শ্রীপুরে আ’লীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষের ঘটনায় লিয়াকত আলীসহ ৭৭জনের বিরুদ্ধে মামলা

0
300

সিলেটের সংবাদ ডটকম: শ্রীপুর পাথর কোয়ারির দখলকে কেন্দ্র করে আওয়ামীলীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষের ঘটনায় উপজেলা আ’লীগের সম্পাদক লিয়াকত আলীকে প্রধান আসামী করে ৭৭জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের।

এজাহার নামীয় ৩আসামীসহ গ্রেফতার ৯জন। পুলিশের গ্রেফতার অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, গত ৩ ডিসেম্বর সকাল ১১টায় শ্রীপুর (শ্রীপুর, আসামপাড়া, কড়মপুর) পাথর কোয়ারীর দখলকে কেন্দ্র করে উপজেলা আ.লীগ সাধারণ সম্পাদক লিয়াকত আলী গ্রুপের সদস্য মুসলিম আলী, ইসমাইল আলী, আব্দুর রাজ্জাক রাজা, সেলিম চৌধুরী, ফয়েজ আহমদ বাবর, মড়া মিয়া, শামীম আহমদ উরফে গন্ডার শামীম, নজরুল ইসলামেরে নেতৃত্বে উপজেলা আ.লীগের সিনিয়র সভাপতি কামাল আহমদ গ্রুপের উপর হামলা চালানো হয়।

সংঘর্ষের ঘটনায় কামাল আহমদ গ্র“পের সদস্য উপজেলা শ্রমিকলীগের সভাপতি ফারুক আহমদ, যুবলীগের আহবায়ক আনোয়ার হোসেন, হুসন আহমদ (নিহত), নজরুল মিয়া, অহিদ মিয়া, আব্বাস মিয়া, আমিন আহমদ, কালা মিয়া, দেলোয়ার, আব্দুর রশিদ, গোপাল, মোস্তাক আহমদ, সালেহ আহমদ, আমিন উদ্দিন, মোহন মিয়া, তাজ উদ্দিন, আব্দুল খালেক, জমশেদ মিয়া, আব্দুর রহিম, আকবর আলী, আব্দুস শুকুর, বাহার, আখলাকুল আম্বিয়া, সাজিদুর রহমান, নুর উদ্দিন, আব্দুন নুর সহ প্রায় ৩০-৩৫জন আহত হন।

এদের মধ্যে গুরুত্বর ৬জনকে জৈন্তাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে সিলেট এম.এ.জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরন করা হয়। চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত সাড়ে ৮টায় দরবস্ত ইউনিয়নের মহাইল গ্রামের সাবেক ইউপি সদস্য মর্তুজ আলীর ছেলে প্রবাসী হুসেন আহমদ(৩৫) নিহত হন।

এঘটনায় নিহতের ভাই আমিন আহমদ বাদী হয়ে জৈন্তাপুর উপজেলা আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক এম.লিয়াকত আলীকে প্রধান আসামী করে ৭৭জনের নাম উল্লেখ করে আরও অজ্ঞাত আসামী করে ৬ডিসেম্বর বুধবার জৈন্তাপুর মডেল থানায় মামলা দায়ের করে (যাহার নং-০৬, তারিখঃ ০৬-১২-২০১৭)।

এদিকে, ঘটনার পর হতে পুলিশ বিশেষ অভিযান চালিয়ে বিভিন্ন স্থান হতে এজাহার নামীয় ৩আসামী সহ মোট ৯জনকে গ্রেফতার করে। এজাহার নামীয় ৩আসামী হল হোসেন আহমদ, রাজু সিং, আব্দুল মতিন উরফে বাঘের ডিম মতিন।

সন্দেহভাজন গ্রেফতারকৃত আসামীরা হল আব্দুস ছামাদ, সোহাগ মিয়া, রুকন মিয়া, আব্দুস শুকুর, জাহাঙ্গীর আলম, শামীম মিয়া। এবিষয়ে জৈন্তাপুর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ খাঁন মোঃ মাইনুল জাকির বলেন- নিহতের ভাই আমিন আহমদ বাদী হয়ে অভিযোগ দায়ের করলে অভিযোগটি মামলা হিসাবে রের্কড করা হয়েছে। এছাড়া পুলিশ আসামীদের গ্রেফতারের জন্য সাড়াশী অভিযান অব্যাহত আছে।

(Visited 22 times, 1 visits today)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here