সুনামগঞ্জের জামালগঞ্জে ডিলারের বিরুদ্ধে অভিযোগ

0
169

অনিমেষ দাস, জামালগঞ্জ (সুনামগঞ্জ): সুনামগঞ্জ জেলার জামালগঞ্জ উপজেলার ক্ষতিগ্রস্থ কৃষকদের খাদ্য সহায়তার চাল নিয়ে নানাস্থানে অনিয়ম-দুর্নীতি ও চালবাজী হচ্ছে। বিভিন্ন এলাকার লোকজন জানিয়েছেন ১৫ টাকা কেজি দরের ওএমএস (অপেন মার্কেট সেল) এর চাল ও ভিজিএফের চাল নিয়ে কিছু ডিলার ও ইউনিয়ন পরিষদের জনপ্রতিনিধিরা যা ইচ্ছা তাই করছেন।

অভিযোগ উঠেছে কোথাও ওএমএসের চাল ওজনে কম দেয়া, ভুয়া নামে উত্তোলন করা হচ্ছে। ভিজিএফ কার্ডে অর্থ আদায়, স্বজনপ্রীতি ও ভোটের জন্য দলীয় লোকদের কাছে কার্ড বিতরণ করা হচ্ছে। যদিও অভিযুক্তদের দাবি নিয়ম মোকাবেকই সবকিছু করছেন তারা।

জানা যায়,বেহেলী ইউনিয়নের ওএমএস ডিলার বিএনপি নেতা আবুল হোসেনের ডিলার পয়েন্ট ছিল তাহিরপুরের  শ্রীপুর দক্ষিণ ইউনিয়নের  পৈন্ডুপ বাজারে। পৈন্ডুপ বাজারে পানি উঠে যাওয়ায় তিনি বেহেলী ইউনিয়নের ৩ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য হালির হাওরের বাঁধ ভাঙায় অভিযুক্ত পিআইসি মনু মিয়ার বাড়িতে চাল বিক্রি শুরু করেছেন।

এলাকাবাসীর অভিযোগ চাল বিক্রিতে প্রভাব বিস্তার করছেন মনু মিয়া। ভুয়া নামে বিক্রি দেখিয়ে দুর্নীতির অভিযোগ রয়েছে ওই ডিলারের বিরুদ্ধে । বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও ওসিএলএসডিকে অবগত করেছেন স্থানীয় লোকজন। ডিলার আবুল হোসেনকে ইউপি সদস্য মনু মিয়ার বাড়ি থেকে চাল দ্রুত সরিয়ে নেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন ওসিএলএসডি।

মনু মিয়ার বাড়ি থেকে চাল সরানো হলেও চালগুলো মনু মিয়ার চাচাতো ভাই আব্দুল মতলিবের বাড়িতেই রাখা হয়েছে। জামালগঞ্জের ওসিএলএসডি অসীম কুমার তালুকদার বলেন,‘ পৈন্ডুপ বাজার তলিয়ে যাওয়ায় ওএমএস ডিলার স্থানীয় ইউপি সদস্য মনু মিয়ার বাড়িতে চাল মওজুদ করেছিলেন। হাওরের ফসলডুবির বিষয়ে মনু মিয়ার বিরুদ্ধে স্থানীয়রা ক্ষুব্ধ।

তাই মনু মিয়ার বাড়ি থেকে দ্রুত চাল সরানোর জন্য ডিলারকে বলা হয়েছে। ডিলারের কাছে বিষয়টির ব্যাখ্যা চাওয়া হবে। জামালগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা প্রসূন কুমার চক্রবর্তী বলেন,‘ বেহেলী ইউনিয়নের ডিলারকে ইউপি সদস্য মনু মিয়ার বাড়ি থেকে দ্রুত চাল সরানোর জন্য বলা হয়েছে। তদারককারী কর্মকর্তাকে দ্রুত পাঠিয়ে খোঁজ নেয়া হবে।

 

(Visited 1 times, 1 visits today)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here