গাড়ির গ্লাসে হাত দেওয়ায় স্কুলছাত্রকে পেটালেন সেই উপজেলা চেয়ারম্যানে

0
505

সিলেটের সংবাদ ডটকম: গাড়ির গ্লাসে হাত দেওয়ায় এক স্কুলছাত্রকে পেটানোর অভিযোগ উঠেছে সিলেটের জকিগঞ্জের সেই উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও বিএনপি নেতা ইকবাল আহমদের বিরুদ্ধে।

আহত সেই স্কুলছাত্রকে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। গতকাল বুধবার দুপুরের দিকে পৌর এলাকার হাইদ্রাবন্দে এ ঘটনা ঘটে। শিশুটির মা শাহানারা বেগম ক্ষুদ্ধ কণ্ঠে বলেন, আমার ছেলে ছোট মানুষ।

গাড়ির গ্লাসে হাত দেওয়ায় চেয়ারম্যান খুব মারধর করেছে। মারধরের কারণে কানের পর্দায় সমস্যা হয়েছে। আমরা গরিব বলে কি মানুষ না, চেয়ারম্যান সাহেব এভাবে মারতে পারল- বলেই কান্নায় ভেঙে পড়েন শিশুটির মা। শিশুটির বোন জানান, আমার ভাই স্কুলে যাবার পথে উপজেলা চেয়ারম্যান ইকবাল আহমদের সরকারি গাড়ির গ্লাসে হাত দেওয়ার অপরাধে তিনি গাড়ি থেকে নেমে লাথি, চড়, থাপ্পড় মেরে আহত করে।

স্থানীয়রা উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করেছেন। জানা  গেছে, জকিগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ইকবাল আহমদ তার সরকারি গাড়ি নিয়ে পৌর এলাকার হাইদ্রাবন্দ গ্রামে ভেতরের রাস্তা দিয়ে যাচ্চিলেন। ওই সময় নরসিংহপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পঞ্চম শ্রেণির ছাত্র জহিরুল ইসলাম মুন্না গাড়ির গ্লাসে হাত দেয়, শিক্ষার্থীর হাতের ময়লা গাড়ির গ্লাসে লাগায় ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠেন উপজেলা চেয়ারম্যান।

ক্ষুব্ধ হয়ে গাড়ি থেকে নেমে তিনি ওই শিশুটিকে চড়-থাপ্পড় মারতে থাকেন। চেয়ারম্যানের থাপ্পড় খেয়ে শিশুটির কানের পর্দায় সমস্যা হয় এবং অজ্ঞান হয়ে পড়ে। পরে স্থানীয়রা শিশুটিকে চেয়ারম্যানের হাত থেকে উদ্ধার করে জকিগঞ্জ সরকারি হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে হাসপাতালে ভর্তি করেন।

ওই ঘটনায় শিশুটির পরিবার জকিগঞ্জ থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি নিচ্ছেন। শিশুটি জকিগঞ্জ পৌর এলাকার হাইদ্রাবন্দ এলাকার মৃত সরফই মিয়া ও শাহানারা বেগমের ছেলে। উল্লেখ্য, এ ঘটনায় অভিযুক্ত জকিগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ইকবাল আহমদ তাপাদারের মোবাইলে যোগাযোগ করেও তাকে পাওয়া যায়নি।সুত্র:- বিডিমর্নিং

(Visited 5 times, 1 visits today)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here