তবে প্রাথমিকভাবে প্রকল্পের কাজ সঠিক সময়ে সম্পন্ন হয়নি এমন প্রমাণ পেয়েছেন বলে জানান। তিনি বলেন, দুর্নীতির প্রমাণ পেলে কাউকে ছাড় দেয়া হবে না।

সিলেটের সংবাদ ডটকম: কুলাউড়া উপজেলার ব্রাহ্মণবাজার ইউনিয়নের সাত নম্বর মিনাবাজার থেকে ৫ লক্ষ টাকার গাঁজাসহ সোহেল মিয়া নামক এক মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছে র‌্যাব।

আটককৃত মাদক ব্যবসায়ী সোহেল মিয়া ব্রাহ্মণবাজার ইউনিয়নের গোবিন্দপুর গ্রামের মহরম মিয়ার (কনা) ছেলে। ১৮ এপ্রিল মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে ব্রাহ্মণবাজার ইউনিয়নের পশ্চিম জালালাবাদ এলাকা থেকে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর ও র‌্যাব-৯ শ্রীমঙ্গল ক্যাম্প এর যৌথ অভিযানের মাধ্যমে আটক করা হয়।

মঙ্গলবার সকালে র‌্যাব গোপনসুত্রে খবর পেয়ে মিনাবাজারের মছদ্দর মার্কেটের দোকানে অভিযান চালালে র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে পালিয়ে যায় জুলেয় আহমদ নামের আরেক মাদক ব্যবসায়ী ও তার সহযোগীরা। ওই দোকানে অভিযান চালিয়ে র‌্যাব ৫০ কেজি গাঁজা উদ্ধার করে। যার আনুমানিক বাজার মূল্য ৫ লক্ষ টাকা।

পরে অভিযান চালিয়ে র‌্যাব ওই মাদক ব্যবসায়ীর ভাই সুহেল আহমদকে আটক করে। মাদক ব্যবসায়ী জুয়েল ও সুহেল গোবিন্দপুর গ্রামের মহরম মিয়ার (কনা) পুত্র। র‌্যাব ও স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, ওই বাজারে জুয়েলসহ কয়েকজন মাদক ব্যবসার সাথে জড়িত। জুয়েলের নেতৃত্বে একটি চক্র গড়ে উঠেছে ওই এলাকায়।

তারা দীর্ঘদিন থেকে নির্বিগ্নে মাদক ব্যবসা, রাবার চুরি, গাছ চুরি, পাহাড় কাটা, গরু চুরি, ছিনতাইসহ নানা অর্পকম চালিয়ে আসছে। গ্রামীণ ওই এলাকাটি নিরিবিলি হওয়ায় তারা মিনাবাজারে বসেই মাদক ব্যবসাসহ নানা অপকর্ম চালায়। ওই বাজারে রাতের বেলায় চলে তাদের জমজমাট মাদক ব্যবসা ও নানা অপকর্মের পরিকল্পনা।

উঠতি বয়সী এই মাদক ব্যবসায়ীরা স্থানীয় ভাবে প্রভাবশালী হওয়ায় তাদের নানা অপর্কমের প্রতিবাদ করতে কেউ সাহস পায়না। র‌্যাবের হাতে সুহেল আটক হলেও অন্য সহযোগীরা পালিয়ে যাওয়ায় স্থানীয়রা স্বস্তি পাচ্ছেন না। তাদের জোর দাবী এলাকার নানা অপকর্মের হোতা এই মাদক ব্যবসায়ীদের গ্রেফতার করে আইননানূগ ব্যবস্থা নেওয়ার।

মৌলভীবাজার মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের কার্যালয়ের পরিদর্শক অমর কুমার সেন প্রেস ব্রিফিংয়ের মাধ্যমে জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মৌলভীবাজার মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর ও র‌্যাব-৯ শ্রীমঙ্গল ক্যাম্পের যৌথ অভিযানে মঙ্গলবার সকালে মিনাবাজারের একটি সিএনজি অটোরিক্সার গ্যারেজ থেকে কসটেপে মোড়ানো ৫০টি প্যাকেটে এই বিপুল পরিমাণ গাঁজা উদ্ধার করা হয়।

