কানাইঘাটে সন্তানের স্বীকৃতি পেতে আইনের দ্বারে মুর্শিদা!

0
270

সিলেটের সংবাদ ডটকম: কানাইঘাটে নব জাতক সন্তানের পিতৃ স্বীকৃতি পেতে আইনের দ্বারে ঘুরছেন মা মুর্শিদা বেগম(১৭)। উপজেলার ঝিঙ্গাবাড়ী ইউপির গোয়ালজুর গ্রামের আমির আলীর মেয়ে মুর্শিদা বেগমকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে একাধিক বার ধর্ষন করেছে ফুফাত ভাই জসিম উদ্দিন।

এ ঘটনার দায়ে বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৭টায় কানাইঘাট থানার এসআই অজিত কুমার তালুকদার, পিষুষ কান্তি দেব নাথ, এএসআই সুলেমান কবির, শহিদুল্লা সহ একদল পুলিশ উপজেলার চতুল এলাকা থেকে ধর্ষক জসিমকে গ্রেফতার করেন।

জানা যায়, ২০১৬ সালের মার্চে একই বাড়ির বাসিন্দা আয়ুব আলীর পুত্র ফুফাত ভাই জসিম মামাত বোন মুর্শিদাকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ধর্ষন করলে মুর্শিদা অন্তসত্বা হয়ে পড়ে। মুর্শিদার শারিরীক পরিবর্তন পরিবার বুঝতে পেরে চাপ প্রয়োগ করলে সে মা বাবাকে বিষয়টি খুলে বলে। এরপর মুর্শিদার পরিবার নিকট আত্মীয় ধর্ষক জসিমকে বিয়ের চাপ দিলে সে দিন ক্ষেপন করতে থাকে।

এক পর্যায় জসিমের প্রতারণার ফাঁদ বুঝতে পেরে মুর্শিদার মা তাহেরা বেগম বাদী হয়ে গত ২৯ নভেম্বর ধর্ষক জসিমকে আসামী করে সিলেট নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে মামলা দায়ের করেন। এরই মধ্যে প্রায় ৩ মাস পুর্বে মুর্শিদার ঘরে চলে আসে এক ফুটফুটে সন্তান। এতে বিপাকে পড়ে মুর্শিদা।

সন্তানের স্বীকৃতি পেতে সে বর্তমানে ঘুরছে আইনের দ্বারে। এ ব্যাপারে কানাইঘাট থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আব্দুল আহাদ জানান, অপরাধী যত বড় হোক আইনের হাত থেকে রেহাই পাবে না। আসামী জসিমকে গ্রেফতার করা হয়েছে। ডিএনও পরীক্ষার পর বিহীত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

(Visited 3 times, 1 visits today)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here