ছাতকে যৌতুক না পেয়ে অন্ত:স্বত্ত্বা গৃহবধুকে পিটিয়ে হত্যা

0
431

সিলেটের সংবাদ ডটকম: ছাতকে যৌতুকের দাবি মেটাতে রাজি না হওয়ায় খাদিজা বেগম (২৩) নামের অন্ত:স্বত্ত্বা এক গৃহবধূকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

৬ অক্টোবর রাতে গোবিন্দগঞ্জ-সৈদেরগাঁও ইউপির বেরাজপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। জানা যায়, প্রায় ২ বছর আগে বেরাজপুরের ময়না মিয়ার পুত্র লেগুনা চালক তাজ উদ্দিনের সাথে ইসলামপুর ইউনিয়নের বাহাদুরপুর (আফজলপুর) গ্রামের আলীম উদ্দিনের মেয়ে খাদিজা বেগমের বিয়ে হয়।

বিয়ের পর থেকে স্বামী  তাজ উদ্দিন ও তার পরিবারের লোকজন খাদিজার উপর যৌতুকের জন্য ব্যাপক অত্যাচার নির্যাতন শুরু করে। তাদের অব্যাহত জুলুম নির্যাতন সইতে না পেরে পিতার কাছ থেকে একাধিকবার নগদ টাকা এনে দেয়।

সর্বশেষ ৬ অক্টোবর একটি লেগুনা গাড়ি ক্রয়ের অজুহাতে পিতার কাছ থেকে নগদ ৫ লাখ টাকা এনে দেয়ার জন্যে খাদিজার উপর মধ্যযুগীয় কায়দায় অত্যাচার-নির্যাতন শুরু করলে রাতে সে মারা যায়। রাত ১১টায় সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মেজেতে খাদিজার লাশ রেখে স্বামী ও পরিবারের লোকজন পালিয়ে যায়।

খাদিজার মৃত্যুর সংবাদ পাশের বাড়ির তার বড় বোন ইমরানা বেগমকেও জানানো হয়নি। স্বামীর বাড়ির লোকজন এখন বাড়ি ছেড়ে পালিয়ে গেছে।

খাদিজার চাচা আতিকুর রহমান, লিটন মিয়া ও শাবলিক হাসপাতালে গিয়ে খাদিজার স্বামী ও পরিবারের লোকজনকে না পেয়ে পরের দিন ৭ অক্টোবর ময়না তদন্ত শেষে পিত্রালয় আফজলপুর এনে লাশের দাফন কাজ সম্পন্ন করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে ইউপি চেয়ারম্যান আখলাকুর রহমান জানান, ওই গৃহবধূর মৃত্যুর বিষয়টি তিনি জেনেছেন। ছাতক থানার উপ-পরিদর্শক কামাল হোসেন বলেন, গৃহবধূ খাদিজার মৃত্যুর ঘটনায় একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের করা হয়েছে।

(Visited 8 times, 1 visits today)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here