যার আনুমানিক বাজার মূল্য পাঁচ লক্ষটাকা। উদ্ধারকৃত গাঁজা হস্তান্তর এবং এ বিষয়ে কুলাউড়া থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলার প্রস্তুতি চলছে। র‌্যাব-৯ এর সহকারী পরিচালক জে. এম. ইমরান বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, সুহেলকে আটক করা হয়েছে এবং এই অপকর্মের সাথে জড়িত অন্যদেরও গ্রেফতারের চেষ্ঠা চলছে।

0 40

সিলেটের সংবাদ ডটকম ডেস্ক: সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারে সোমবার (১৮ এপ্রিল) এক বিতর্কিত মন্তব্য করেন ভারতের অন্যতম জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী সনু নিগম। মুসলমান না হওয়া সত্ত্বেও কেন আজানের আওয়াজে ঘুম ভাঙবে, এই প্রশ্ন তুলে রীতিমত সামালোচনার ঝড় তোলেন এই গায়ক।

এরপর বি টাউনের এই কণ্ঠশিল্পী নিয়ে শুরু হয় আলোচনা-সমালোচনা। ইতোমধ্যে সনুর মন্তব্যের বিরুদ্ধে সোচ্চার হয়েছেন ভারত-বাংলাদেশের সব ধর্ম-বর্ণের মানুষজন। প্রিয়াঙ্কা চোপড়া, পূজা ভাট থেকে শুরু করে অনেক তারকাই সনুর মন্তব্যের সমালোচনা করছেন।

তাদের ভিড়ে বাদ যাননি বাংলাদেশি তারকারাও। সনুর বক্তব্যের পরপরই বাংলাদেশের স্বনামধন্য গীতিকার প্রিন্স মাহমুদ, সংগীতশিল্পী পিন্টু ঘোষ সমালোচনা করেন। এবার সনুকে সমালোচনার কাঠগড়ায় দাঁড় করালেন চলচ্চিত্র নির্মাতা দেবাশীষ বিশ্বাস। ‘শ্বশুরবাড়ি জিন্দাবাদ’ ছবির এই নির্মাতা বুধবার (১৯ এপ্রিল) দুপুরে নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক স্ট্যাটাসে সনু নিগমকে নিয়ে ধিক্কার জানিয়ে তার মনের কথা তুলে ধরেন।

পাশাপাশি আজানকে দেবাশীষ বিশ্বাস ‘পৃথিবীর সবচেয়ে সুমধুর ধ্বনি’ বলে উল্লেখ করেন। দেবাশীষ বিশ্বাস লেখেন, ১৯৯২ সালের কথা। আমার বাবা দীলিপ বিশ্বাস (নন্দিত চলচ্চিত্র নির্মাতা) সারাজীবন বসবাসের জন্য একটি ফ্ল্যাট ক্রয় করার কথা ভাবছেন। সবাই তাকে গুলশান-বনানী-বারিধারায় সেটা কেনার উপদেশ দিলেন।

কিন্তু সবাইকে অবাক করে দিয়ে সে পরীবাগ নামক জায়গায় ফ্ল্যাটটি কিনলেন, যেটি কিনা তখন থেকে এখন পর্যন্ত আমাদের একমাত্র বর্তমান ও স্থায়ী নিবাস। তিনি আরও লেখেন, ‘মসজিদ সংলগ্ন পরীবাগে এত দাম দিয়ে কেন ফ্ল্যাট কেনা হলো।

বাবাকে এই প্রশ্ন করা হলে তিনি সবসময় বলতেন, ‘অন্য কোন জায়গায় চাইলেই তো কিনতে পারতাম, কিন্তু ভোর বেলায় মসজিদ থেকে ফজরের আজান তো শুনতে পেতাম না।

