গোয়াইনঘাটে ছাত্রলীগের দু’গ্রুপে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া

0
180

সিলেটের সংবাদ ডটকম: সিলেটের গোয়াইনঘাট উপজেলার ৬নং ফতেহপুরে উপজেলা ছাত্রলীগের বিবাদমান দুই গ্রুপের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনায় পল্লীবিদ্যুতের নতুন বিদ্যুতায়নের অনুষ্টান পন্ড।

মঙ্গলবার (২৯ আগষ্ট) গোয়াইনঘাট উপজেলার ফতেহপুর ইউনিয়নের উজান ফতেপুর প্রাথমিক বিদ্যালয়ে নতুন বিদ্যুৎতায়ন উদ্ভোধনের অনুষ্ঠানে ছাত্রলীগের দুই পক্ষের দাওয়া পাল্টা দাওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, বিদ্যুৎতায়নের অনুষ্টানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন গোয়াইনঘাট উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মোহাম্মদ ইব্রাহীম এবং ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সিনিয়র নেতৃবৃন্দ।

এক পর্যায়ে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক নাজিম উদ্দিন সিলেট জেলা ছাত্রলীগ কর্তৃক সদ্য ঘোষিত উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি সাবুলকে পরিচয় করিয়ে দিলে উপস্থিত তৃনমূল ছাত্রলীগ নেতৃবৃন্দরা এর প্রতিবাদ করায় উভয় পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ বাধে। পরবর্তিতে উপস্থিত সিনিয়র নেতৃবৃন্দের হস্থক্ষেপে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আসলেও শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত এলাকার পরিবেশ থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করছে।

যে কোন সময় বড় ধরনের সংঘর্ষ হওয়ার আশংকা রয়েছে। এ বিষয়ে সদ্য ঘোষনাকৃত গোয়াইনঘাট উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি সেবুল আহমদ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন ফতেহপুর গ্রামে বিদ্যুৎ উদ্ধোধনের সময় কয়েকজন ছাত্রলীগের নেতা আমি বক্তব্য দিতে গেলে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করে পরবর্তীতে এলাকার লোকজন তাদের কে দাওয়া দিলে তারা আত্বোগোপনে চলে যায়।

এ দিকে ছাত্রলীগ নেতা সাফওয়ান আহমদ জানান সিলেট জেলা ছাত্রলীগ কর্তৃক ঘোষিত গোয়াইনঘাট উপজেলা ছাত্রলীগের কমিটিকে তৃনমুল ছাত্রলীগ প্রত্যাখান করেছে। মঙ্গলবার আমরা উদ্ধোধনী অনুষ্টানে যাওয়ার আগে আয়োজকদের বলেছিলাম উপজেলা ছাত্রলীগের কোন নেতাকে পদ পদবীর পরিচয় কিংবা বক্তব্য দিতে পারবেন না দিলে আমরা আপনাদের অনুষ্টানে যাব না, কিন্তু তারা তাদের কথা রাখেন নি,না রাখার কারনে আমরা প্রতিবাদ করেছি।

অন্যদিকে, স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান আমিনুর রহমান চৌধুরী জানান, বিষয়টি নিছকই বিচ্ছিন্ন একটি ঘটনা। উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মোঃ ইব্রাহিমসহ সিনিয়র নেতৃবৃন্দের উপেক্ষা করে তাদের সামনে এধরনের ঘটনা লিপ্ত হয়েছে তারা। মঙ্গলবার ফতেহপুর ইউনিয়নের উজান ফতেপুর প্রাথমিক বিদ্যালয়ে নতুন বিদ্যুৎতায়ন উদ্ভোধনী অনুষ্ঠানের এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকায় চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে। যেকোনো মূহুর্তে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের আতংঙ্কে রয়েছে এ ইউনিয়নের বাসীন্দরা।

(Visited 5 times, 1 visits today)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here