কলেজ শিক্ষকের দুই পা কেটে দিয়েছে ছাত্রলীগ!

0
403

সিলেটের সংবাদ ডটকম: সিলেটে এক কলেজ শিক্ষকের দুই পা কেটে দিয়েছে ছাত্রলীগ। শনিবার (১৯আগস্ট) বেলা আড়াইটায় নগরীর মির্জজঙ্গাল এলাকায় প্রকাশ্য দিবালোকে এ ঘটনা ঘটে। আক্রান্ত কলেজ শিক্ষক আসাদুল আলম চৌধুরী নগরীর ব্রিটানিকা উইমেন্স কলেজের যুক্তিবিদ্যা বিভাগের প্রভাষক।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, প্রতিদিনের ন্যায় শিক্ষক আসাদুল আলম চৌধুরী কলেজ শেষে মির্জাজাঙ্গালস্থ একটি চায়ের দোকানে চা পান করে বাসায় ফিরছিলেন। এসময় সিলেট মহানগর ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সজল দাস অনিকের নেতৃত্বে ৭/৮ জনের একদল ছাত্রলীগ ক্যাডার শিক্ষক আসাদুল আলম চৌধুরীকে উপর্যুপরি কোপিয়ে তার দু’পায়ে উপর্যুপরি কুপিয়ে মারাত্মক জখম করে রাস্তায় ফেলে চলে যায়।

আশংকাজনক অবস্থায় শিক্ষক আসাদুল আলমকে নগরীর একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। সিলেট মহানগর ছাত্রলীগের সভাপতি আব্দুল বাসিত রুম্মান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, সজল দাস অনিক তার শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক। তার নেতৃত্বে এক শিবির নেতাকে শায়েস্তা করা হয়েছে বলে তিনি জানতে পেরেছেন।

সিলেটে মহানগর ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সজল দাস অনিক ঘটনার দায় স্বীকার করে জানান, আসাদুল আলম চৌধুরী ছাত্রশিবিরের একজন দায়িত্বশীল নেতা। গত কয়েকদিন ধরে তার ফেইসবুক পেইজে বঙ্গবন্ধু, প্রধানমন্ত্রী এবং শিবিরের হাতে সদ্য আহত ছাত্রলীগের সুমনকে নিয়ে নানা কুরুচিপূর্ন স্ট্যাটাস দিয়ে যাচ্ছিল। তাই দলীয় স্বার্থে আমরা তাকে শায়েস্তা করতে বাধ্য হয়েছি।

তিনি নিজেও এ ঘটনার সাথে জড়িত ছিলেন বলে জানিয়েছেন। কলেজের শিক্ষক হওয়ার পর তিনি ছাত্রশিবিরের দায়িত্বশীল নেতা হতে পারেন কি না এব্যাপারে কোন বক্তব্য দিতে তিনি অপারগতা প্রকাশ করেন। সিলেট কোতোয়ালি মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ গৌছুল হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে এবং ঘটনার তদন্ত ও অনুসন্ধান অব্যাহত রয়েছে।

বৃটানিকা কলেজের অধ্যক্ষ জি কিউ এম আলমগীর বলেন, প্রায় ২ বছর থেকে এই প্রতিষ্ঠানে যুক্তিবিদ্যায় শিক্ষকতা করে আসছেন আসাদ। ঠিক কি কারণে তার উপর হামলা হয়েছে, তা তিনি জানেন না। হামলার পর থেকে কলেজ ক্যাম্পাসে আতংক বিরাজ করছে বলেও জানান তিনি। ঘটনাটি পুলিশকে অবহিত করেছেন বলে জানান অধ্যক্ষ।

(Visited 8,355 times, 1 visits today)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here