তাই এখানেই ফ্ল্যাটটা কিনেছি, যাতে ফজরের আজান শুনে আমার ঘুমটা ভাঙে।’  আমিও মনে করি, পৃথিবীর সবচেয়ে সুমধুর ধ্বনির নাম আজান। আমি যতবার যতগুলো মাজার-মসজিদে গিয়েছি, অন্য অনেকেরই হয়তো যাওয়া হয়নি।

সবশেষে ‘শুভ বিবাহ’ ছবির এই নির্মাতা লেখেন, তাই বলছি- রাহাত ফতেহ আলী খান, আতিফ আসলাম, মোহিত চৌহান, অরিজিতদের যাতাকলে পিষ্ট, দিশেহারা, নেশায় আসক্ত, ক্ষ্যাতিক্ষুধায় আক্রান্ত, মানসিকভাবে অসুস্থ সনু নিগামকে ধিক্কার জানানোর ভাষাও আজ আমি হারিয়ে ফেলেছি।

0 197

সিলেটের সংবাদ ডটকম ডেস্ক: অভিনেত্রী শাহলা ইসলাম তমা পারিবারিক কলহের জেরে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছেন। মঙ্গলবার (১৮ এপ্রিল) দিনভর কয়েকটি ঘুমের ট্যাবলেট, হারপিক ও স্যাভলন খেয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন তিনি।

এরপর অসুস্থ হয়ে পড়েন। তবে তিনি এখন অনেকটা সুস্থ। এ প্রসঙ্গে তমা বলেন, ‘পারিবারিক অনেক বিষয়ের কারণে শান্তি খুঁজে পাচ্ছিলাম না। তাই সুইসাইড করার পথ বেছে নিয়েছিলাম।

একাকিত্ব যখন একজন মানুষকে গ্রাস করে তখন এ পথ বেছে নেয়া ছাড়া উপায় থাকে না। বিভিন্ন দিক মেইন্টেইন করতে করতে আমি ক্লান্ত হয়ে গেছি। আমি একটু নরমাল হতে চাই কিন্তু পারছি না।

তমার বাসা মিরপুর-১০ নম্বরে। গত রাতে পল্লবী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা দাদন ফকির তমার আত্মহত্যার চেষ্টার খবর জানতে পেরে তার বাসায় যোগাযোগের চেষ্টা করেন। ওই পুলিশ কর্মকর্তা বলেন, প্রথমে আমরা তমা আত্মহত্যার খবর পেয়ে তার বাসার ঠিকানা পাই। কিন্তু সেটি ভুল ছিল। পরে খোঁজ নিয়ে জানতে পারি তিনি জীবিত আছেন।

তবে কয়েকবার আত্মহত্যার চেষ্টা করেছেন। তার পরিবার জানায়, তমা মানসিকভাবে অসুস্থ। সে এখন কিছুটা পাগলপ্রায়। এর বেশি কিছু জানা যায়নি। গতকাল (১৮ এপ্রিল) তমা তার ফেসবুকে লেখেন, ‘আমাকে কারও লাগবে না। কিন্তু অন্যের বিপদে আমি ঠিকই সবকিছু ভুলে গিয়ে তার পাশে থাকি। আর আজ আমি সবার কাছে অপ্রয়োজনীয় হয়ে গেছি।

ভালো থেক তোমরা। আমার চেয়েও অনেক ধনী ঘরের মেয়েকে বিয়ে করে সুখে থেকো। এদিকে আত্মহত্যার বিষয়টি জানিয়ে তমা তার নিজস্ব ফেসবুক স্ট্যাটাসে লেখেন, ‘প্রথমে দুই ধরনের ঘুমের ট্যাবলেট, তারপর হারপিক আর এখন স্যাভলন, এবার আমাকে কে আটকায়? আমার প্রতি সবার ভালোবাসা শেষ হয়ে গেছে। বিদায়।

