সিলেটেও ‘বাহুবলী ও সুলতান সুলেমান’

0
659

সিলেটের সংবাদ ডটকম ডেস্ক: মুসলমানদের সর্ববৃহৎ ধর্মীয় উৎসব ঈদ-উল-ফিতরের আর মাত্র ক’দিন বাকি। ঈদের আনন্দে ছোট-বড় সকলেরই চাই নতুন পোষাক।

এজন্য বিভাগীয় নগরী সিলেটের সবকটি বিপনী বিতান আর শপিংমলে নতুন ডিজাইনের মনমাতানো পোষাকের কালেকশন সাজিয়েছেন ব্যবসায়ীরা।

বিশেষ করে; ফ্যাশন সচেতন তরুণীদের কথা মাথায় রেখে এবার তাদের কালেকশনে এসেছে নতুনত্ব। ক্রেতা আকৃষ্ট করতে এসব পোষাকের নামেও রয়েছে ভিন্নতা।

এমনটি জানিয়েছেন ব্যবসায়ীরা। প্রতিবছরের ন্যায় এবারও তরুণীদের পছন্দে রয়েছে ভারতের জনপ্রিয় বিভিন্ন চলচ্চিত্র ও সিরিয়ালের মূল চরিত্রের নামের সাথে মিল রেখে আনা পোষাক। অন্যবারের ন্যায় এবার সিলেটের তরুণীদের পছন্দের শীর্ষে রয়েছে দক্ষিণ ভারতের চলচ্চিত্র ‘বাহুবলী টু’ সিনেমার ব্যবহৃত পোষাকের অনুকরণে কাতান কাপড়ের লেহেঙ্গা; যা বাহুবলী ড্রেস নামে সাজিয়ে রাখা হয়েছে।

একই সাথে চাহিদা রয়েছে সুলতান সুলেমানেরও। ব্যবসায়ীদের সাথে কথা বলে আরো জানা যায়, একাধিক ডিজাইনের বাহুবলী নামের এই পোশাক বাজারে এসেছে। এছাড়া বিদেশী সিরিয়াল ‘সুলতান সুলেমান’ নাম অনুকরণে নতুন গাউন পোষাক এসেছে। যাতে রয়েছে রাজকীয় অভিজাত্যের ছাপ। ব্যতিক্রম ডিজাইনের পোষাক হওয়ায় তরুণীদের পছন্দে রয়েছে এটিও।

এছাড়া সারারা নামের আরেকটি পোষাকেরও কাটতি রয়েছে বলে জানিয়েছেন তারা। এবার মেয়েদের মানসম্মত পোশাক কিনতে চাইলে সর্বনিস্ন  আড়াই হাজার থেকে ও সর্বোচ্চ ১০ হাজার পর্যন্ত লাগবে। তবে স্থানভেদে কাপড়ের মূল্যের তারতাম্য রয়েছে। বিশেষত; অভিজাত শপিংমলগুলোতে সর্বনিম্ন তিন হাজার থেকে সর্বোচ্চ দেড় লাখ টাকা মূল্যের পোষাকও বিক্রি করা হচ্ছে।

ব্লু-ওয়াটার শপিং সেন্টারের উৎস ফ্যাশনের পরিচালক উজ্জ্বল ঘোষ জানান, ঈদের বাজার ঘিরে আমাদের সকল ধরণের প্রস্তুতি সম্পন্ন। ঈদের বাজার এখনো জমেনি। তবে ক্রেতাদের আনাগোনা শুরু হয়েছে। আশা করছি দু’ এক দিনের মধ্যে ক্রেতাদের নিয়মিত দেখা পাব।

ব্র্যান্ড ‘জারা’ কালেকশনের পরিচালক জুনেদ আহমদ জানান, আমাদের নিজস্ব ডিজাইনার দিয়ে এবারের ঈদের পোশাক এনেছি। এর দামও সহনশীল পর্যায়ে রয়েছে বলে জানান তিনি। এদিকে, ছেলেদের জন্য নতুনত্ব কিছু না থাকলেও থাই জিন্স, নরমাল জিন্স, শার্ট,টি-শার্ট ও পাঞ্জাবিসহ একাধিক নতুন ডিজাইনের পোশাক বাজারে দেখা যাচ্ছে।

(Visited 19 times, 1 visits today)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here