কানাইঘাটে শিক্ষক লাঞ্চিত হয়ে নিখোঁজ: শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ

0
35

সিলেটের সংবাদ ডটকম: কানাইঘাট সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক তফজ্জুল হোসেন নিখোঁজ রয়েছেন।

তাকে শারীরিক ভাবে লাঞ্চিতের ঘটনায় স্কুলের প্রাক্তন ও বর্তমান শিক্ষার্থীরা তফজ্জুল হোসেনের সন্ধানের দাবীতে এবং তাকে লাঞ্চিতের ঘটনার সাথে জড়িতদের চিহ্নিত করে গ্রেফতার করার জন্য রবিবার রাত ৮টার দিকে শিক্ষার্থীরা কানাইঘাট থানার পাশে বিক্ষোভ করেন।

জানা যায়, শারীরিক প্রতিবন্ধী তফজ্জুল হোসেন কানাইঘাট সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক হিসাবে দীর্ঘদিন ধরে কর্মরত রয়েছেন।

গতকাল রবিবার বিকেল ৩টার দিকে তিনি বাইসাইকেল যোগে কানাইঘাট উপজেলা কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের দিকে যাওয়ার সময় রাস্তায় একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের দুই ছাত্র সাইকেল যোগে বাড়ী যাওয়ার সময় একটি রিক্সার সাথে বাইসাইকেল লেগে যাওয়ায় তফজ্জুল হোসেন শিক্ষার্থীদের উপদেশ মূলক শ^াসান।

এ ঘটনার জের ধরে একজন বহিরাগত যুবক তফজ্জুল হোসেনকে শারীরিক ভাবে লাঞ্চিত করলে সেখানে ছুটে গিয়ে কানাইঘাট থানার এস.আই স্বপন চন্দ্র সরকার তফজ্জুল হোসেনকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। এরপর তফজ্জুল হোসেন হাসপাতাল থেকে বের হয়ে একটি অটোরিক্সা সিএনজি যোগে চলে যান।

এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত তফজ্জুল হোসেনকে কোথাও খোঁজে পাচ্ছেন না তার পরিবারের লোকজন ও স্কুলের শিক্ষার্থীরা। তফজ্জুল হোসেনের গ্রামের বাড়ী জৈন্তাপুর উপজেলায় সারিঘাট গ্রামে খোঁজ নিয়ে এবং তার কানাইঘাট উপজেলা সদরস্থ বাসায় গিয়ে তাকে খোঁজে না পেয়ে শিক্ষার্থীরা থানার পাশে বিক্ষোভ করে।

সেখানে উপস্থিত হয়ে কানাইঘাট থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আব্দুল আহাদ ও কানাইঘাট পৌর আ’লীগের আহ্বায়ক জামাল উদ্দিন সহকারী শিক্ষক তফজ্জুল হোসেনের সন্ধান খোঁজে বের করে স্যারকে যারা অপমানিত করেছে তাদের বিরুদ্ধে দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তি ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন বলে আশ^স্থ করলে শিক্ষার্থীরা শান্ত হন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here