সৌদিতে ইয়েমেনের ক্ষেপণাস্ত্র হামলা : নিহত ১

0
118

সিলেটের সংবাদ ডটকম ডেস্ক: সৌদি আরব লক্ষ্য করে ইয়েমেনের হুথি বিদ্রোহীদের ছোড়া ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্রের আঘাতে এক সৌদি নাগরিক নিহত হয়েছেন।

শনিবার সৌদি আরবের দক্ষিণাঞ্চলের প্রদেশ জিজানে হুথি বিদ্রোহীদের ছোড়া ওই ক্ষেপণাস্ত্র আঘাত হানে। সৌদি কর্তৃপক্ষ বলছে, ক্ষেপণাস্ত্রের ধ্বংসাবশেষের আঘাতে একজন নিহত হয়েছেন।

গত সপ্তাহে ইয়েমেনে সৌদি আরবের বিমান হামলায় দেশটির বিদ্রোহী গোষ্ঠী হুথির শীর্ষ নেতা সালেহ আল-সামাদ নিহত হয়। ওই হামলার প্রতিশোধ নিতে শনিবার সৌদিতে হুথিরা ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালিয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। হুথি বিদ্রোহী গোষ্ঠীর ওই শীর্ষ নেতার জানাজা শনিবার অনুষ্ঠিত হয়েছে।

এতে হাজার হাজার হুথি অংশ নেয়। সালেহর জানাজার আগে রাজধানী সানার উপকণ্ঠে শনিবারও বিমান হামলা চালিয়েছে সৌদি নেতৃত্বাধীন সামরিক জোট। ইয়েমেনের উত্তরাঞ্চলের বিশাল অংশের নিয়ন্ত্রণ করছে হুথি। তবে সানার উপকণ্ঠে সৌদি হামলায় হতাহতের কোনো খবর পাওয়া যায়নি।

এদিকে, বিদ্রোহী গোষ্ঠী হুথি বলছে, শনিবার তারা সৌদি আরবের অর্থনৈতিক এলাকা ও গুরুত্বপূর্ণ লক্ষ্যে অন্তত ৮টি ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করা হয়েছে। দক্ষিণাঞ্চলের জিজানসহ রাজধানী রিয়াদেও ক্ষেপণাস্ত্র ছোড়া হয়েছে। তবে তাদের ছোড়া চারটি ক্ষেপণাস্ত্র লক্ষ্যে আঘাত হানতে সক্ষম হয়েছে বলে দাবি করেছে হুথি।

জিজান প্রদেশের বেসামরিক প্রতিরক্ষা বাহিনীর মুখপাত্র কর্নেল ইয়াহিয়া আব্দুল্লাহ আল কাহতানি দেশটির টেলিভিশন চ্যানেল আরাবিয়াকে বলেছেন, সামরিক প্রোজেক্টাইল ক্ষেপণাস্ত্রের খণ্ড পড়ে এক সৌদি নাগরিক নিহত হয়েছেন। ২০১৫ সালের ২৬ মার্চ থেকে সৌদি নেতৃত্বাধীন সামরিক জোট ইয়েমেনে হুথি ও অন্যান্য বিদ্রোহীদের বিরুদ্ধে হামলা শুরু করে।

সৌদি সরকার ইয়েমেনের সাবেক প্রেসিডেন্ট আব্দুরাব্বু হাদি আল মনসুরকে ইয়েমেনের ক্ষমতায় ফের বসানোর লক্ষ্যে হুথি বিদ্রোহীদের দমনের লক্ষ্যে ওই হামলা শুরু করে। সৌদি নেতৃত্বাধীন জোটের হামলায় কয়েক হাজার নারী ও শিশুসহ এখন পর্যন্ত প্রায় ১৪ হাজার বেসামরিক ইয়েমেনি নিহত হয়েছেন। এছাড়া গৃহহীন হয়ে পড়েছেন দেশটির আরো লাখ লাখ মানুষ।

(Visited 3 times, 1 visits today)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here