বৃষ্টি হলেই জলাবদ্ধতা, ভোগান্তি

0
44

সিলেটের সংবাদ ডটকম: নোংরা পানিতে নিমজ্জিত প্রবেশ পথ। চার পাশে ময়লা-আর্বজনার স্তুপ ও আগাছা-জঙ্গলের সারি। এমন ভূতুড়ে পরিবেশে কোনক্রমে কার্যক্রম চলছে সিলেটের বিশ্বনাথ উপজেলা কৃষি অফিস ও জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের।

বৃষ্টির মৌসুমে জলাবদ্ধতা এ অফিস দু’টির নিত্য দিনের চিত্র। এতে যেমন দুর্ভোগের শিকার সেবা নিতে আসা মানুষ, তেমনি বিপাকে এসব অফিসের কর্মকর্তা-কর্মচারীরাও।

সামান্য বৃষ্টি হলেই সৃষ্টি হয় স্থায়ী জলাবদ্ধতা। এতে ভোগান্তিতে পড়েন পথচলতি মানুষও। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ভরাট ও দখলে আশ-পাশের খাল গুলো নিশ্চিহ্ন হয়ে গেছে। বন্ধ হয়ে গেছে জলাধারগুলোও। এ কারণেই ওই এলাকায় জলাবদ্ধতা লেগেই থাকে। বৃষ্টির পানি নিস্কাশনের পথ না থাকায় ডুবে যায় অফিসের প্রবেশ পথ ও আশপাশ এলাকা।

বৃষ্টির মৌসুমে মারাত্মক আকার ধারণ করে জলাবদ্ধতা। দেখা দেয় কৃত্রিম বন্যা। জনভোগান্তি পৌঁছায় চরমে। ওই সময়টা পানি মাড়িয়ে অফিস করেন কর্মকর্তা-কর্মচারীরা। সেবা নিতে আসা মানুষজন জানান, প্রবেশ পথে পানি জমে থাকার কারণে অফিসে যেতে আমাদের কষ্ট হয়। কোন ভাবেই মুক্তি মিলছেনা এ জলাব্ধতা থেকে।

দিনের পর দিন এই অবস্থায় থাকলে আমরা কোথায় যাব? উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা আলীনূর রহমান বলেন, অফিসের পেছনের ড্রেন পরিস্কার না হওয়ায় জলাবদ্ধতা লেগেই আছে। বৃষ্টির দিনে জুতো হাতে নিয়ে অফিসে যেতে হয়। ভোগান্তিতে পড়েন সেবা নিতে আসা মানুষও।

এ বিষয়ে কথা হলে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা অমিতাভ পরাগ তালুকদার বলেন, এ সমস্যা দীর্ঘ দিনের। পাশের খাল গুলো ভরাট-দখলে নিশ্চিহ্ন হয়ে যাওয়ায় এ অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে। দ্রুত জলাবদ্ধতা নিরসনে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

(Visited 31 times, 1 visits today)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here