বৈধতা পেল ‘রাইড শেয়ারিং’ পরিবহনসেবা

0
165

সিলেটের সংবাদ ডটকম ডেস্ক: বছর পেরিয়ে জনপ্রিয়তা অর্জনের পর এবার উবার, পাঠাওয়ের মতো স্মার্টফোন নির্ভর পরিবহনসেবাকে আইনি বৈধতা দিলো সরকার।

এ জন্য ‘রাইডিং শেয়ারিং সার্ভিস নীতিমালার’ খসড়া অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা। সোমবার ঢাকার তেজগাঁওয়ে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত মন্ত্রিসভার বৈঠকে এই নীতিমালার খসড়া অনুমোদন দেয়া হয়।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এতে সভাপতিত্ব করেন। পরে সচিবালয়ে সংবাদ সম্মেলন করে সভার সিদ্ধান্ত জানান মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম। উবারসহ অন্যরা রাইড শেয়ারিং সার্ভিস পরিচালনা করছে জানিয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, ‘সার্ভিসটি পরিচালনার জন্য বিআরটিএ থেকে সনদ নিতে হবে।

মোটরযানের মালিক এই সার্টিফিকেট নেবেন। ঢাকা-চট্টগ্রামসহ সারা দেশেই এই সেবা দেয়া যাবে বলে জানিয়েছেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব। ১১টি শর্ত মেনে এই সেবা দেয়া যাবে বলেও জানান তিনি। তবে এ জন্য সেবাদানকারী ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানকে প্রথমে একটা লাইসেন্স নিতে হবে। পরে সেটা নবায়ন করতে হবে।

তিনি আরও জানান, বর্তমানে ট্যাক্সিক্যাবের ভাড়ার জন্য যে নীতিমালা আছে, এ ধরনের রাইডিংয়ের ক্ষেত্রেও সেই নীতিমালা অনুযায়ী ভাড়া নির্ধারণ হবে। পাঠাও সার্ভিসের মতো মোটরসাইকেলের মাধ্যমেও এই সেবা দেয়া যাবে। সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠানগুলো এই নীতিমালার শর্ত ভঙ্গ করলে সনদ বাতিলসহ প্রচলিত আইনে শাস্তি পাবে।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব আরও বলেন, বর্তমানেও এ ধরনের সেবা কার্যক্রম চলছে। এটা এখন আইনি কাঠামোয় আনতে নীতিমালা করা হচ্ছে। মোবাইল অ্যাপভিত্তিক যাত্রীসেবাদাতা প্রতিষ্ঠানগুলোকে নীতিমালার আওতায় আনতে ২০১৭ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে খসড়া তৈরি শুরু করে বিআরটিএ।

বিআরটিএ-এর এনফোর্সমেন্ট বিভাগের পরিচালককে প্রধান করে একটি কমিটি এই খসড়া নীতিমালা তৈরি করে। গত ২১ জুন এটি বিআরটিএ থেকে সড়ক যোগাযোগ ও সেতু মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়। উল্লেখ্য, ২০১৬ সালের ২২ নভেম্বর ঢাকায় ব্যক্তিগত যানবাহন দিয়ে যাত্রীসেবা দেয়া শুরু করে মোবাইল অ্যাপভিত্তিক প্রতিষ্ঠান উবার।

তার আগে একইভাবে মোটরসাইকেলে যাত্রীসেবা দেয়া শুরু করে স্যাম। পরে আসে পাঠাও। এই ‘রাইড শেয়ারিং’ সেবাগুলো দিন দিন জনপ্রিয় হচ্ছে। এমনকি এসবের কারণে সিএনজি অটোরিকশা ও ট্যাক্সিক্যাবের প্রতি সাধারণযাত্রীরা বিমুখ হচ্ছে বলেও জানা যায়।

(Visited 3 times, 1 visits today)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here