বিশ্বনাথে ট্রাভেলস ব্যবসার নামে চলছে প্রতারণা

0
104

সিলেটের সংবাদ ডটকম ডেস্ক: বিশ্বের যে-কোন দেশেই আপনি যেতে পারবেন এমন নিশ্চিয়তা দেখিয়ে বিশ্বনাথে ট্রাভেলস ব্যবসার নামে চলছে প্রতারনা। আর এর শিকার হচ্ছেন সহজ সরল ও অসহায় লোকজন।

অনেকে বিদেশ যাবার আশায় শেষ সম্বল ঘরবাড়ী পর্যন্ত বিক্রয় করে তাদের হাতে সব টাকা দিয়ে নি:স্ব ও অসহায় হয়ে গেছেন। এমন অভিযোগ পাওয়া গেছে বিশ্বনাথ উপজেলা সদরের নতুন বাজার বেলাল রাজা ট্র্যাভেলস’র বিরুদ্ধে।

বিশ্বনাথ উপজেলা সদরের নতুন বাজারস্থ দিদার শপিং কমপ্লেক্সের ‘বেলাল রাজা ট্র্যাভেলস’র স্বত্ত্বাধিকারী ও উপজেলার উত্তর মিরেরচর গ্রামের মৃত চমক আলীর পুত্র বেলাল রাজা (৩৫)-এর বিরুদ্ধে।

বিদেশ পাঠানোর নামে ৩৬ লাখ টাকা আত্বসাৎ ও জাল ভিসা প্রদান করে প্রতারনার অভিযোগে আদালতে মামলা দায়ের করা হয়েছে। উপজেলার ইলামেরগাঁও গ্রামের হাজী আব্দুল করিমের পুত্র সফর আলী সেবুল বাদি হয়ে বৃহস্পতিবার সিলেট নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ২য় আদালতে এই মামলাটি দায়ের করেন। বিশ্বনাথ বিবিধ মামলা নম্বর ৩৩/২০১৭।

মামলায় তিনিসহ আরো ২ জনকে অভিযুক্ত করা হয়েছে। অন্যান্য অভিযুক্তরা হলেন, বেলার রাজার ছোট ভাই সোহেল রাজা (৩০) ও একই গ্রামের মৃত আকবর আলীর পুত্র আকলুছ আলী (৪৫)। আদালতে দায়েরকৃত অভিযোগে সফর আলী সেবুল উল্লেখ করেন, তিনি কিছু দিন যাবৎ ভিজিটে লন্ডনে ছিলেন জীবীকার নির্বাহের জন্য। ইদানিং কোন এক কারণে লন্ডন যেতে না পারায় আবারো লন্ডন যাওয়ার আশায় বিভিন্ন লোকের কাছে ঘোরা ফেরা করেন।

একপর্যায়ে বেলাল রাজা ট্র্যাভেলস’র সত্বাধিকারী বেলার রাজার শরনাপন্ন হন তিনি (সফর আলী সেবুল) এবং আলাপ আলোচনার মাধ্যমে কানাডা পাঠানোর আশ্বাস দিয়ে তার কাছ থেকে ৩৬ লাখ টাকা হাতিয়ে নেন বেলাল রাজা। পরবর্তীতে কোন কাজ না করায় বাদি বেলাল রাজাকে প্রদানকৃত টাকা পেরত দিতে চাপ দিলে তাকে একটি জাল ভিসা প্রদান করেন বেলাল রাজা।

ভিসাটি চেক করে জাল হিসাবে প্রমান মিলে। এ বিষয়ে স্থানীয়ভাবে একাধিকবার শালিশ বৈঠকও অনুষ্ঠিত হয়। একপর্যায়ে সফর আলী সেবুলকে একটি চেক প্রদান করেন বেলাল রাজা। কিন্ত একাউন্টে কোন টাকা না থাকায় জঠিলতা সৃষ্টি হয়। জীবন জীবিকার সব হারিয়ে সফর আলী সেবুল আজ নি:স্ব হয়ে যান।

তখন টাকার জন্য আইনগত প্রক্রিয়ায় গেলে বেলাল রাজা আবারো হুমকি প্রদান করেন, আর সেই কারণে অতিষ্ট হয়ে বেলাল রাজার বিরুদ্বে মামলা দায়ের করেন সেবুল। এর ফলে অভিযুক্তদেরকে লিগ্যাল নোটিশ প্রদান করেন সফর আলী সেবুল। এতে আরো বেপরোয়া হয়ে উঠে সফর আলী সেবুকে হত্যার হুমকি প্রদান করেন অভিযুক্তরা। গত ১৪আগষ্ট সকাল ১০টায় সফর আলী সেবুল ব্যাংকে যাওয়ার পথে তার উপর আক্রোমনের চেষ্টা চালায় অভিযুক্তরা।

সফর আলী সেবুল আর জানান, বেলাল রাজা আমার সারা জীবন নষ্ট করছে এখন সে টাকা না দিয়ে উল্টো আমাকে বিভিন্ন মামলায় জড়ানো এমনকি হত্যার হুমকি দিয়ে যাচ্ছে। বর্তমানে আমি ও আমার পরিবার নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি। অভিযুক্তরা দুর্দান্ত, অসৎ, নারী নির্যাতনকারী, জালা ভিসা ও জাল পাসপোট এবং বিভিন্ন জাল কাগজপত্র তৈরী করে ট্রাভেলিং ব্যবসা করে অনেক লোকের টাকা আত্বসাত করেছেন। সুত্র:- নিউজ মিরর

(Visited 5 times, 1 visits today)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here