সিলেট কোর্ট পয়েন্ট থেকে ৮টি লেগুনা জব্দ

0
1107

সিলেটের সংবাদ ডটকম: সিলেট নগরীর কোর্ট পয়েন্ট থেকে ৮টি লেগুনা জব্দ করেছে পুলিশ। সোমবার বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে সিলেট কোতোয়ালি থানা পুলিশ ৮টি লেগুনা জব্দ করে থানার মালখানায় নিয়ে যায়।

সেখানে জব্দকৃত গাড়িগুলোর তালিকা করা হচ্ছে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত কোর্টপয়েন্টে পুলিশ অবস্থান নিয়েছে, যাতে কোর্ট পয়েন্টে কোনো লেগুনা গাড়ি দাঁড়াতে না পারে।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্র জানায়, নগরীকে যানজটমুক্ত রাখতে ও ফুটপাত দিয়ে পথচারীদের চলাচল সুগম করতে আদালতের নির্দেশনায় সিলেট সিটি করপোরেশন অভিযানে নামে।

সিসিকের মেয়র আরিফুল হক ও কোতোয়ালি থানা পুলিশ যৌথভাবে সোমবার বিকেল ৩টায় কোর্ট পয়েন্টে দাঁড় করা লেগুনা গাড়ির বিরুদ্ধে অভিযানে নামে। এসময় পুলিশ ধাওয়া ও লাঠিচার্জ করে ৮টি লেগুনা গাড়ি জব্দ করে। বাকি গাড়িগুলো দ্রুত পালিয়ে যায়। পরে কোর্ট পয়েন্টে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়।

এর ফলে কোর্ট পয়েন্টে আর কোনো লেগুনা গাড়ি দাড়াতে দেখা যায়নি। এদিকে লেগুনা জব্দের ঘটনার পর লেগুনা শ্রমিকেরা কোর্ট পয়েন্টে জড়ো হয়ে নীরব প্রতিবাদ করেন। এ এ সময় গরিব চালকদের রুটি-রুজির বিষয়টি বিবেচনায় নিতে সংশ্লিষ্টদের প্রতি অনুরোধ জানানো হয়।

এ বিষয়ে সিলেট জেলা অটো টেম্পো-লেগুনা চালক শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি মো. রুনু মিয়া মইন জানান, নগরীর ভেতরে চলাচলের জন্য লেগুনার মেট্রোপারমিট আছে। শ্রমিক সংগঠনের পক্ষ থেকে সিসিককে আমরা অনুমতির জন্য আবেদনও করেছি। সিসিক কর্তৃপক্ষ বিষয়টি নগর উন্নয়ন সভায় আলাপের বিবেচনায় রেখেছেন। সাবেক মেয়র বদর উদ্দিন আহমদ কামরান রাস্তায় বিঘ্ন সৃষ্টি না করে চলাচলেরও অনুমতি দিয়েছিলেন।

নগরীর ভেতরে গাড়িটি চলাচলের অনুমতি পাওয়ার পরও পুলিশ অহেতুক হয়রানি করছে। আমরা এ ব্যাপারে সাংগঠনিক কর্মসূচির পাশাপাশি বিষয়টি আইনিভাবে মোকাবেলাভাবে মোকাবেলার প্রস্তুতি নেয়া হচ্ছে বলে জানান তিনি।

এ ব্যাপারে সিলেট কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. গৌছুল হোসেন বলেন, নগরীকে যানজটমুক্ত রাখতে আদালতের নির্দেশনায় সিসিক ও পুলিশ যৌথভাবে অভিযান চালাচ্ছে। সে অনুযায়ী ৮টি লেগুনা জব্দ করা হয়েছে। অভিযান অব্যাহত থাকবে।’ তিনি জানান, আদালত নগরীকে পরিচ্ছন্ন রাখতে তাদেরকে নির্ভয়ে কাজ করতেও বলেছেন।

(Visited 8 times, 1 visits today)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here