দক্ষিণ সুরমা থেকে শিশু কন্যা ধর্ষণকারী গ্রেপ্তার

0
628

সিলেটের সংবাদ ডটকম: মৌলভীবাজারের কুলাউড়ায় চাঞ্চল্যকর ৩ বছরের শিশু কন্যা ধর্ষণ মামলার প্রাধান আসামী ধর্ষণকারী শিপু মিয়া (১৮)-কে সিলেটের দক্ষিণ সুরমা থেকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব-৯।

বৃহস্পতিবার (১০ মে) ভোর সাড়ে ৪টায় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাব-৯ এর একটি বিশেষ দল দক্ষিণ সুরমা থানা এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেপ্তার করে।

গ্রেপ্তারকৃত নোমান আহম্মেদ শিপু মিয়া কুলাউড়া থানাধীন ভাটেরা গ্রামের ছেরাগ আলীর ছেলে। শিপু শিশুটির আপন মামাত ভাই। অতিরিক্ত পুলিশ সুপার র‌্যাব-৯ এর সিনিয়র সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) মো: মনিরুজ্জামান প্রেরিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

উল্লেখ্য, গত রোববার (০৬ মে) শিশুটির দিনমজুর বাবা-মা বাড়িতে না থাকায় দুপুর বেলায় প্রতিবেশী শিপু মিয়া বিস্কুট খাওয়ানোর লোভ দেখিয়ে ওই শিশু কন্যাকে তার ঘরে ডেকে নিয়ে যায়। এক পর্যায়ে শিপু মিয়া ওই শিশুটিকে ধর্ষণ করে। শিশুটির বাবা-মা দিনমজুরের কাজ শেষে বাড়ি ফিরে দেখেন তাদের শিশু মেয়ে কাঁদছে।

এ সময় তার শারীরিক অবস্থা দেখে এবং শিশুটির কথা শুনে ধর্ষণের আলামত বোঝা যায়। পরে শিশুর স্বজনেরা শিপু মিয়ার অভিভাবকের কাছে গিয়ে এ ঘটনার বিচার দাবি করেন, কিন্তু তারা বিষয়টি এড়িয়ে যান। পরবর্তীতে শিশুর মা বাদী হয়ে শিপু মিয়ার বিরুদ্ধে মঙ্গলবার (০৮ মে) কুলাউড়া থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করেন।

এরই প্রেক্ষিতে র‌্যাব-৯ এর কয়েকটি বিশেষ দল ধর্ষক শিপুকে গ্রেপ্তারের লক্ষ্যে পৃথক পৃথক অভিযান পরিচালনা করে। তারই ধারাবাহিকতায় র‌্যাব-৯, সিলেট এর একটি চৌকষ দল এই চাঞ্চল্যকর ধর্ষণ মামলার প্রধান আসামীকে বৃহস্পতিবার ভোরে সিলেটের দক্ষিণ সুরমা থেকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়।

গ্রেফতারকৃত শিপুকে জিজ্ঞাসাবাদে তিন বছরের কন্যা শিশুকে ধর্ষণের কথা স্বীকার করে। ঘটনার পর থেকে চাঞ্চল্যকর শিশু কন্যাকে ধর্ষণের পর শিপু আত্মগোপনে ছিলো। গ্রেপ্তারকৃত আসামী শিপুকে কুলাউড়া থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে বলেও বিজ্ঞপ্তিতে জানান মনিরুজ্জামান।

(Visited 13 times, 1 visits today)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here