সিসিক নির্বাচনে ৫ নং ওয়ার্ডে পুরুষের প্রতিপক্ষ কবি লিপি

0
644

সিলেটের সংবাদ ডটকম ডেস্ক: সিলেট সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে ৫ নং ওয়ার্ড থেকে নির্বাচন করবেন কবি নিলুফা সুলতানা চৌধুরী লিপি।

সেই সাথে সিলেট সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের ইতিহাসে এই প্রথম পুরুষ ওয়ার্ডে সরাসরি অংশ নিয়ে ইতিহাস হতে চান তিনি।

কবি হিসেবে আড়াই যুগ ধরে বেশ দাপটের সহিত সিলেটের সাহিত্যাঙ্গণে পদচারণার পাশাপাশি সংস্কৃতি অঙ্গণেও সমান ভাবে সক্রিয় রয়েছেন তিনি। পাশাপাশি ‘নোলক সোস্যাল এ্যান্ড কালচারাল এসোসিয়েশন ’ প্রতিষ্টার মাধ্যমে শুদ্ধ সংস্কৃতি চর্চার প্রানান্ত প্রচেষ্টাও অব্যাহত রেখেছেন।

শুধু তাই নয়, এই এসোসিয়েশন এর মাধ্যমে সমাজের অসহায় ও ছিন্নমুলদের সাহায্যার্থেও নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে কবি নিলুফা সুলতানা লিপি। সমাজ পরিবর্তনে সকলের অংশগ্রহণ নিশ্চিত করার উপর গুরুত্বারোপ করে লিপি বলেন, সুবিধাবঞ্চিত একটি বৃহৎ জনগোষ্টীকে পেছনে রেখে দেশের আর্থ সামাজিক অবস্থার পরিবর্তন ঘটানো সম্ভব নয়।

মোট কথা, বৈষম্যহীন সমাজব্যবস্থা গঠনে প্রত্যয়ী কবি লিপি মনে করেন, জনসেবা করতে হলে প্রতিনিধি হওয়ার কোন প্রয়োজন নেই। মানসিক ইচ্ছাটাই যথেষ্ট। কিন্তু প্রচলিত সমাজ ব্যবস্থায় নারীদের সে ইচ্ছাটাকে গলা টিপে হত্যা করছে এক শ্রেনীর দানবীয় লোক। যাদের পাশে নারীরা নিতান্তই অসহায়।

সুতরাং প্রতিনিধিত্বশীল কাজে নারীদের সরাসরি অংশগ্রহণের মাধ্যমে সকল প্রতিবন্ধকতা মোকাবেলা করতে নারীদেরকেই এগিয়ে আসতে হবে। এই বিশ্বাসকে পূঁিজ করেই পুরুষের পাশে নারী শক্তির সমন্বয় ঘটাতে পারলেই দেশের আমূল পরিবর্তন সম্ভব। লিপি মনে করেণ, নারী নাকি পুরুষ, জনসেবার ক্ষেত্রে এই পরিচয়টা গৌণ।

এই বিষয়টিকে লালন করেই বিগত ১যুগ ধরে ‘নোলক সোস্যাল এ্যান্ড কালচারাল এসোসিয়েশন’ এর মাধ্যমে অসহায় ও ছিন্নমুলদের মাঝে খাদ্য বিতরণ, বন্যার্তদের মধ্যে চাল ও নগদ অনুদান,ঈদ ও রোজায় ইফতার মাহফিল, বস্ত্র বিতরণ ও বয়স্ক মহিলাদের আর্থিক সহযোগীতার কাজ চালিয়ে যাচ্ছি। এমনকি প্রতি  বিশ্ব মা দিবসে একজন করে অনাথ মায়ের সামগ্রীক ভরণ পোষনের দায়িত্ব নেওয়ার মাধ্যমে সমাজের সকল মানুষকে মহত কাজে ব্রতী হতে উদ্ধুদ্ধ করেছি।

নির্বাচনে প্রতিদ¦ন্দ্বিতার বিষয়ে  তিনি বলেন, হঠাৎ করেই আমার নির্বাচন করার খায়েস তৈরী হয়নি। আমার ৫ নং ওয়ার্ড  দীর্ঘদিন থেকে নাগরিক সুবিধা বঞ্চিত। রাস্তাঘাট থেকে শুরু করে বিশুদ্ধ পানি সরবরাহ, স্যানিটেশন ব্যবস্থা স্কুল, মাদ্রাসা, মসজিদ ও মন্দির সহ নানা সমস্যা বিরাজমান।

এমনকি সিসি ক্যামেরা বসানো থাকলেও দিনে এবং সন্ধ্যায় চৌর্য্যবৃত্তির উপদ্রব বৃদ্ধি পেলেও রহস্যজনক কারণে তার বিরুদ্ধে কোন কার্যকরী পদক্ষেপ নেওয়া হয়না। ভয়াবহ এই পরিস্থিতি মোকাবেলা করতে নারী হিসেবে আমি বরাবরই শিকার হয়েছি প্রতিহিংসার। আর তাই, ওয়ার্ডবাসীর প্রেরণা, দোয়া এবং আমার প্রতি তাদের নির্ভরতার বিষয়টি মাথায় রেখেই আগামী নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা মোকাবেলা করে এই সমস্যার সমাধান করতেই ওয়ার্ডবাসীর পাশে থাকতে চাই।

তিনি বলেন, নির্বাচিত হলে ৫ নং ওয়ার্ডের বেকার যুবক ও নারীদের কর্মমূখী প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করে তাদের যোগ্য হিসেবে  গড়ে তুলতে চাই। পাশাপাশি বাল্যবিবাহ, যৌতুক ইভটিজিং, মাদকদ্রব্যের কুফল সম্পর্কে জনসচেতনতা সৃষ্টি করে পুরুষের পাশাপাশি নারীদেরকেও মূলধারায় নিয়ে আসার প্রয়াস চালাবো।

(Visited 12 times, 1 visits today)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here