জৈন্তাপুরে আ’লীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষে নিহতের ঘটনায় মামলা হয়নি

0
376

সিলেটের সংবাদ ডটকম: সিলেটের জৈন্তাপুরে শ্রীপুর পাথর কোয়ারির দখল নিয়ে আওয়ামী লীগের দু’পক্ষের সংঘর্ষে একজন নিহতের ঘটনার দু’দিন অতিবাহিত হলেও থানায় কোন মামলা হয়নি।

তবে, এ ঘটনার পর আটক ৮ জনকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। একই সাথে বিরোধপূর্ণ কোয়ারিতে পাথর উত্তোলন বন্ধ রয়েছে। মোতায়েন আছে পুলিশও।

মঙ্গলবার বিকেলে জৈন্তাপুর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) খান মো. মাঈনুল জাকির এসব তথ্য জানিয়েছেন। তিনি আরো জানান, ‘সংঘর্ষে হোসন আহমদ নিহতের ঘটনায় তার পরিবারের পক্ষ থেকে এখন পর্যন্ত কোন মামলা দায়ের করা হয়নি।

এ কারণে আটককৃতদের ১৪৪ ধারা ভঙ্গের অভিযোগে নিয়মিত ধারায় আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে। মামলা দায়ের হলে তাদের গ্রেফতার দেখানো হবে বলেও জানান তিনি। উপজেলা নিবার্হী অফিসার মৌরীন করিম জানিয়েছেন, ‘কোয়ারীর পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে বিরোধপূর্ণ এলাকায় পাথর উত্তোলন বন্ধ রাখা হয়েছে।

জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে কমিটি গঠন করে কোয়ারীর সীমানা চিহ্নিত করে দেয়া হচ্ছে বলেও জানান তিনি। উল্লেখ্য, শ্রীপুর পাথর কোয়ারীর আসামপাড়া ও শ্রীপুর মৌজাসহ কোয়ারীর অভ্যন্তরে মালিকানাধীন কিছু জায়গার দখল নিয়ে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক লিয়াকত আলী ও অপর পক্ষের নেতৃত্বে রয়েছেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি কামাল আহমদের অনুসারিদের মাঝে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল।

বিষয়টি সামাজিক ভাবে নিষ্পত্তির লক্ষ্যে উভয় পক্ষকে নিয়ে কয়েক দফা বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। উপজেলা প্রশাসনও বিষয়টি সুষ্ঠু সমাধান করার জন্য কয়েক দফা চেষ্টা করে। একই সাথে বিরোধপূর্ণ ১৪৫ বিঘা জমির উপর আদালত নিষেধাজ্ঞা জারী করে।

আইন-শৃংখলা পরিস্থিতি অবনতির আংশকায় উপজেলা প্রশাসন আদালতের নিষেধাজ্ঞাকৃত এলাকায় ১৪৪ জারী করেন। গত রোববার সকালে শ্রীপুর পাথর কোয়ারির বিরোধপূর্ণ জায়গার গর্ত দখল করার চেষ্টা করলে সংঘর্ষ বাঁধে। সংঘর্ষে আহতের মধ্যে মহাইল গ্রামের মর্তুজ আলীর পুত্র হোসেন আহমদ সোমবার সন্ধ্যায় ওসমানী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায়।

(Visited 8 times, 1 visits today)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here