ফেইসবুকে প্রেম করে বিয়ে, অত:পর………

0
474

সিলেটের সংবাদ ডটকম: ফেইসবুকে প্রেম করে বিয়ের পর প্রতারণার অভিযোগে প্রতারক স্বামীকে গ্রেফতার করেছে কানাইঘাট থানা পুলিশ।

সে উপজেলার রাজাগঞ্জ ইউপির খালপাড় তালবাড়ী গ্রামের ইন্তাজ আলীর ছেলে আলী হোসেন মাসুদ। জানা যায়, ঢাকা রূপনগর থানার ইষ্টার্ণ হাউজিং এলাকার এক মেয়ের সাথে মাসুদের ফেইসবুকে বন্ধুত্বের এক পর্যায়ে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তুলে।

মাসুদ কানাইঘাট উপজেলার রাজাগঞ্জ ইউপির কমিউনিটি ক্লিনিকে চাকরী করে। আর মেয়েটি ব্র্যাক হেল্থ প্রোগ্রামে কাজ করার সুবাদে কোন এক সেমিনারে সে ঢাকা থেকে সিলেটে চলে আসে। এরপর মেয়েটি মাসুদকে ছেড়ে বাড়ীতে যেতে চায়নি। এভাবে কিছুদিন চলে যাওয়ার পর মেয়েটি অন্ত:সত্ত্বা হয়ে পড়লে মাসুদ নানা টাল বাহানা শুরু করে।

মেয়েটি তার টালবাহনা বুঝতে পেরে বিয়ের জন্য চাপ দেয়। এতে ওই প্রতারক উপায়ান্তর না পেয়ে গত বছরের ১৪ সেপ্টেম্বর ঢাকা রূপনগরে মেয়েটিকে নিয়ে গিয়ে ৭লক্ষ টাকা দেনমোহর ধার্য্য করে বিয়ে করে ভাড়াটিয়া বাসায় সংসার করতে থাকে। এর কিছুদিন যেতে না যেতেই গত ১২ জানুয়ারী তার বিবাহিত স্ত্রীকে মারধর করে নিজ বাড়ি কানাইঘাটে চলে আসে।

পরে মেয়েটি তার প্রতারণা বুঝতে পেরে স্বামীর বিরুদ্ধে ঢাকা রূপনগর থানায় অভিযোগ দায়ের করে। সেখানকার থানার তদন্ত কর্মকর্তা মেহেদী হাসান ঘটনার সত্যতা পেয়ে কানাইঘাট থানায় মামলাটি প্রেরণ করেন। গত রবিবার ওই প্রতারক স্বামীকে পুলিশে ধরিয়ে দেওয়ার জন্য মেয়েটি মামলার কপি ঢাকা থেকে হাতে হাতে নিয়ে বড় ভাইকে সাথে করে কানাইঘাটে চলে আসে।

এতে কানাইঘাট থানার এসআই বশির আহমদ ঐদিন বিকাল সাড়ে ৪টায় প্রতারক মাসুদকে স্থানীয় রাজাগঞ্জ বাজার থেকে গ্রেফতার করে ঢাকা রূপনগর থানায় হস্তান্তর করেন। এ ব্যাপারে প্রতারণার শিকার মেয়েটি জানায়, মাসুদ ভালোবাসার অভিনয়ে মূলত তার সাথে প্রতারণা করেছে।

এমনকি সে বাড়িতে পালিয়ে এসে তার ও তার বন্ধুদের বিভিন্ন ফেইক আইডিতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে স্ত্রীর নানা আপত্তিকর ছবি ও বাজে কটুক্তি করেছে বলে তার স্ত্রী দাবী করছেন।

অপরদিকে প্রতারক মাসুদের বড় ভাইয়ের সাথে কথা হলে তিনি জানান এ বিষয়ে মাসুদ বাড়ির কাউকে কোন কিছু জানায়নি। পুলিশ তাকে ধরিয়ে নেওয়ার পর তারা বিষয়টি জেনেছেন।

(Visited 15 times, 1 visits today)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here