কানাইঘাটে দুই পক্ষের সংঘর্ষে নিহত ১ : গ্রেফতার ৫

0
244

সিলেটের সংবাদ ডটকম: কানাইঘাট রাজাগঞ্জ ইউপির মইনা গ্রামে বসত বাড়ীর জায়গাজমির বিরোধ নিয়ে মঙ্গলবার সকাল ৮টায় দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষে ইব্রাহিম আলী নামে একজন নিহত হয়েছেন।

আহত হয়েছেন অন্তত ১০ জন। এ ঘটনায় কানাইঘাট থানা পুলিশ হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত থাকার সন্দেহে ৫ জনকে গ্রেফতার করেছে।

জানা যায়, বসত বাড়ীর সীমানার জায়গা নিয়ে রাজাগঞ্জ ইউপির মইনা গ্রামের মৃত সুরুজ আলীর পুত্র বশির আহমদ গং ও তার চাচাতো ভাই মৃত কনাই মিয়ার পুত্র নিহত ইব্রাহিম আলী গংদের মধ্যে বিরোধ চলে আসছিল।

মঙ্গলবার সকাল ৮টায় তাদের নিজেদের মধ্যে বিরোধ নিষ্পত্তির জন্য সালিশ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। একপর্যায়ে কথাকাটাকাটি হয়ে বশির আহমদ গংরা দেশীয় অস্ত্র নিয়ে জমি দখল করার চেষ্টা করলে উভয় পক্ষ সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। সংঘর্ষে গুরুতর আহত ইব্রাহিম আলীকে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হলে কর্তব্যরত ডাক্তার তাহাকে মৃত ঘোষণা করে।

পরে কানাইঘাট থানার এসআই জাহাঙ্গীর আলম সেখানে ছুটে গিয়ে লাশের সুরত হাল রিপোর্ট তৈরি ময়না তদন্তে পাঠান। নিহত ইব্রাহিম আলীর ভাই মজু মিয়া @ টিয়া আশংকা জনক অবস্থায় ওসমানী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আছেন।

এদিকে কানাইঘাট থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আব্দুল আহাদ জানিয়েছেন, জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে মইনা গ্রামে দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের খবর পেয়ে তিনি সহ কানাইঘাট সার্কেলের এএসপি মোঃ আমিনুল ইসলাম সরকার ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

এ হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত থাকার দায়ে সিলেট ওসমানী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মইনা গ্রামের সিরাজ মিয়ার পুত্র বাবুল আহমদ(৪৫), মৃত সুরুজ আলীর পুত্র সিরাজ উদ্দিন (৬৫), নুর উদ্দিন (৭০), সিরাজ উদ্দিনের স্ত্রী আত্তরি বেগম ও ঘটনাস্থল থেকে বাবুল আহমদের স্ত্রী সজনা বেগমকে আটক করা হয়েছে এবং দেশীয় অস্ত্র সহ একটি কোড়াল জব্দ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন ওসি আব্দুল আহাদ। বর্তমানে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে রয়েছে, ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

(Visited 4 times, 1 visits today)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here