স্ত্রী সন্তান রেখে পরকিয়া প্রেমিকাকে বিয়ে : থানায় মামলা

0
134

সিলেটের সংবাদ ডটকম ডেস্ক: শায়েস্তাগঞ্জের নুরপুরে যৌতুকের জন্য স্ত্রীর উপর অমানুষিক নির্যাতন চালিয়েছে তার স্বামী ও স্বজনরা। শুধু তাই নয় ঘরে ১ম স্ত্রী সন্তান রেখে ফের বিয়ে করে লাপাত্তা হয়ে গেছে সে।

তাই এ ব্যাপারে শায়েস্তাগঞ্জ থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে শিরিন আক্তার (২৬) বাদী হয়ে একটি মামলা দায়ের করেছে। মামলার বিবরণে জানা যায়, বেশ কিছু দিন পূর্বে শায়েস্তাগঞ্জের নুরপুর গ্রামের মোঃ লাল মিয়ার কন্যার সাথে বিয়ে হয় সুনামগঞ্জ জেলার শাল্লা থানার ভাটগাও গ্রামের শফিক মাষ্টারের পুত্র মাসুম পারভেজ সুমন (২৯) এর।

তারা উভয় প্রাণ কোম্পানিতে চাকুরী করত বলে জানা গেছে। বিয়ের কয়েক বছর সুখে শান্তিতে কাটলেও সম্প্রতি সুমন ১ লাখ টাকা যৌতুকের জন্য তার স্ত্রী শিরিন আক্তার কে চাপ প্রয়োগ করে আসছিল। টাকা না দেওয়ায় সুমন তার স্ত্রীর উপর প্রায়ই অমানুষিক নির্যাতন করত বলে মামলায় উল্লেখ করা হয়।

এছাড়াও সুমন প্রাণ কোম্পানিতে চাকুরীর সুবাদে একই কোম্পানির মমিনা আক্তারকে বিয়ে করে লাপাত্তা হয়ে যায়। এমতাবস্থায় সন্তানাদি নিয়ে বিপাকে পড়েছে শিরিন আক্তার। তাই এ ব্যাপারে শায়েস্তাগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। মামলায় মাসুম পারভেজ সুমন, মামুন মিয়া, মমিনা হক ময়না ও মমিনা আক্তার লাকিকে আসামী করা হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here