সব ধরনের সহযোগিতা পাবেন ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি

0
252

সিলেটের সংবাদ ডটকম ডেস্ক: আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেছেন, ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতিকে সরকারের পক্ষ থেকে সব ধরনের সহযোগিতা দেয়া হবে।

বৃহস্পতিবার দুপুরে ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতির সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করে বেরিয়ে যাওয়া পথে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন মন্ত্রী।

তিনি বলেন, আমি দায়িত্ব (আইনমন্ত্রীর) নেয়ার পর দুজন প্রধান বিচারপতি পেয়েছি। তাদের দুজনের সঙ্গেই দেখা করেছি আমি। এটা নিয়মিত সাক্ষাতের অংশ। নির্বাহী বিভাগ ও বিচার বিভাগের মধ্যে সেতুবন্ধন হিসেবে কাজ করে আইন মন্ত্রণালয়।

এর আগেও দুইজন প্রধান বিচারপতি দায়িত্বে ছিলেন, আমি তাদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেও এ কথাই বলেছিলাম। বৃহস্পতিবার বেলা ২টার দিকে ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি আব্দুল ওয়াহহাব মিঞার সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করতে যানআইনমন্ত্রী আনিসুল হক। এক ঘণ্টা পর বেলা ৩টার দিকে বেরিয়ে আসেন তিনি।

প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার সঙ্গে দেখা করতে যাবেন কি না- সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, দেখা তো করতে যেতেই পারি। সেটা কি কাউকে বলে যাব না কি? ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতির সঙ্গে সাক্ষাৎকালে এক পর্যায়ে সেখানে আপিল বিভাগের অন্যান্য বিচারপতিরা যোগ দেন বলে জানান আইনমন্ত্রী।

এদিকে আইনজীবী সমিতির নেতাদের বিকেল ৫টায় ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতির খাসকামরায় সাক্ষাতের জন্য সময় দিয়েছেন বলে জানিয়েছেন সমিতির সম্পাদক ও বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন। গত ৩ অক্টোবর সকাল ৯টা ১০ মিনিটে ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি মো. আব্দুল ওয়াহ্হাব মিঞার নেতৃত্বে আপিল বিভাগের কার্যক্রম শুরু হয়।

এরপর ওইদিন বেলা সোয়া ২টায় ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতির নেতৃত্বে সুপ্রিম কোর্টের ফুল কোর্ট (পূর্ণাঙ্গ) সভা অনুষ্ঠিত হয়। এর আগে ২ অক্টোবর সোমবার ব্যক্তিগত অসুস্থতার কারণে এক মাসের ছুটিতে যান প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা। এ ব্যাপারে তিনি সোমবার রাষ্ট্রপতি বরাবর একটি আবেদন করেন।

আবেদনে মঙ্গলবার থেকেই ছুটিতে যাওয়ার ইচ্ছার কথা জানান তিনি। এই ছুটির আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে তার অনুপস্থিতিতে আপিল বিভাগের জ্যেষ্ঠ বিচারপতি আব্দুল ওয়াহহাব মিঞা প্রধান বিচারপতির দায়িত্ব পালন করবেন। সোমবার রাতেই এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করে আইন মন্ত্রণালয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করে আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেন, সংবিধানের ৯৭ অনুচ্ছেদ অনুযায়ী কর্মে প্রবীণ হওয়ায় রাষ্ট্রপতি তাকে (আব্দুল ওয়াহহাব মিঞা) ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি হিসেবে নিয়োগ দিয়েছেন।

(Visited 4 times, 1 visits today)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here