পদত্যাগের সিদ্ধান্ত আজিজের : কাউন্সিলরদের নিয়ে বাসায় গেলেন আরিফ

0
954

সিলেটের সংবাদ ডটকম: সংরক্ষিত ওয়ার্ডের কাউন্সিলর শামীমা স্বাধীনের হাতে লাঞ্ছিত হওয়ার পর ‘পদত্যাগের সিদ্ধান্ত’ নিয়েছিলেন সিলেট সিটি করপোরেশনের (সিসিক) ভারপ্রাপ্ত প্রধান প্রকৌশলী নুর আজিজুর রহমান।

বিষয়টি জানতে পেরে কয়েকজন কাউন্সিলরকে সাথে নিয়ে নুর আজিজের বাসায় যান মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী।

নুর আজিজুর রহমানের ঘনিষ্ট সূত্র জানায়, মঙ্গলবার বেলা আড়াইটার দিকে কাউন্সিলর শামীমা স্বাধীনের হাতে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত হওয়ার পর মানসিকভাবে ভেঙে পড়েন সিসিকের ভারপ্রাপ্ত প্রধান প্রকৌশলী নুর আজিজুর রহমান।

তিনি পদত্যাগ করার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেন। এ বিষয়টি জানতে পেরে কাউন্সিলর রেজওয়ান আহমদ, জিল্লুর রহমান উজ্জ্বলসহ কয়েকজনকে সাথে নিয়ে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় নুর আজিজুর রহমানের বাসায় যান সিসিক মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী।

সূত্র জানায়, তারা নুর আজিজকে সান্ত¦না প্রদান করেন এবং পদত্যাগের সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসার আহবান জানান। মেয়র ও কাউন্সিলরদের আহবানে পদত্যাগের সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসেন নুর আজিজুর রহমান।

প্রসঙ্গত, মঙ্গলবার বেলা দুইটার দিকে কাউন্সিলর শামীমা স্বাধীন নগর ভবনে প্রধান প্রকৌশলী নুর আজিজুর রহমানের কক্ষে যান। তিনি তার ওয়ার্ডে একটি উন্নয়ন কাজ করে দিতে বলেন নুর আজিজকে।

এসময় নুর আজিজ কাউন্সিলর শামীমা স্বাধীনকে বলেন, ‘এ কাজ করার এখতিয়ার নেই আমার। মেয়র যদি বলেন, তবে আমি কাজ করে দেব। তখন শামীমা স্বাধীন কথা কাটাকাটি শুরু করেন নুর আজিজের সাথে। একপর্যায়ে তাকে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিতও করেন কাউন্সিলর শামীমা।

এ খবর নগর ভবনে ছড়িয়ে পড়লে বিক্ষুব্ধ কর্মকর্তা-কর্মচারীরা ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন। তারা বিক্ষোভ করতে থাকেন। একপর্যায়ে কাউন্সিলর শামীমা স্বাধীনকে নগর ভবনের ৩০৪নং কক্ষে অবরুদ্ধ করে রেখে বাইরে বিক্ষোভ করতে থাকেন কর্মকর্তা-কর্মচারীরা।

উদ্ভূত পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে ছুটে আসেন সিসিক মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা এনামুল হাবীব। পরে মেয়র আরিফ কাউন্সিলরদের নিয়ে বৈঠকে বসেন। বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়, শামীমা স্বাধীনকে বরখাস্ত করতে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ে বুধবার চিঠি প্রদান করা হবে।

(Visited 8 times, 1 visits today)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here