‘অসুস্থ নয়, কারাগারে যৌনকাতর রাম রহিম’

0
54

সিলেটের সংবাদ ডটকম ডেস্ক: প্রায় ১৫ দিন কারাগারে পার করছেন ভারতের বিতর্কিত ও ধর্ষক ধর্মগুরু রাম রহিম সিং। দু’জন শিষ্যকে ধর্ষণের দায়ে অভিযুক্ত হওয়ার পর থেকেই তাণ্ডব শুরু করে রাম রহিম ভক্তরা।

এখনও তিনি বিতর্কের শিরোনামে। কারাগারের মধ্যেই নাকি বারবার অসুস্থ হয়ে পড়ছেন ধর্ষণের দায়ে ২০ বছরের সাজাপ্রাপ্ত আসামি রাম রহিম। তার স্বাস্থ্য পরীক্ষা করে কারাগারের চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, আসলে রাম রহিম প্রচণ্ডমাত্রায় যৌনকাতর হয়ে পড়েছেন। সে কারণেই তার নানারকম সমস্যা দেখা দিয়েছে।

রাম রহিমের যৌনতার কুকীর্তি বর্তমানে আর অজানা নেই। ধর্ষণের দায়ে জেল হয়েছে তার। তার ডেরায় তল্লাশি চালিয়ে রীতিমতো দেখা মিলেছে যৌন সাম্রাজ্যের। কেবল দু’জন শিষ্যকে নয়, দিনের পর দিন শিষ্যদের সঙ্গে যৌনতায় লিপ্ত হতেন তিনি। তার জন্য নাকি রুটিনও ছিল, কার পর কে তার সঙ্গে বিছানায় যাবেন।

আর সেটাই ছিল ডেরার আইন। বিপুল পরিমাণ কনডম আর গর্ভনিরোধক ট্যাবলেট পাওয়া গেছে তার ডেরায়। এমনকি বাবার যৌনসঙ্গী হতে রাজি না হলে শিষ্যদের খুন করা হতো বলেও অভিযোগ উঠেছে। নিজের ডেরায় পানির নিচে যৌনতা উপভোগের জন্য সেক্স গুহাও বানিয়েছিলেন রাম রহিম। এখানেই শেষ নয়, দত্তক নেয়া মেয়ে হানিপ্রীতের সঙ্গেও বাবার যৌন সম্পর্ক ছিল বলে অভিযোগ উঠেছে।

হানিপ্রীতের সাবেক স্বামী অনেক আগেই এমন অভিযোগ করেছিলেন। অনেকাংশেই সেটা সত্য হিসেবে প্রমাণও হয়েছে। কারাগারে যাওয়ার আগের মুহূর্তে হানিপ্রীতকে সঙ্গে রাখার বায়না ধরেছিলেন রাম রহিম। হানিপ্রীতও রাম রহিমের সঙ্গে কারাগারে রাত কাটাতে চেয়েছেন। কারাগার কর্তৃপক্ষ তাতে রাজি হয়নি। এরই মধ্যে হানিপ্রীত নিখোঁজ হয়েছেন।

তার নামে জারি হয়েছে লুক আউট নোটিশ। নেপালে তিনি পালিয়ে গেছেন বলেও একাধিক সূত্র জানিয়েছে। নেপালের থানায়ও ঝোলানো হয়েছে হানিপ্রীতের ছবি। রাম রহিম বারবার অসুস্থ হয়ে পড়ায় চিকিৎসকদের দিয়ে তার স্বাস্থ্য পরীক্ষা করিয়েছে কারাগার কর্তৃপক্ষ। চিকিৎসকরা বলছেন, রাম রহিম আসলে অতি মাত্রায় যৌনকাতর হয়ে পড়েছেন।

কারাগারে যৌনতার কোনো উপায় নেই। সে কারণে অস্বস্তি শুরু হয়েছে রাম রহিমের। তিনি নেশায় আসক্ত ছিলেন কিনা সে ব্যাপারে এখনই সঠিকভাবে জানা যাচ্ছে না। তবে বিদেশ থেকে নিয়ে আসা সেক্স টনিক রাম রহিম নিয়মিত খেতেন বলে চিকিৎসকরা জানিয়েছেন।

কারাগারে সেগুলো খাওয়ারও নিয়ম নেই। আর তাই ক্রমাগত কাতর হয়ে পড়ছেন তিনি। কারাগারের চিকিৎসকরা ইতোমধ্যেই তার চিকিৎসা শুরু করেছেন। এখনই সঠিক চিকিৎসা না হলে রাম রহিমের অবস্থা আরও খারাপ হবে বলে চিকিৎসকরা সাফ জানিয়ে দিয়েছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here