‘নতুন ক্ষেপণাস্ত্রটি’ নজিরবিহীন দূরত্ব অতিক্রমে সক্ষম

0
186

সিলেটের সংবাদ ডটকম ডেস্ক: উত্তর কোরিয়া সর্বশেষ ক্ষেপণাস্ত্র উৎক্ষেপণের এ সময়ে নতুন ধরনের রকেটের সফল পরীক্ষা চালিয়েছে। ১৫ মে সোমবার পিয়ংইয়ং এ কথা জানায়। বিশ্লেষকরা জানান, এটি নজিরবিহীন দূরত্ব অতিক্রমে সক্ষম।

এমনকি এটি প্রশান্ত মহাসাগরে অবস্থিত যুক্তরাষ্ট্রের ঘাঁটিতেও আঘাত হানতে পারবে। উত্তর কোরিয়ার রাষ্ট্রীয় সংবাদ সংস্থা কোরিয়া সেন্ট্রাল নিউজ এজেন্সি (কেসিএনএ) জানায়, দেশটি ১৪ মে রোববার হুয়াসং-১২ নামের ভূমি থেকে ভূমিতে নিক্ষেপণযোগ্য নতুন একটি মাঝারি দূর-পাল্লার ব্যালাস্টিক রকেট উৎক্ষেপণ করেছে। খবর এএফপি’র।

কেসিএনএ আরও জানায়, উত্তর কোরীয় নেতা কিম জং-উন ব্যক্তিগতভাবে পরীক্ষাটির তদারকি করেছেন। পরীক্ষা চালানোর পর তিনি সেখানে উপস্থিত কর্মকর্তাদের জড়িয়ে ধরেন এবং বলেন, ‘তারা বিরাট এ অর্জনের জন্য অক্লান্ত পরিশ্রম করেছেন।

কেসিএনএ জানায়, অস্বাভাবিক উচ্চতা থেকে ক্ষেপণাস্ত্রটি উৎক্ষেপণ করা হয়। এটি দুই হাজার ১১১ দশমিক পাঁচ কিলোমিটার উঁচু দিয়ে ৭৮৭ কিলোমিটার পথ পাড়ি দিয়ে জাপান সাগরে পড়ে। বিশ্লেষকরা জানান, ক্ষেপণাস্ত্রটি এর ধারণক্ষমতা অনুযায়ী চার হাজার ৫০০ কিলোমিটার বা তার বেশি পথ অতিক্রম করতে সক্ষম।

যুক্তরাষ্ট্রের মিডলবারি ইনস্টিটিউট অব ইন্টারন্যাশনাল স্টাডিজ এর জেফরি লুইস বলেন, ‘উত্তর কোরিয়া এ যাবত যত পরীক্ষা চালিয়েছে এটি সবচেয়ে দূরপাল্লার ক্ষেপণাস্ত্র। ৩৮ নর্থ ওয়েবসাইটে মহাকাশ প্রকৌশল বিশেষজ্ঞ জন স্খিলিং বলেন, ক্ষেপণাস্ত্রটি প্রশান্ত মহাসাগরে অবস্থিত ‘গুয়ামে যুক্তরাষ্ট্রের ঘাঁটিতে আঘাত হানতে’ সক্ষম। তিনি বলেন, ‘এক্ষেত্রে আরও যে জিনিসটি সবচেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ তা হচ্ছে এটা আন্তঃমহাদেশীয় ব্যালাস্টিক ক্ষেপণাস্ত্রের একটি অত্যাধুনিক সংস্করণ।

(Visited 3 times, 1 visits today)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here