রোহিতের বিধ্বংসী ব্যাটিংয়ে টি-২০ সিরিজ ভারতের

0
189

সিলেটের সংবাদ ডটকম ডেস্ক: ওয়ানডের পর টি-টোয়েন্টির সংক্ষিপ্ত ফরম্যাটেও দানব রূপে হাজির হলেন রোহিত শর্মা। লঙ্কানদের বিপক্ষে ২৬০ রানের বিশাল পুঁজি রোহিতের ১১৮ রানের ওপর ভর করেই।

ফলে লঙ্কানদের বিপক্ষে দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে ৮৮ রানের বিশাল জয়ে তিন ম্যাচের সিরিজ ২-০ ব্যবধানে জিতে নিয়েছে ভারত। রোহিত শর্মা দ্রুততম সেঞ্চুরির রেকর্ড গড়ে ম্যাচসেরা হয়েছেন।

এই শ্রীলঙ্কার বিপক্ষেই গত বছর টি-টোয়েন্টির সবচেয়ে বড় স্কোর ২৬৩ রান করেছিল অস্ট্রেলিয়া। ফলে অল্পের জন্য তাদের ধরতে পারল না ভারত। এর আগে ৩৫ বলে সেঞ্চুরি করা ডেভিড মিলারের সঙ্গে যৌথভাবে আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টির দ্রুততম সেঞ্চুরির শরিক হয়েছেন রোহিত।

চলতি বছরেই পচেফস্ট্রমে বাংলাদেশের বিপক্ষে ৩৫ বলে সেঞ্চুরি করেন মিলার। এতদিন এককভাবে এই রেকর্ডটা দখলে ছিল তার। রোহিত এবার দক্ষিণ আফ্রিকান এই ব্যাটসম্যানের রেকর্ডে ভাগ বসিয়েছেন। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ৩৫ বলে সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছেন ভারতীয় ওপেনার। তার ব্যাটে ভর করে ভারত সংগ্রহ করে ৫ উইকেটে ২৬০ রান!

রোহিত শর্মাকে ১১৮ রানে কৌশলে তালুবন্দি করান চামিরা। ততক্ষণে ৪৩ বলে ১২টি চার ও ১০টি ছক্কা লেখা হয়ে যায় তার নামের পাশে। রোহিতের আগ্রাসন থামলেও বাকি পথ সামলে নিয়েছেন লোকেশ রাহুল (৮৯) ও মহেন্দ্র সিং ধোনি (২৮)। তবে দুজনেই টিকতে পারেননি শেষ পর্যন্ত।

রাহুলের ৪৯ বলের ইনিংসটাও কম আগ্রাসী ছিল না। তাতে ছিল ৫টি চার ও ৮টি ছয়। লঙ্কান বোলাররা রীতিমত ছিলেন অসহায়। সবাই রান দিয়েছেন গণহারে। ৪ ওভারে ৬১ রান দিয়ে ২ উইকেট নেন নুয়ান প্রদীপ। সমান ওভারে ৪৯ রান দিয়ে দুই উইকেট নেন থিসারা পেরেরা।

২৬১ রানের জবাবে খেলতে নেমে শুধু উপুল থারাঙ্গা ৪৭ ও কুশল পেরেরা ৭৭ রান তুলেন ঝড়ো গতিতে। থারাঙ্গা ২৯ বলে ৩টি চার ও ২টি ছক্কায় এই রান তুলে সাজঘরে ফেরেন। অপরদিকে ৩৭ বলে ৪টি চার ও ৭টি ছয়ে ৭৭ রানে ফেরেন পেরেরা।

তাদের এই ইনিংসও জয়ের জন্য যথেষ্ট ছিল না। কারণ পরের ব্যাটসম্যানরা ছিলেন শুধু আসা-যাওয়ার মিছিলে। অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুস চোট পেয়ে না নামায় ১৭.২ ওভারে ১৭২ রানেই শেষ হয় শ্রীলঙ্কার ইনিংস।

(Visited 6 times, 1 visits today)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here