দক্ষিণ সুরমা কলেজে ভাঙচুরের ঘটনায় ছাত্রলীগ সেক্রেটারিসহ ৫ জন কারাগারে

0
400

সিলেটের সংবাদ ডটকম: দক্ষিণ সুরমা কলেজের অফিস কক্ষে হামলা চালিয়ে ভাঙচুর ও জরুরী কাগজপত্র লুটের ঘটনায় দায়ের করা মামলায় উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আতাউর রহমান সানিসহ ৫জনকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত।

সোমবার আত্মসমর্পণের করে জামিন আবেদন করলে শুনানী শেষে আদালত তাদের কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। বাকিরা হচ্ছেন- লাভলু, নাঈম, তানিম।

আরেকজনের নাম জানা যায়নি। তারা সকলেই ছাত্রলীগের রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত। এদিকে, ওই পাঁচজনকে কলেজ থেকেও সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন দক্ষিণ সুরমা কলেজের অধ্যক্ষ শামসুল ইসলাম। তিনি জানান, তাদেরকে কেন স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করা হবে না, তা জানতে কারণ দর্শানোর নোটিশও দেয়া হয়েছে।

সিসিটিভির ফুটেজ দেখে ঘটনার সাথে সম্পৃক্ত বাকিদেরও চিহ্নিত করা হচ্ছে। তিনি আরো জানান, কলেজের গভর্নিং বডির সিদ্ধান্ত ছিল যারা টেস্ট পরীক্ষায় পাস করবে, শুধুমাত্র তাদেরকেই ফাইনাল দেয়ার সুযোগ দেয়া হবে। এছাড়া কলেজের অধ্যক্ষ চাইলে বিশেষ বিবেচনায় এক বিষয়ে ফেল করাদের ফাইনাল পরীক্ষা দেয়ার সুযোগ দেবেন।

এ সিদ্ধান্ত অনুসারে যারা পাস করেছে এবং বিশেষ বিবেচনায় আরো কয়েকজনকে ফাইনাল পরীক্ষার সুযোগ দেয়া হয়। কিন্তু এমন সিদ্ধান্তের পর দক্ষিণ সুরমা উপজেলা ছাত্রলীগের কতিপয় নেতাকর্মী, যারা কলেজের ছাত্র, তারা গত ২৬ ডিসেম্বর দুপুর ১টায় কলেজের অফিস কক্ষে হামলা ও ভাঙচুর চালায়।

তারা শিক্ষকদের ও কেরানিদের বের করে দিয়ে পরীক্ষার ফলাফল শিটসহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ কাগজপত্র লুট করে নিয়ে যায়। অধ্যক্ষ শামসুল ইসলাম বলেন, তখন আমি ঢাকায় ছিলাম। ঘটনার কথা জানতে পেরে ফোনে পুলিশ কমিশনার, থানার ওসিকে জানাই।

পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে কিছু কাগজপত্র উদ্ধার করে। গত শনিবার আমরা থানায় জিডি দায়ের করি। পরে রোববার মামলা হয়। সোমবার আদালতে আত্মসমর্পণ করেন পাঁচ ছাত্রলীগ নেতাকর্মী। আদালত তাদেরকে কারাগারে পাঠান।

(Visited 20 times, 1 visits today)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here