এস এ পরিবহনের সুনামগঞ্জ ব্রাঞ্চ থেকে ভারতীয় চোরাই পণ্যের চালান আটক!

0
787

সিলেটের সংবাদ ডটকম: ব্যক্তি মালিকানাধীন কুরিয়ার সার্ভিস এস এ পরিবহনের সুনামগঞ্জ ব্রাঞ্চ থেকে গত শনিবার (২৩ ডিসেম্বর) রাতে বিজিবির অভিযানে ফলের কার্টুনের ভেতর থেকে বীনা শুল্কে চোরাই পথে নিয়ে আসা প্রায় চার লাখ টাকার ভারতীয় পণ্যের একটি চালান আটক করা হয়েছে।

আটককৃত পণ্যের মধ্যে রয়েছে, ৯৫ প্যাকেট কমপ্ল্যান গুড়ো দুধ ও ১ হাজার ২শ ৫৫ বোতল জনসন বডি লোশন। হাওরাঞ্চল ও সীমান্ত নিকটবর্তী সুনামগঞ্জ জেলা শহরে থাকা ব্যক্তি মালিকানাধীন কুরিয়ার সার্ভিস থেকে এই প্রথম বারের মত ভারতীয় পণ্যের চালান আটক হওয়ায় তোলপাড় শুরু হয়েছে।

সুনামগঞ্জ-২৮ বর্ডারগার্ড ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্ণেল নাসির উদ্দিন আহমেদ পিএসসি রোববার রাতে জানান, জেলা শহর সুনামগঞ্জে থাকা একটি ব্যক্তি মালিকানাধীন কুরিয়ার সার্ভিসের মাধ্যমে দেশের বিভিন্ন স্থানে বীনা শুল্কে ভারত থেকে চোরাই পথে নিয়ে আসা বিভিন্ন পণ্য পাচার হয়ে আসছে বিজিবির নিজস্ব গোয়েন্দা সুত্রে প্রাপ্ত তথ্যের ভিওিতে শহরের পুরাতন বাস ষ্টেশনে এস এ পরিবহন কুরিয়ার সার্ভিসে গত শনিবার রাতে বিজিবি অভিযানে যায়।

পরবর্তী ওই কুরিয়ার সার্ভিসের ব্রাঞ্চে রাখা ৯টি ফলের কার্টুন ভর্তি ভারতীয় চোরাই বডি লোশন ও গুড়ো দুধের চালান আটক করা হয়। তিনি আরো বলেন, এস স পরিবহনে থাকা কর্মকর্তারা কে বা কীভাবে তাদের ব্রাঞ্চে ওইসব ভারতীয় পণ্য পাচারের জন্য রেখে গিয়ে সে ব্যাপারে জিজ্ঞাসাবাদ করলেও কোন রকম সদুওর বা বৈধ কাগজ পত্র দেখাতে না পারায় বিজিবি তা জব্দ করে নিয়ে আসে।

এস এ পরিবহন সুনামগঞ্জ ব্রাঞ্চের ম্যানেজার মাসুদুর রহমান সুমনের নিকট রোববার রাতে এ বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘আমাদের মালিকের এসএ টিভি আছে, আমাদেরর কত সাংবাদিক আছে, আপনি সামনা-সামনি আসুন কথা বলবো।

অপর এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘ওসব ভারতীয় পণ্য আমরা বুকিং দেইনি, পার্টি নিয়ে এসে রেখে গিয়েছিল। পার্টি কে কিংবা কোথায় চালানটি পাঠানোর উদ্দেশ্যে নিয়ে আসা হয়েছিলো এরকম প্রশ্নের কোন জবাব না দিয়ে বারবার প্রসঙ্গ এড়িয়ে যান ওই ব্রাঞ্চ ম্যানেজার।

(Visited 39 times, 1 visits today)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here