পাকিস্তানে একাধিক হামলায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৭৩

0
139

সিলেটের সংবাদ ডটকম ডেস্ক: পাকিস্তানের পারাচিনার ও কোয়েটায় শুক্রবার রাতে দুটি পৃথক হামলায় ৫৫ জন নিহত হয়েছেন। এখন পর্যন্ত নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৭৩ জনে ঠেকেছে। আহত হয়েছেন আরও ২৬১ জন।

নিহতের সংখ্যা আরও বাড়ার আশঙ্কা করা হচ্ছে। খবর ওয়াশিংটন পোস্টের। দুই প্রদেশের মধ্যে পারাচিনারেই হতাহতের সংখ্যা বেশি। প্রথম বোমাটি বিস্ফোরণের পর ঘটনাস্থলে উদ্ধার অভিযান শুরু হলে দ্বিতীয় বোমাটির বিস্ফোরণ ঘটানো হয়।

পারাচিনার সরকারি হাসপাতালের চিকিৎসক সাবির হুসাইন বলেন, হামলায় আহতদের ২৬১ জনকে তারা চিকিৎসা দিচ্ছেন। তাদের মধ্যে ৬২ জনের অবস্থা গুরুতর। হামলায় হতাহত ব্যক্তিরা শুক্রবার সন্ধ্যার আগে ইফতার কেনার জন্য বেরিয়েছিলেন।

অন্যদিকে, পাকিস্তানের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলীয় বেলুচিস্তান প্রদেশের রাজধানী কোয়েটায় শুক্রবার এক গাড়িবোমা বিস্ফোরণে ১৪ জন নিহত হয়েছেন। একটি চেকপোস্টে বিস্ফোরক ভর্তি গাড়ি থামানোর নির্দেশ দেয়া হলে বোমার বিস্ফোরণ ঘটান গাড়িটির চালক। এ ঘটনায় নিহতদের মধ্যে সাত পুলিশ কর্মকর্তা রয়েছেন। পুলিশের দাবি ইসলামিক স্টেট এবং পাকিস্তানি তালেবান এই হামলা চালিয়েছে।

অবশ্য হামলার পর দায় স্বীকার করেছে তালেবান। ইসলামিক স্টেট (আইএস) এর পক্ষ থেকেও দায় স্বীকার করা হয়েছে। তারা হামলাকারীর ছবিও প্রকাশ করেছে। আবু ওসমান আল খোরাসানি নামের ওই ব্যক্তি হামলা চালিয়েছেন বলেও দাবি করা হয়।

পাকিস্তানের বন্দরনগরী করাচিতে ইফতারের সময় নিরাপত্তা রক্ষায় টহলরত চার পুলিশকে গুলি করে হত্যা করেছিল ওই বন্দুকধারীসহ অন্যরা। পুলিশের ধারণা, গুরুত্বপূর্ণ আস্তানাগুলোতে সেনা অভিযানের প্রতিশোধ নিতেই দৃশ্যত পবিত্র রমজান মাসে এসব হামলা চালিয়েছে জঙ্গিরা ঈদের আগে এরকমভাবে হামলা চালানোর নিন্দা জানিয়েছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ সিদ্দিকী।

(Visited 5 times, 1 visits today)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here