হোটেল আল-তকদিরে গণধর্ষণ ২ বখাটে ৩ দিনের রিমান্ডে

0
761

সিলেটের সংবাদ ডটকম ডেস্ক: বিয়ের প্রলোভনে তরুণী গণধর্ষণ মামলায় দুই বখাটে নরপশুকে তিনদিনের রিমান্ডে নেয়া হয়েছে। দক্ষিণ সুরমা থানা পুলিশ বৃহস্পতিবার (১৭ মে) তাদের রিমান্ডে নেয়।

আসামীরা হলো- দক্ষিণ সুরমার হোটেল আল-তকদিরের পরিচালক সিলেটের মোগলাবাজার থানার কুচাই গ্রামের সৈয়দ নিয়াজ ও একই হোটেলের স্টাফ সুনামগঞ্জের দিরাইয়ের জসিম উদ্দিন।

জানা গেছে, সিলেটের গোয়াইনঘাট থানার ঠাকুরবাড়ির এক তরুণীর (১৯) সাথে মোবাইলে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তুলে হোটেল আল-তকদিরের পরিচালক নারীখেকো ও নারীদেহে ব্যববসায়ী সৈয়দ নিয়াজের নির্দেশে একই হোটেলের স্টাফ প্রেম প্রতারক জসিম উদ্দিন।

পরে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে জসিম ওই তরুণীকেব সিলেট নগরীতে এনে হোটেল আল-তকদিরে ওঠায়। কিন্তু বিয়ে না করে ইচ্ছার বিরুদ্ধে দীর্ঘ ১৪ দিন হোটেল কক্ষে বন্দী রেখে জসিম ও হোটেল পরিচালক সৈয়দ নিয়াজ-সহ অনেকে তাকে জোরপূর্বক ধর্ষন করতে থাকে।

গত ৩ মে কৌশলে হোটেল থেকে পালিয়ে তার এক বান্ধবীর আশ্রয় নেয় ওই তরুনী। পরে বান্ধবী জনৈক নাছিমা বেগমের সহায়তায় দক্ষিণ সুরমা থানায় গিয়ে ধর্ষক জসিম ও নিয়াজসহ ৪ জনকে এজাহারভুক্ত করে নারী ও শিশু নির্যতন দমন আইনে একটি মামলা {নং-০২(৫)১৮} করে।

মামলার পরই পুলিশ অভিযান চালিয়ে হোটেল আল-তকদিরের পরিচালক সৈয়দ নিয়াজ ও স্টাফ জসিম উদ্দিনকে গ্রেফতার করে জেল হাজতে প্রেরণ পূর্বক তাদের ৭দিনের রিমান্ড চায়। বৃহস্পতিবার রিমান্ডের শুনানী শেষে আদালত তাদের প্রত্যেকের ৩দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

মামলার এজাহার নামীয় অপর দুই নরপশু জাকির ও নূর মিয়া এখনো পলাতক রয়েছে। তাদের গ্রেফতারে পুলিশের তল্লাশী অভিযান অব্যাহত রয়েছে। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা দক্ষিণ সুরমা থানার এসআই লোকমান গ্রেফতার ও রিমান্ডের তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

(Visited 15 times, 1 visits today)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here