সৌদি আরবে জেদ্দা থেকে ১৫ লক্ষ টাকা নিয়ে জকিগঞ্জের হাবিবুর রহমান উধাও

0
976

মোঃ মতিউর রহমান: সৌদি আরবে জেদ্দা শহরের আল সাফা সাকরিন এলাকায় অবস্থানরত প্রবাসী বাংলাদেশী সহ বিভিন্ন দেশের ব্যক্তিদের কাছ থেকে প্রায় ১৫ লক্ষ টাকা নিয়ে গোপনে দেশে এসেছেন এক প্রবাসী বাংলাদেশী।

জানা যায়,জকিগঞ্জ উপজেলার শিবরচক গ্রামের মোঃ হাবিবুর রহমান ওরফে(হাবিব মোল্লা) সৌদি আরব, পাকিস্তান, ইন্ডিয়া, মিশরী, সিরিয়ান ব্যক্তিদের কাছ থেকে মোটা অংকের টাকা নিয়ে গোপনে চলে আসে বাংলাদেশে।

এতে সব চেয়ে বেশি সমস্যার মধ্যে রয়েছেন সে দেশে অবস্থানরত প্রবাসী বাংলাদেশীরা। সে দীর্ঘ ১৮ বছর যাবৎ সোদি আরবে অবস্থান করছে সেই সুবাদে তার কফিল এর কাছে বিশ্বাসী হয়ে উঠে।

সে সেদেশের কফিলের বিভিন্ন ফ্ল্যাটের ভাড়ার টাকা কালেকশনের দায়িত্ব পালন করে আসছিল। সম্প্রতি সে বাংলাদেশী, সৌদি আরবী, পাকিস্তানি,  ইন্ডিয়ান, মিশরী ও সিরিয়ান প্রবাসী ব্যক্তিদের সাথে প্রতারনা করে ফ্ল্যাটের ভাড়া বাবদ অগ্রিম ৭৩ হাজার রিয়াল যা বাংলাদেশের প্রায় ১৫ লক্ষ টাকা আত্মসাৎ করে সম্প্রতি বাংলাদেশে গোপনে চলে আসে।

সৌদি আরবে অবস্থানরত কানাইঘাট উপজেলার সড়কের বাজারের ফখর উদ্দীন ও সিলেট সদরের মিরপুরের বলাউরা বাজারের মোহাম্মদ বাবুল মিয়া  অভিযোগ করে বলেন হাবিবুর রহমান ১৮ বছর থেকে সৌদি আরবে ছিল আমরা ভাবতে পারিনি সে এ রকম টাকা আতœসাৎ করে গোপনে বাংলাদেশে চলে যাবে।

আমরা সৌদি আরবে যারা প্রবাসী বাংলাদেশীরা রয়েছি প্রতিনিয়ত এই ঘটনার জন্য সমস্যার মাঝে রয়েছি। সে শুধু আমাদেরকে সমস্যার মধ্যে ফেলে যায়নি তার চেয়ে বেশি বিদেশী প্রবাসীদের কাছে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি নষ্ট করেছে। আমরা সে দেশে অবস্থানরত বিভিন্ন দেশের নাগরিকদের সামনে যেতে পারছিনা।

এই সমস্যা সমাধানের জন্য আমরা বাংলাদেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রী মহোদয়ের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি। এ ব্যাপারে সৌদি আরবের জেদ্দা থেকে গত ৯ জুলাই ফখর উদ্দিন জকিগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসারের বরাবরে একটি অভিযোগ দায়ের করেন। এ বিষয়ে হাবিবুর রহমানের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি এ অভিযোগটি মিথ্যা ভিত্তিহীন বলে উড়িয়ে দেন।

(Visited 7 times, 1 visits today)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here