আমার আজকের এই অবস্থার জন্য শুধু শাহজাহান সম্রাট (প্রেমিক) ও তার পরিবার দায়ী। ২০০৯ সাল থেকে ছোট পর্দায় অভিনয় করেন তমা। তার অভিনীত উল্লেখযোগ্য নাটকের মধ্যে রয়েছে ‘নির্বিকার মানুষ’, ‘নীড় খোঁজে গাঙচিল’, ‘নগর জোনাকী’, ‘চলিতেছে সার্কাস’ ইত্যাদি। এছাড়া তিনি চলচ্চিত্রেও কাজ করেছেন।

নায়ক রাজ রাজ্জাকের ‘আয়না কাহিনি’র মাধ্যমে বড় পর্দায় পা রাখেন তমা। এরপর শাহীন সুমনের ‘জটিল প্রেম’, জাকির হোসেন রাজুর ‘পোড়ামন’, রাকিবুল আলম রাকিবের ‘প্রেম করব তোমার সাথে’, কাজী হায়াতের ‘সর্বনাশা ইয়াবা’ ও অপূর্ব রানার ‘পুড়ে যায় মন’সহ মোট ছয়টি সিনেমায় অভিনয় করেছেন তিনি।

0 4

সিলেটের সংবাদ ডটকম ডেস্ক: বাংলাদেশ ও নিউজিল্যান্ডকে নিয়ে ঘরের মাঠে ত্রিদেশীয় সিরিজ খেলার আগে দুই ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ খেলতে আগামী মাসে ইংল্যান্ড সফর করবে আয়ারল্যান্ড জাতীয় দল।

আর এ সিরিজকে সামনে রেখে ১৪ সদস্যের দল ঘোষণা করে ক্রিকেট আয়ার‌ল্যান্ড। ১৪ সদস্যের এই দলে ডাক পেয়েছেন দুই অলরাউন্ডার কেভিন ও’ব্রায়েন ও পল স্ট্রার্লিং। ইনজুরির কারণে দল থেকে বাদ পড়েছেন পেস বোলার বয়েড র‌্যানকিন।

আফগানিস্তানের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজে হামস্ট্রিং ইনজুরিতে পড়েন ১০৭ ওয়ানডে ও ৫৯টি টি-২০ ম্যাচ খেলা কেভিন। আর ইন্টারকন্টিনেন্টাল কাপে খেলতে গিয়ে আঙ্গুলের ইনজুরি পড়েন ৭৮টি ওয়ানডে ও ৪৪টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলা স্ট্রার্লিং। অবশেষে সুস্থ হয়ে আবারো দলে ফিরলেন তারা। আর আফগানদের বিপক্ষে সিরিজে পিঠের ইনজুরিতে পড়েন র্যা নকিন। ম্যাচ দুটি অনুষ্ঠিত হবে আগামী ৫ ও ৭ মে।

আয়ারল্যান্ড স্কোয়াড :- উইলিয়াম পোর্টারফিল্ড (অধিনায়ক), এন্ড্রি বলব্রিনি, পিটার চেজ, জর্জ ডকরেল, এড জয়সে, টিম মুরতাগ, এন্ড্রু ম্যাকব্রিন, ব্যারি ম্যাককার্থি, কেভিন ও’ব্রায়েন, নিয়াল ও’ব্রায়েন, পল স্টার্লিং, স্টুয়ার্ট থমসন, গ্যারি উইলসন ও ক্রেইগ ইয়ং।

0 448
গত ১০ এপ্রিল ২০১৭ইং তারিখে সিলেটের সংবাদ ডটকমে ‘সিলেট নগরীতে সেনা কর্মকর্তা লাঞ্ছিত : গ্রেফতার চার ছাত্রলীগ নেতাকে রিমান্ডের আবেদন’ শিরোনামে একটি সংবাদ প্রকাশিত...

0 1469
সিলেটের সংবাদ ডটকম এক্সক্লুসিভ: বিতর্ক পিছু ছাড়ছে না ক্ষমতাসীন আওয়ামীলীগের সহযোগী সংগঠন সিলেট মহানগর যুবলীগের আহবায়ক আলম খান মুক্তির। তাকে নিয়ন্ত্রণ করা যাচ্ছে না...