সিগারেট খাওয়াকে কেন্দ্র করে মারধর করায় খুন হয় তাসিন

0
40

সিলেটের সংবাদ ডটকম: পবিত্র ঈদুল ফিতরের রাতে নগরীর শিবগঞ্জ এলাকায় সিগারেট খাওয়াকে কেন্দ্র করে মারধর করার কারনে খুন হয় স্কুল ছাত্র মশিউর রহমান তাসিন।

আদালতের কাছে এরখম স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিতে তা উঠে এসেছে। তাসিন হত্যাকান্ডে আটক মোঃ রফিক (১৮) ও মোঃ রাহি (২০) উক্ত ঘটনায় নিজেদের জড়িত করে অন্যান্য আসামীদের নাম প্রকাশ করে আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি প্রদান করে।

বৃহস্পতিবার তাদেরকে আদালতে নেয়া হয়। এর আগে তাসিন হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে আটক করা হয় নাইমুর  রহমান রাব্বি (১৮), নিহাদ আহমদ উরফে লিহাদ আহমদ (১৮), মোঃ  রফিক (১৮) ও মোঃ রাহি (২০), ফয়েজ আহমদসহ কয়েকজনকে।

এর মধ্যে  মোঃ রফিক ও মোঃ রাহি হত্যাকান্ডের সাথে সম্পৃক্ত থাকার বিষয়টি স্বীকার করে। কি কারণে এবং কিভাবে তাসিনকে খুন করা হয় সেসব বিষয় উঠে আসে তাদেরস্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিতে। পুলিশের কাছ থেকে পাওয়া তথ্যে জানা গেছে , ঈদুল ফিতরের রাতে শিবগঞ্জ সাদিপুর রাস্তার মুখে হেয়ার গেইম সেলুনের সামনে মশিউর রহমান তাসিন তার বন্ধুরা ঈদ উপলক্ষে আড্ডা দিচ্ছিল।

তখন হেয়ার গেইম সেলুনের পাশের পান দোকান থেকে সিগারেট নেয় আসামী রাবিন ও তার সহযোগীরা। সেসময় দোকানের সামনেই তারা ধূমপান করতে থাকে। বিষয়টিকে বেয়াদবী হয়েছে ভেবে মশিউর রহমান তাসিনসহ তার বন্ধুরা এজাহার নামীয় আসামী রবিন ও তার সহযোগীদের মারধর করে চড়-থাপ্পড় মেরে বিদায় করে দেয়।

এর প্রতিশোধ নেওয়ার জন্য আসামীরা শিবগঞ্জ মিতালী ফার্মেসীর সামনে চায়ের দোকানে উৎপেতে থাকে। আড্ডা শেষে  মশিউর রহমান তাসিন তার বন্ধু ফাহিম ও রাফাত আহমদ সানিসহ হেটে হেটে শিবগঞ্জ সোনারপাড়া বাসায় যাওয়ার উদ্দেশ্যে শিবগঞ্জ মিতালী ফার্মেসীর উল্টো পার্শ্বে বাইতুল জান্নাত জামে মসজিদের সংলগ্ন পৌছলে পূর্ব থেকে উৎপেতে থাকা আসামীগণ মশিউর রহমান তাসিনকে আটকিয়া তার গালে, গলায় এবং উরুতে ছুরিকাঘাত করে চলে যায়। মশিউর রহমান তাসিনের বন্ধু রাফাত আহমদ সানি ও ফাহিম সিএনজিতে করে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত ডাক্তার মশিউর রহমান তাসিনকে মৃত ঘোষণা করেন।

(Visited 32 times, 1 visits today)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here