বিশ্বকাপের জন্য ১৩জন ভিডিও অ্যাসিস্ট্যান্ট রেফারি

0
110

সিলেটের সংবাদ ডটকম ডেস্ক: রাশিয়া বিশ্বকাপ থেকেই আনুষ্ঠানিকভাবে ব্যবহার শুরু হবে গোল লাইন প্রযুক্তির নতুন সংস্করণ ভিডিও অ্যাসিস্ট্যান্ট রেফারি (ভিএআর)।

ফিফার কংগ্রেসেই এই বিষয়টা অনুমোদন হয়ে গেছে। রেফারিদের বিভিন্ন সিদ্ধান্তকে আরও নিখুঁত করার লক্ষ্যেই, বিশেষ করে গোল এবং পেনাল্টির বিষয়গুলোকে নিখুঁত করার জন্যই ব্যবহার করা হবে ভিডিও অ্যাসিস্ট্যান্ট রেফারি সিস্টেম।

ফিফা কংগ্রেসে পাস হওয়ার পর ভিএআর নিয়ে আরও অনেক কর্মশালা, কর্মকাণ্ডের আয়োজন করা হয়েছে। অবশেষে সে সব থেকে বাছাই করা হয়েছে ১৩জন ভিডিও অ্যাসিস্ট্যান্ট রেফারি। যারা পুরো খেলার প্রতিটি মুহূর্ত পুঙ্খানুপুঙ্খ বিশ্লেষণ করবেন এবং প্রয়োজনীয় মুহূর্তে সঠিক সিদ্ধান্ত দেবেন।

অন্য যে কারও চেয়ে এই ১৩ জন ভিডিও অ্যাসিস্ট্যান্ট রেফারির প্রযুক্তি জ্ঞান নিঃসন্দেহে অন্যদের চেয়ে বেশি। ফিফা নিজেদের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে, এই ১৩জন ভিডিও অ্যাসিস্ট্যান্ট রেফারির কথা। ফিফার রেফারিজ কমিটিই বাছাই করেছে এই ১৩জন ভিডিও অ্যাসিস্ট্যান্ট রেফারিকে।

যে ক্রাইটেরিয়ার ভিত্তিতে ভিডিও অ্যাসিস্ট্যান্ট রেফারি নিয়োগ করা হয়েছে, সেগুলো হচ্ছে- তাদের অভিজ্ঞতা, বিভিন্ন ফেডারেশন কিংবা কনফেডারেশনের হয়ে ম্যাচ অফিসিয়াল হিসেবে ভিডিও নিয়ে কাজ করার অভিজ্ঞতা। একই সঙ্গে ফিফা কর্তৃক আয়োজিত নানা কর্মশাল এবং কর্মকাণ্ডে যারা অধিকতর অংশগ্রহণ এবং দক্ষতার পরিচয় দিয়েছে, তাদের মধ্য থেকেই বাছাই করা হয়েছে এই ১৩জন রেফারিকে।

রাশিয়া বিশ্বকাপে প্রতিটি ম্যাচেই ৩জন করে ভিডিও অ্যাসিস্ট্যান্ট রেফারি কাজ করবেন। এভিএআর-১, এভিএআর-২ এবং এভিএআর-৩। যে ১৩জনকে নিয়োগ দেয়া হয়েছে, তারা কেবলমাত্র ভিডিও অ্যাসিস্ট্যান্ট রেফারি হিসেবেই দায়িত্ব পালন করবেন।

তাদেরকে মূল রেফারি কিংবা সহকারী রেফারির দায়িত্বে দেখা যাবে না কখনও। তবে আগে ঘোষিত বিশ্বকাপের মূল রেফারি কিংবা সহকারী রেফারিদের মধ্য থেকেও কাউকে কাউকে ভিডিও অ্যাসিস্ট্যান্ট রেফারির দায়িত্ব দেয়া হতে পারে, অবস্থার পরিপ্রেক্ষিতে।

(Visited 9 times, 1 visits today)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here