ঢাকাকে ধ্বংস করা পাথুরে উন্নয়ন সিলেটে চাই না

0
877

গোলাম সোবহান চৌধুরী:- সিলেটের ধোপাদিঘীর পূর্বপাড়ের উত্তর অংশে আংশিক মাটি ভরাট দেখলাম।

হয়তো পুরো দিঘী ভরাট করার কাজ চলছে। সাইফুর রহমান সাহেব অর্থমন্ত্রী থাকাকালে বর্তমান মেয়র প্রভূত ক্ষমতাশালী ছিলেন এবং তখন রেড ক্রিসেন্টের নামে দিঘীর কিয়দংশ মাটি ভরাট করেন।

বর্তমানে সেখানে কার-মাইক্রো স্টেন্ড গড়ে উঠে এবং কিছু জায়গার উপর সিটি কর্পোরেশন মসজিদ নির্মিত হয়েছে। জেল হস্হান্তরিত হয়ে বাদাঘাট চলে যাবে অচিরেই। জেলের স্হানটি একটি পার্ক হলে, দিঘীটি সংস্কার করে পরিচ্ছন্ন রাখলে এবং জবরজং ব্যবসায়িক পার্কটির লিজ বাতিল করে স্হানটি পার্কের সাথে একাকার করে নিলে নগরবাসী উপকৃত হবেন।

নগরের মধ্যখানে দৃষ্টিনন্দন পার্ক ও স্বচ্ছ জলের দিঘী নগরের পরিবেশ সহনশীল ও স্বাস্হ্যকর রাখবে। শিশু-কিশোরসহ নগরের সকল মানুষ পার্কে বেড়ানোসহ স্বাস্হ্যকর ভাবে ব্যবহারের সুযোগ সহজেই গ্রহণ করতে পারবে। এই নগরীর পাড়ায় পাড়ায় জল টলমল পুকুর ছিল, ছিল বড় বড় দিঘী ও খেলার মাঠ।

এখন নগরীতে “পুড়ামাটি নীতি” উন্নয়ন চলছে। এ কেমন উন্নয়ন যে উন্নয়ন আমাদের খেলার মাঠ কেড়ে নেয়, যে উন্নয়ন সাঁতার কাটার জল-পুকুর, ছায়া সুশীতল বৃক্ষতল কেড়ে নেয়। নগর উন্নয়নের নামে আরেকটি অস্বাস্থ্যকর নগর আমরা চাই না।

প্রকৃতির স্বাভাবিক বিকাশ ও প্রকাশ বজায় রেখে সবুজ টিলার নগরী সিলেটের জনবান্ধব উন্নয়ন আমরা দেখতে চাই। নগর উন্নয়নে নাগরিক মতামত ও নগর পরিকল্পনাবিদের পরামর্শ গ্রহণ করা হোক।

রাজধানী ঢাকা যে পাথুরে উন্নয়নে ধ্বংস হতে বসেছে সে উন্নয়ন সিলেটে হোক তা আমরা চাই না। দায়িত্বশীলদের নাগরিক মতামত জোরালোভাবে শুনাতে হবে এবং মানুষকে সবুজ সিলেট রক্ষার্থে সচেতন ও সচেষ্ট থাকার আহবান জানাই। লেখক- আইনজীবী ও রাজনীতিবিদ।

(Visited 7 times, 1 visits today)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here